scorecardresearch
 

Tapos Mondal-Kuntal Ghosh : 'আমি কুন্তলকে টাকা দিয়েছি, সেই টাকা ফেরত চাইব না?'

ED-দফতরে হাজিরা দিলেন তাপস মণ্ডল। মঙ্গলবার সকালে তিনি সিজিও দফতরে হাজিরা দেন। আজই কুন্তল ঘোষ ও তাপস মণ্ডলকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে পারেন তদন্তকারীরা।

ফাইল ছবি ফাইল ছবি
হাইলাইটস
  • ED-দফতরে হাজিরা দিলেন তাপস মণ্ডল
  • মঙ্গলবার সকালে তিনি সিজিও দফতরে হাজিরা দেন

ED-দফতরে হাজিরা দিলেন তাপস মণ্ডল। মঙ্গলবার সকালে তিনি সিজিও দফতরে হাজিরা দেন। তাপস মণ্ডল বলেন, 'নিলাদ্রী আমার কাছে আসতেন। কুন্তলের ফ্ল্যাটে আমি থাকিনি। আমি কুন্তলকে টাকা দিয়েছি, সেই টাকা ফেরত চাইব না? আমি ফাঁসিয়েছি কি না সেটা প্রমাণ হবে। চাকরি প্রার্থীদের কাছ থেকে যে টাকা নিয়েছিল, সেই টাকা চেয়েছিলাম।' আজই কুন্তল ঘোষ ও তাপস মণ্ডলকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে পারেন তদন্তকারীরা। তাঁদের অনুমান, দুজনকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করলে অনেক জটলা খুলে যাবে। 

এর আগে তাপস মণ্ডল অভিযোগ করেন, স্কুলে চাকরি দেওয়ার নাম করে ১৯ কোটি টাকা তুলেছেন যুব তৃণমূল নেতা কুন্তল ঘোষ। যদিও কুন্তল সেই অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেন, ৫০ লাখ টাকা চেয়েছিলেন তাপস। তা না দেওয়াতেই তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। 

আরও পড়ুন :  সরস্বতী পুজোর আগেই ৬ শতাংশ বকেয়া-সহ বেতন বৃদ্ধি, বিজ্ঞপ্তি জারি রাজ্যের

শুক্রবার চিনার পার্কে একটি আবাসনের জোড়া ফ্ল্যাটে হানা দেয় ইডি। তল্লাশি চালানোর সময় একটি নোটবুক ও ব্যাঙ্কের নথি উদ্ধার করা হয় বলে খবর। সেই নথিতে বেশ কিছু সাংকেতিক চিহ্ন খুঁজে পেয়েছেন তদন্তকারীরা। সেগুলির অর্থোদ্ধারে তৎপর হয়েছেন তাঁরা। ইডি মনে করছে, ওই নথিগুলির সঙ্গে টাকা লেনদেনের সম্পর্ক থাকতে পারে। খোঁজ মিলতে পারে তৃতীয় ব্যক্তির। এর আগে মানিক ভট্টাচার্যের ঘনিষ্ঠ তাপসের কাছ থেকে একটি ডায়েরি উদ্ধার করা হয়েছিল। সেই ডায়েরিতেও একাধিক নাম রয়েছে। সেই ডায়েরির সঙ্গে ওই নথির খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে ইডি সূত্রের খবর।

আরও পড়ুন : 'আমি টাকা চাইবোই.... আমি কেন ব্ল্যাকমেল করব', মেজাজ হারালেন তাপস মণ্ডল

উল্লেখ্য, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের মানিক ভট্টাচার্যকে জেরা করে তাপস মণ্ডলের খোঁজ পায় সিবিআই। সেই তাপস মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই কুন্তল ঘোষের নাম সামনে আসে। তাপসের দাবি, চাকরি দেওয়ার নাম করে পরিচিতদের থেকে ১৯ কোটি ৪৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নিয়েছিলেন কুন্তল। 

তিনি আরও দাবি করেন, যে ফ্ল্যাটে তারা তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিলেন, সেখানে দীর্ঘ দিন থেকে গিয়েছেন তাপস মণ্ডল। তার প্রমাণও হাজির ফ্ল্যাটেই। ইডিকে সে বিষয়ে তদন্ত করারও আর্জি জানিয়েছেন ধৃত যুবনেতার স্ত্রী। তিনি দাবি করেন, নিউটাউনের ফ্ল্যাটে ওই ফ্ল্যাটে দিনের পর দিন থাকতেন তাপস মণ্ডল।কিন্তু সেই দাবি অস্বীকার করেন তাপস নিজে।