scorecardresearch
 

Kolkata Municipal Corporation Election 2021 : 'মামলা চলাকালীন কীভাবে ভোট ঘোষণা?', হাইকোর্টে প্রশ্ন BJP-র

রাজ্য সরকার ও রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কড়া সমালোচনা করেন বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য (Shamik Bhattacharyya)। শমীক প্রশ্ন তোলেন, 'বিস্তারিত শুনানির জন্য যখন ২৯ তারিখটি ধার্য করা হল, সম্পূর্ণ বিষয়টি যখন আদালতের নজরদারিতে চলছিল, সেই সময় কীভাবে রাজ্য নির্বাচন একতরফা কলকাতার পুরসভার নির্বাচন ঘোষণা করে দিতে পারে?'

কলকাতা পুরসভা কলকাতা পুরসভা
হাইলাইটস
  • কলকাতা পুরভোট ঘোষণার বিরোধিতা বিজেপির
  • রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তীব্র সমালোচনা
  • কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ

কলকাতার পুরভোট ঘোষণা করেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। আর তারপরেই হাইকোর্টের দ্বারস্থ বিজেপি। পুরভোটের বিজ্ঞপ্তি নিয়ে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করতে যায় গেরুয়া শিবির। তার জেরে দুপুর ১টায় তাদের আসতে বলেন প্রধান বিচারপতি পঙ্কজ শ্রীবাস্তব। 

এদিন শুনানিতে বিজেপির তরফে আদালতে জানানো হয়, রাজ্য নির্বাচন কমিশন আগে জানিয়েছিল যে আদালতের অনুমতি ছাড়া তারা নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করবে না। তারপরেও এদিন পুরভোটের দিন ঘোষণা করা হয়েছে। পালটা রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল এস এন মুখোপাধ্যায় বলেন, শুধুমাত্র কলকাতা পুরভোটের দিন ঘোষণা করা হয়েছে। একইসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল আরও জানান যে, আগামী ৩০ এপ্রিল ২০২২-এর মধ্যে সমস্ত পুরসভার ভোট সম্পন্ন করা হবে। মামলার পরবর্তী শুনানি ২৯ নভেম্বর।

এদিন রাজ্য সরকার ও রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কড়া সমালোচনা করেন বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য (Shamik Bhattacharyya)। শমীক প্রশ্ন তোলেন, 'বিস্তারিত শুনানির জন্য যখন ২৯ তারিখটি ধার্য করা হল, সম্পূর্ণ বিষয়টি যখন আদালতের নজরদারিতে চলছিল, সেই সময় কীভাবে রাজ্য নির্বাচন একতরফা কলকাতার পুরসভার নির্বাচন ঘোষণা করে দিতে পারে?' একইসঙ্গে ইভিএম নিয়েও রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে নিশানা করেন শমীক। তিনি বলেন, 'পর্যাপ্ত ইভিএম নেই বলে সম্প্রতি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের তরফে মানুষের সামনে যে তত্ত্ব নিয়ে আসা হচ্ছে, তার জন্য তো অন্য কেউ দায়ী নয়, দায়ী রাজ্য নির্বাচন কমিশন।' এই রাজ্যে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে প্রহসনে পরিণত করা হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। 

এদিনই সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে কলকাতার পুরভোট (Kolkata Municipal Election) ঘোষণা করেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ১৯ ডিসেম্বর ভোট হতে চলেছে কলকাতার ১৪৪টি ওয়ার্ডে। গণনা ২১ ডিসেম্বর। ১ ডিসেম্বর মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। ২ ডিসেম্বর শুরু স্ক্রুটিনি। ৪ ডিসেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২২ ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছে কমিশন। তবে কলকাতার পুরভোট ঘোষণা হলেও হাওড়া নিয়ে কিছু জানা যায়নি।