scorecardresearch
 
 

'ঝুট বোলে কাউয়া কাটে!' অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর তত্ত্ব নিয়ে BJP-কে আক্রমণ মমতার

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee)-এর প্রশ্ন, তথ্য কোথায়? কেন্দ্র কত ওষুধ দিয়েছে, কত টিকা দিয়েছে? তারা করোনা (Corona)-র তৃতীয় ঢেউ আটকাতে কী ব্যবস্থা নিয়েছে?

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
হাইলাইটস
  • কেন্দ্র সরকার দাবি করেছে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অক্সিজেনের অভাবে কেউ মারা যাননি
  • বৃহস্পতিবার এই দাবি উড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
  • তাঁর কটাক্ষ, ঝুট বোলে, কউয়া কাটে

কেন্দ্র সরকার দাবি করেছে, করোনা (Corona)-র দ্বিতীয় ঢেউয়ে অক্সিজেন (Oxygen Shortage)-এর অভাবে কেউ মারা যাননি। বৃহস্পতিবার এই দাবি উড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee)। তাঁর কটাক্ষ, ঝুট বোলে, কউয়া কাটে!

এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের তিনি দাবি করেন, এটা পুরোটাই মিথ্যা। এটা জুমলাবাজি। এটা চলতে পারে না। তাদের কাছে কোনও তথ্য আছে কত মানুষ মারা গিয়েছেন? উত্তরপ্রদেশে কত মরদেহ ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে?

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee)-এর প্রশ্ন, তথ্য কোথায়? কেন্দ্র কত ওষুধ দিয়েছে, কত টিকা দিয়েছে? তারা করোনা (Corona)-র তৃতীয় ঢেউ আটকাতে কী ব্যবস্থা নিয়েছে? মানুষ এই সব কিছুই জানতে চান। শুধু মিথ্যে দিয়ে হবে না। এটা সবথেকে বড় চিন্তা। তারা বলে এক আর করে এক। ঝুট বোলে কউয়া কাটে, একটা গান রয়েছে না!

এদিকে, এদিন রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে বালি-খাদান নীতি গৃহীত হয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, বালি-খাদান নীতি ২০২১ গ্রহণ করা হল। এ নিয়ে অভিযোগ আসে, নজরে আসে। খাদানের কাজে যাতে স্বচ্ছ্বতা বজায় রাখা যায়, তাই এই ব্যবস্থা। অনিয়মের কোনও অভিযোগ পেলে কাউকে ছাড়া হবে না।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) অনেক দিন ধরে চেষ্টা করেও স্থানীয় মাফিয়াদের জন্য কিছু করতে পারছি না। বালি, কয়লা, সুরকি, পাথর নিয়ে চলে যায়। এগুলি প্রাকৃতি সম্পদ, স্থানীয় সম্পদ। জেলাশাসক নিলাম করলেও দুষ্কৃতীরা বেশি করে নিয়ে চলে যায়। স্যান্ড মাইনিং পলিসি আনা হল।

এ ব্য়াপারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) বলেন, ডিএম-দের হাতে ছিল অকশনের, সেটা মিনারেল মাইনিং বোর্ডের হাতে দেওয়া হয়েছে। মুখ্যসচিব আর অর্থ সচিব তদারকিতে কাজ হবে। সিসিটিভি থেকে শুরু করে ডিজিটাল যা উপায়। স্থানীয় সম্পদ লুঠ করা যাবে না। । যে কেউ হোক না কেন, নিয়ম না করলে ব্যবস্থা। 

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (WB CM Mamata Banerjee) আরও জানান, অনেক সময় নজরে আসে, অভিযোগ আসে, বালি, কয়লা, সুরকি, পাথর। ৫ বছরের জন্য দিলেও চার ৪ গুণ নিয়ে যায়। পরিবেশ নষ্ট হয়, সরকারের আয় কমে যায়। আগামী দিনে যাতে মনে রাখে স্থানীয় সম্পদ নষ্ট করা যাবে না।

কেন্দ্রকে আক্রমণ করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য কয়লা কেন্দ্র সরকারের আন্তর্গত। তবে ওরা দোষ দিয়ে বেরায় অন্যদের। এখন থেকে কড়া হাতে ধরার ব্যবস্থা করছি। স্বচ্ছ্বতা বজায় রাখা হবে। আমাদের আইনশৃঙ্খলা যেমন বজার রাখার রাখব। পাবলিকের জন্য ফোন নম্বর দিয়ে দেওয়া হবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। সবার জন্য একই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

১ সেপ্টেম্বর থেকে রাজ্যে চালু হচ্ছে 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার' প্রকল্প। সেখানে তপশীলী জাতির মহিলারা মাসে ১ হাজার, সাধারণ মহিলারা ৫০০ টাকা করে পাবেন। জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। তিনি জানান, ১ সেপ্টেম্বর থেকে মহিলারা ওই উপকার পেতে শুরু করবেন। তার আগে তো দরখাস্ত নিতে হবে। তাই আবার দুয়ারে সরকার শুরু হবে। ১৬ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর দুয়ারে সরকার আবেদন দিন। 

সেখানে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড, কৃষকবন্ধুর আবেদন দেওয়া যাবে। জাতির শংসাপত্র, জয় জোহারের আবেদনও করা যাবে। কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, মানবিক, ১০০ দিনের কাজ, ডিজিটাল রেশন কার্ডের আবেদন করা যাবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা যাতে আরও বেশি করে মানুষের কাছে পৌঁছনো যায়, তাই দুয়ারে সরকার করার আয়োজন করা হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে। যাতে মানুষ সহজে জানতে পারেন।