scorecardresearch
 
লাইফস্টাইল

Egg Cooking Methods: ডিম সেদ্ধ বা পোচ করতে গিয়ে এই ভুলগুলি হয়ে যায়? জানুন সঠিক পদ্ধতি

ডিমকে
  • 1/7

ডিমকে বলা হয় প্রোটিনের 'পাওয়ার হাউস'। ডিম পেশী শক্তিশালী করার কাজ করে। 'গুড লেস্টেরল' বাড়িয়ে দেয় ডিম। যদিও অনেকেই ডিম সেদ্ধ বা ভাজার সঠিক উপায় জানেন না। ভুলভাবে ভাজা বা সেদ্ধর কারণে ডিমের পুষ্টিগুণ নষ্ট করে ফেলেন।
 

বিখ্যাত
  • 2/7

বিখ্যাত আমেরিকান শেফ ইয়াসমিন আলসাওয়াফ স্বাস্থ্য ভিত্তিক একটি ওয়েবসাইটে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে ডিম তৈরির সঙ্গে সম্পর্কিত অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য শেয়ার করেছেন। ইয়াসমিন বলেন, ডিম রান্না করার সময় অনেকে প্রায়ই ভুল করে এবং তা বানানোর সঠিক উপায় কী তা জানে না। তাহলে জেনে নিন।
 

ডিম সেদ্ধ
  • 3/7

ডিম সেদ্ধ - ইয়াসমিন জানান, অধিকাংশ মানুষ ডিম সেদ্ধর জন্য ফাটা ডিম নেয়। কম গভীর পাত্র নেয়। পাত্রটিতে পর্যাপ্ত জল দেয় না। ডিম ফুটন্ত জলে রান্না করা, ঠান্ডা হলে খোসা ছাড়ানো। এসব ভুল করবেন না। ডিম সেদ্ধ করার সময় কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। যেন ডিম ফাটা না হয়, ডিম ফোটানোর পাত্রটি গভীর হয়, ডিম পুরোপুরি জলে ডুবে থাকে এবং তাতে নুন দিতে হবে অবশ্যই। এতে ডিম তাড়াতড়ি ফুটে ওঠে। ডিম কম আঁচে সেদ্ধ করতে হবে। বেশি আঁচে ফোটালে ডিমগুলি ফেটে যাবে। জল ফুটে ওঠার ১০-১২ মিনিটের মধ্যে ডিম ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে যায়।
 

পোচ
  • 4/7

পোচ করা ডিম - ডিম পোচ তৈরির সময় ভিনেগার দেওয়া, কম গভীর পাত্র গ্রহণ করা, খুব গরম জল নেওয়া, তাজা ডিম না নেওয়া, একই পাত্র ব্যবহার করে সব ডিম ফাটানোর মতো ভুল করে। ইয়াসমিন আরও বলেন, পোচ করা ডিম তৈরির জন্য নুন এবং ভিনেগার পোচিং লিকুইডে মেশানো উচিত। তাহলে ডিমের প্রোটিন দ্রুত সেট হয় এবং ডিম ছড়িয়ে যায় না। ডিমের হলুদ অংশ এক জায়গায় থাকার জন্য, সমস্ত ডিম আলাদা বাটিতে ভেঙে নিন, এটি তৈরি করতে কমপক্ষে ছয় ইঞ্চি গভীর একটি পাত্র নিন, একটি পোচ তৈরি করতে ৩-৪ মিনিট সময় নিন।
 

ভাজা ডিম
  • 5/7

ভাজা ডিম - ডিম ভাজার সময় অনেকেই তাজা ডিম ব্যবহার করে ন। তেল ও নন স্টিক প্যান ব্যবহার করে না। বেশি আঁচে রান্না করে এবং ডিম সরাসরি প্যানেই ফাটিয়ে নেয়। ইয়াসমিন বলেন, ভাজা ডিমের জন্য তাজা ডিম নেওয়া প্রয়োজন। তেল বা মাখন লাগিয়ে ডিম ভাজুন এবং  নন স্টিক প্যান ব্যবহার করুন। ডিম সব সময় মাঝারি আঁচে ভাজা উচিত। ডিম সবসময় একটি আলাদা পাত্রে ফাটানোর পর প্যানে রাখতে হবে তাহলে এর হলুদ অংশটি ফাটল ধরে না।
 

ডিম ভুর্জি
  • 6/7

ডিম ভুর্জি - ডিমের ভুর্জি তৈরিতে অনেক ভুল করে ফেলেন অনেকে। যেমন বাটিতে ডিমের সঙ্গে পনির এবং মশলা দেয়। ইয়াসমিন জানান, কাঁচা ডিমের সঙ্গে প্রায় দু'চা চামচ জল যোগ করুন। এর ফলে রান্নার সময় ডিম ফুলে যায়। ক্রিম বা দুধ দিলে এর স্বাদ বেড়ে যায়। ডিমের ভুর্জি নামানোর দু'মিনিট আগে পনির বা ক্রিম যোগ করতে হবে। শুধুমাত্র মাঝারি আঁচে রান্না করুন।
 

অমলেট
  • 7/7

অমলেট- অনেক ছোট ছোট ভুল অমলেটের স্বাদ নষ্ট করে দেয়। যেমন, দীর্ঘ সময় ডিম ফেটানো, ডিমের পরিমাণ অনুযায়ী পাত্রের অভাব, অমলেট এ অনেক জিনিস যোগ করা। ডিম তার সাদা এবং হলুদ অংশগুলি মিশ্রিত না হওয়া পর্যন্ত ব্লেন্ড করুন। ওমলেটের ওপর যা যা যোগ করতে চান দিয়ে দিন। এটি সুস্বাদু করতে আপনি ক্রিমও যোগ করতে পারেন। বাটারে রান্না করা ডিম আরো সুস্বাদু দেখায়।