scorecardresearch
 

Carrot Benefits : গাজরের এই ৬ জবরদস্ত ফায়দা জানলে রোজ খাবেন, দেখুন...

Carrot Benefits: আধ কাপ গাজর (Carrot)-এ রয়েছে ২৫ ক্যালোরি। তাতে থাকে ৭৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ২ গ্রাম ফাইবার, ৩ গ্রাম চিনি, আধ গ্রাম প্রোটিন।

গাজরে রয়েছে অনেক গুণ (প্রতীকী ছবি) গাজরে রয়েছে অনেক গুণ (প্রতীকী ছবি)
হাইলাইটস
  • শীতের আরও একটা 'সুপারফুড'এর ব্যাপারে জেনে নেওয়া যাক
  • এটি খেতে দারুণ, আর পুষ্টিগুণেও ভরপুর
  • সেটি হল গাজর, ঠান্ডার সময় মেলে এই সবজি

Carrot Benefits: শীতের আরও একটা 'সুপারফুড'এর ব্যাপারে জেনে নেওয়া যাক। এটি খেতে দারুণ। আর পুষ্টিগুণেও ভরপুর। সেটি হল গাজর। ঠান্ডার সময় মেলে এই সবজি। কমবেশি সবাই পছন্দ করেন গাজর (Carrot)।

আধ কাপ গাজর (Carrot)-এ রয়েছে ২৫ ক্যালোরি। তাতে থাকে ৭৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ২ গ্রাম ফাইবার, ৩ গ্রাম চিনি, আধ গ্রাম প্রোটিন। গাজরের মধ্যে পাওয়া যায় ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, ভিটামিন সি, পটাশিয়াম, ফাইবার, ক্যালশিয়াম আর আয়রনের মতো জরুরি জিনিস।

এর পাশাপাশি এতে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা শরীরের জন্য অত্যন্ত লাভদায়ক। গাজর খেলে কী কী উপকার পাওয়া যায়, জেনে নেওয়া যাক। 

আরও পড়ুন: ৩০ বছর বয়সের পর মা হতে চাইলে এই ৫ জরুরি জিনিস মাথায় রাখুন

চোখের জন্য ভাল
গাজরকে চোখের জন্য ভাল বলে মনে করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে বিটা-ক্য়ারোটিন। যা শরীরে গিয়ে ভিটামিন এ-তে পরিণত হয়। ভিটামিন এ চোখের জন্য খুব কাজের। তীব্র রোদ থেকে চোখকে বাঁচায় বিটা ক্যারোটিন।

ক্যান্সারের আশঙ্কা কমায়
বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, গাজর (Carrot) ক্যান্সারের সম্ভাবনা কমায়। এর মধ্যে থাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর ফ্রি র্যাডিক্যালসের বিরুদ্ধে লড়তে সাহায্য় করে।

আরও পড়ুন: পর্নে মানা, অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্কেও! স্বামীকে 'বেঁধে' রাখতে আজব নিয়ম স্ত্রীর

গাজরে মূলত দুই রকমের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। একটি হল ক্যারোটিনয়েড এবং অন্যটি অ্যান্থোসায়ানিন। ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়ার জন্য এই দু'টি খুবই কাজের।

হার্টের জন্য খুবই ভাল
গাজর (Carrot) হার্টের জন্য খুব উপকারী বলে ধরা হয়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হার্টের পক্ষে লাভজনক। এর পাশাপাশি গাজরে থাকা পটাশিয়াম ব্লাডসুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য় করে।

আরও পড়ুন: কিডনি স্টোনের আশঙ্কা কমায়-ইমিউনিটি বাড়ায় কমলালেবু, রয়েছে আরও অনেক গুণ

এতে থাকা ফাইবার ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য় করে। হার্টের রোগ থেকে দূরে রাখে। লাল গাজরে থাকে লইকোপিন। এটিও হার্টকে ভাল রাখে।

ইমিউনিটি বাড়াতে কার্যকরী
ইমিউনিটি সিস্টেম শক্তিশালী করে তুলতে এটি অত্যন্ত কাজের। গাজর (Carrot)-এ থাকে ভিটামিন সি। যা অ্যান্টিবডি তৈরিতে কাজে লাগে। সেই অ্যান্টিবডি ইমিউনিটি সিস্টেমকে পোক্ত করে তোলে।

কোষ্ঠের সমস্যা মেটায়
গাজরের আরও একটি গুণ হল সেটি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্য়া দূর করতে কাজে লাগে। আপনার পেট সাফ না হলে কাঁচা গাজর খাওয়া উচিত। এর মধ্যে থাকা ক্যালশিয়াম আর ভিটামিন কে দাঁত এবং হাড় মজবুত করে।

ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণেও সমান ভাবে কাজ করে
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, গাজর ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণে অত্যন্ত কার্যকর। তাই ডায়াবিটিস রোগীদের গাজর খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। গাজরে থাকা ফাইবার ব্লাড সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। 

এর পাশাপাশি এতে থাকা ভিটামিন এ এবং বিটা-ক্যারেটিন ডায়াবিটিস হওয়ার সম্ভাবনাও অনেকটা কমিয়ে দেয়। তাই এত গুণে ঠাসা গাজর খাওয়া অত্যন্ত দরকারি। একটা সবজি অনেক সমস্যা থেকে দূরে রাখতে পারে।