scorecardresearch
 
 

'কহিঁ পে নিগাহেঁ, কহিঁ পে নিশানা,' লকেট-কুণাল টুইটারে যা চলছে...

ভবানীপুর উপ-নির্বাচনে (Bhabanipur By Election) প্রচারের ময়দানে একে অপরকে টেক্কা দিচ্ছে BJP ও TMC। টুইটারেও সেই উত্তাপ নতুন মাত্রা পেয়েছে BJP সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় (locket Chaterjee) ও তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের (kunal Ghosh) বাক্য বিনিময়ে। ঘটনার সূত্রপাত কুণাল ঘোষের টুইটকে ঘিরে।

কুণাল ও লকেক কুণাল ও লকেক
হাইলাইটস
  • ভবানীপুরে প্রচারের ময়দানে একে অপরকে টেক্কা দিচ্ছে BJP ও TMC
  • টুইটারেও সেই উত্তাপ নতুন মাত্রা পেয়েছে
  • কুণাল ঘোষ ও লকেট চট্টোপাধ্যায় একে অপরকে নিশানা করছেন

ভবানীপুর উপ-নির্বাচনে (Bhabanipur By Election) প্রচারের ময়দানে একে অপরকে টেক্কা দিচ্ছে BJP ও TMC। টুইটারেও সেই উত্তাপ নতুন মাত্রা পেয়েছে BJP সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় (locket Chaterjee) ও তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের (kunal Ghosh) বাক্য বিনিময়ে। ঘটনার সূত্রপাত কুণাল ঘোষের টুইটকে ঘিরে। ভবানীপুর উপনির্বাচনে দলের হয়ে প্রচারে না-আসার জন্য লকেটকে টুইট করে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক কুণাল। আর তারপর থেকে শুরু হয়েছে 'টুইট-যুদ্ধ'। 

এদিন প্রথম টুইটে কুণাল ঘোষ লেখেন, 'ভবানীপুরে প্রচারে না আসায় তারকা প্রচারক লকেট চট্টোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ। BJP অনেক অনুরোধ করলেও আপনি প্রচার করেননি। আপনি যেখানেই থাকুন বন্ধু হিসাবে আপনার সাফল্য কামনা করি।' তারপরই কুণালের ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য, 'পৃথিবী খুব ছোটো। আশা করি, আপনি যেখান থেকে রাজনৈতিক জীবন শুরু করেছিলেন, সেখানেই ফিরে আসবেন।' 

আরও পড়ুন : নতুন সংসদ ভবনের কাজ দেখতে রাতে সেন্ট্রাল ভিস্তায় PM মোদী, দেখুন

কুণাল ঘোষের এই টুইট সামনে আসার পর শুরু হয় জল্পনা। প্রশ্ন উঠতে শুরু করে তাহলে কি লকেট চট্টোপাধ্যায়ও তৃণমূলের পথে পা বাড়াচ্ছেন? সেই কারণেই কি তাঁকে নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ টুইট করলেন কুণাল? রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, কুণালের এই টুইটের অন্যতম কারণ হল, লকেটের ভবানীপুরের প্রচারে অংশ না নেওয়া। 

এই জল্পনা-কানাঘুষোর মধ্যেই কুণাল ঘোষকে কটাক্ষ করেন লকেট। তিনি প্রতি উত্তরে কুণালকে লেখেন, ' ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাতে হেরে না যান, আপনার বরং সেই দিকে মন দেওয়া উচিত।' 

এই টুইটের পাল্টা দেন কুণাল ঘোষও। এবার তিনিও কটাক্ষ করেন BJP সাংসদকে। লেখেন, 'হা হা। কোনও চিন্তা করবেন না। মমতাদি প্রচুর মার্জিনে জিতবে। আর আপনিও তো সেটাই চান। আমি জানি আপনাকে নিজের দলের হয়ে লিখতেই হবে। কিন্তু, তারপরও আপনাকে ধন্যবাদ। কারণ, আপনি একবারের জন্যও নিজের দলের প্রার্থীর নাম উচ্চারণ করেননি। কহিঁ পে নিগাহেঁ, কহিঁ পে নিশানা। খুব ভালো।' 

আরও পড়ুন : Bhabanipur By Poll: ভবানীপুরে দিলীপের প্রচারে ব্যাপক অশান্তি, মাথা ফাটল BJP কর্মীর

যদিও কুণাল ঘোষের শেষ করা টুইটের উত্তর এখনও দেননি লকেট চট্টোপাধ্যায়।