scorecardresearch
 

নিষেধাজ্ঞা উঠছে, ফের এ রাজ্যে আসবে ইলিশ ! আশায় পশ্চিমবাংলা

প্রতিশ্রুতি দিয়েও সেই মতো ইলিশ না পাঠানোই মনোক্ষুন্ন হয়েছে পশ্চিম বাংলার ইলিশপ্রেমীরা। ২৫ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। ফলে এ রাজ্যের আশা ফের ইলিশ আসবে।

ছবি - গেটি ইমেজেস ছবি - গেটি ইমেজেস
হাইলাইটস
  • ফের ইলিশ ঢুকবে এ রাজ্যে !
  • আশায় রয়েছে পশ্চিমবঙ্গবাসী
  • ২৫ অক্টোবর উঠে যাচ্ছে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা

ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল বাংলাদেশ সরকার। ৩ অক্টোবর থেকে ২২ দিন অর্থাৎ ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত তাদের ইলিশ ধরার ওপর বাধা ছিল। যা নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। এবার ইলিশ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠতে চলেছে। ফলে ফের এরাজ্যে এলে পাঠানো হবে কিনা তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা।

মন ভরেনি পশ্চিংবাংলার

কারণ এর আগে দুর্গাপুজোর সময় দুহাজারের বেশি টনের বেশি ইলিশ এ রাজ্যে পাঠানো হবে বলে ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ সরকার। এরপর নির্ধারিত সময়ের আগেই ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা বলবৎ করে দেওয়া হয়। ফলে যে পরিমাণ ইলিশ পাঠানোর কথা ছিল তার অর্ধেক ইলিশও পৌঁছতে পারেনি এ রাজ্যে। ইলিশের স্বাদ পেলেও মন ভরেনি এপার বাংলার।

মনোক্ষুণ্ণ পশ্চিমবাংলার ইলিশপ্রেমীরা

পাশাপাশি প্রতিশ্রুতি দিয়েও সেই মতো ইলিশ না পাঠানোই মনোক্ষুন্ন হয়েছে পশ্চিম বাংলার ইলিশপ্রেমীরা। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন তাহলে হিসেব না করে প্রতিশ্রুতি দেওয়ার মানে কি? ইলিশপ্রেমীরা তো বটেই, মৎস্য ব্যবসায়ীরা সকলেই ইলিশের আশায় অপেক্ষা করেছিলেন। তবে সামান্য পরিমাণ ইলিশ নিয়ে তাদের সে আশা পূরণ হয়নি।

ব্যান উঠলে ইলিশ আসবে কী ! প্রশ্ন

এবার ২৫ অক্টোবর ২২ দিনের মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। ফলে মানুষের মধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, যে ফের ইলিশ পাঠানো হবে কি না, কারণ প্রতিশ্রুতি মত ইলিশ না মেলায় সেটা বকেয়া রয়ে গিয়েছে। সেই জায়গা থেকে নীতি অনুযায়ী বাকি ইলিশ পাঠানো উচিত বলেই মৎস্যপ্রেমীদের অধিকাংশই মন্তব্য করেছেন। যদিও সম্পূর্ণ নির্ভর করছে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর।

ও বাংলার কাছে পূর্ব প্রতিশ্রুতির পূরণ চায় এ বাংলা

এই মুহূর্তে বাংলাদেশের ইলিশ বাজারে নেই। ফলে ইলিশ ধরা শুরু হলেও বাংলাদেশের বাজারে বিক্রি করা হবে, না এ রাজ্য পাঠানো হবে তা নিয়ে দ্বন্দ্বে রয়েছে অনেকে। তাই ২৫ অক্টোবর ইলিশ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলে তারপর কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও রকম ঘোষণা করা হয়নি বাংলাদেশ সরকারের তরফে। তবে সিদ্ধান্ত যাই হোক ইলিশ প্রেমীদের আরজি, প্রতিশ্রুতির ইলিশ যেন পূরণ করে বাংলাদেশ সরকার।

 

 
; ; ;