scorecardresearch
 

Partha Chatterjee Mla Jail- Arpita Mukherjee : 'বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিতে চান না পার্থ', দাবি তাঁর আইনজীবীর

SSC দুর্নীতিকাণ্ডে গ্রেফতার পার্থ চট্টোপাধ্যায় মন্ত্রিত্ব হারিয়েছেন৷ দলীয় সব পদ থেকেও তাঁকে সরিয়ে সাসপেন্ড করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে বিধায়ক পদ থেকে সরতে চান না তিনি।

ফাইল ছবি ফাইল ছবি
হাইলাইটস
  • SSC দুর্নীতিকাণ্ডে গ্রেফতার পার্থ চট্টোপাধ্যায় মন্ত্রিত্ব হারিয়েছেন
  • দলীয় সব পদ থেকেও তাঁকে সরিয়ে সাসপেন্ড করেছে তৃণমূল কংগ্রেস
  • তবে বিধায়ক পদ থেকে সরতে চান না তিনি

SSC দুর্নীতিকাণ্ডে গ্রেফতার পার্থ চট্টোপাধ্যায় মন্ত্রিত্ব হারিয়েছেন৷ দলীয় সব পদ থেকেও তাঁকে সাসপেন্ড করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে বিধায়ক পদ থেকে সরতে চান না তিনি। এমনই দাবি করলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী সুকন্যা ভট্টাচার্য। 

তিনি এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে দেখা করেন। সেখান থেকে বেরিয়ে বলেন, 'আমি বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিতে চাই না।' এমনটাই জানিয়েছেন তাঁর মক্কেল। 

সুকন্যা ভট্টাচার্য বলেন, ' আমি আজ প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছি। তিনি বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিতে চান না। বরং, জেল থেকে বেরিয়ে তিনি নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে চান।' 

যদিও গতকাল অর্থাৎ ৫ তারিখ আদালতের সামনে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী জানান, জামিন পেতে বিধায়ক পদও ছেড়ে দিতে তৈরি তাঁর মক্কেল। 

আরও পড়ুন : মাসে আড়াই লাখ টাকার ফল খেতেন পার্থ! এখন জেলে কী খাচ্ছেন ?

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী আদালতে জানান, তাঁর মক্কেল একজন সাধারণ মানুষ। তিনি প্রভাবশালী নন। জামিন পেতে তিনি বিধায়ক পদ ছাড়তেও রাজি রয়েছেন। 

যদিও সেই আবেদন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় ব্যাঙ্কশাল আদালত। পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে পাঠানো হয় প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে। 

আরও পড়ুন : ০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া-অতি ভারী বৃষ্টি; দক্ষিণবঙ্গে জারি সতর্কতা

প্রেসিডেন্সি জেল সূত্রে খবর, পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রেসিডেন্সি জেল ব্লকের ২ নম্বর কক্ষে রয়েছেন। গতকাল রাতে তাঁকে খেতে দেওয়া হয় ডাল, রুটি ও সব্জি। তাঁকে মেঝেতে শুতে দেওয়া হয়। ২ টি কম্বল তিনি নিয়েছিলেন। সকালে খান চা ও বিস্কুট।

ESI হাসপাতাল সূত্রে খবর, ওজনও কমেছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। বর্তমানে ২ কেজি ৯০০ গ্রাম ওজন তাঁর। আগে ছিল ১১১ কেজি। শারীরিক সমস্যা সেই অর্থ নেই। তবে গতকাল তাঁকে ESI হাসপাতালে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হলেও পার্থবাবু সেভাবে উত্তর দেননি। তিনি নাকি চুপচাপই ছিলেন।