scorecardresearch
 

Tala Bridge Inauguration : আড়াই বছরের প্রতীক্ষার অবসান, টালা ব্রিজের উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রীর

২০১৯ সালে পুজোর আগে বন্ধ করে দেওয়া হয় টালা ব্রিজ। যানবাহন চলাচলের জন্য বিপজ্জনক হয়ে পড়ায় ব্রিজটি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তারপর শুরু হয় পুরনো ব্রিজ ভাঙার কাজ। নতুন ব্রিজ তৈরির কাজ শুরু হয় পরের বছর ফেব্রুয়ারি মাসে। আর এদিন তার উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। 

টালা ব্রিজের উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রীর টালা ব্রিজের উদ্বোধন মুখ্যমন্ত্রীর
হাইলাইটস
  • খুলে গেল নয়া টালা ব্রিজ
  • উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী
  • আপাতত চলবে শুধু ছোট গাড়ি

ঘোষণা ছিলই। আর সেই মতোই পুজোর আগে শহর কলকাতার মানুষকে বড় উপহার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বৃহস্পতিবার টালা ব্রিজের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানান, ব্রিজ তৈরিতে ৫০৪ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। রেলকে দিতে হয়েছে ৯০ কোটা টাকা। তবে আপাতত বড় গাড়ি, এখন শুধু ছোট গাড়ি চলবে বলেই জানা গিয়েছে। 

দিন কয়েক আগেই টালা ব্রিজ নিয়ে বৈঠক করেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পুরসভা, পিডব্লুডি ও নির্মাণকারী সংস্থার আধিকারিকেরাও। সেই দিনই ফিরহাদ হাকিম জানিয়ে দেন, লোড টেস্টের রিপোর্ট চলে এলেই চালু করা হবে টালা ব্রিজ। একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে দিয়েই ব্রিজের উদ্বোধন করানো হবে বলেও সেদিন জানান ফিরহাদ। 

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে পুজোর আগে বন্ধ করে দেওয়া হয় টালা ব্রিজ। যানবাহন চলাচলের জন্য বিপজ্জনক হয়ে পড়ায় ব্রিজটি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তারপর শুরু হয় পুরনো ব্রিজ ভাঙার কাজ। নতুন ব্রিজ তৈরির কাজ শুরু হয় পরের বছর ফেব্রুয়ারি মাসে। আর এদিন তার উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। 

এদিকে পুজোর আগেই নয়ারূপের এই টালা ব্রিজ চালু হয়ে যাওয়ায় ভীষণ খুশি শহরবাসী। তারমধ্যেও বিশেষ করে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন উত্তর কলকাতার বাসিন্দারা। কারণ উত্তর কলকাতার যোগাযোগ ব্যবস্থার একট গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম এই টালা ব্রিজ। কিন্তু এতদিন ব্রিজ বন্ধ থাকার ফলে বেশ সমস্যার মধ্যে দিয়েই নিত্যদিনের যাতায়াত করতে হত তাঁদের। তাই ব্রিজ খুলে যাওয়ায় সবচেয়ে উপকৃত তাঁরা। এরজন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদও জানাচ্ছেন উত্তর কলকাতার বাসিন্দারা। 

এদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম, মেয়র পারিষদ অতীন ঘোষ-সহ পুলিশ ও প্রশাসনের আধিকারিকেরা। এছাড়াও ছিলেন সঙ্গীতশিল্পী নচিকেতা চক্রবর্তী। 

আরও পড়ুনসূর্য-রাহুর 'অশুভ যোগ', বিপদের সম্ভাবনা প্রবল ৫ রাশির