scorecardresearch
 

Liquor Price Drop in Bengal : মদের পুরনো স্টক নিয়ে বেজায় সমস্যায় বারমালিকেরা, বরফ-জলে কাজ হবে না!

Liquor Price Drop in Bengal: মদের দাম কমায় দোকানি, সুরাসরিকদের সুবিধা হয়েছে। তবে বারমালিকদের কাছে পুরনো দামের মদ রয়েছে গিয়েছে। বলছে সংগঠন।

মদের দাম কমে যাওয়ায় সমস্যা তৈরি হয়েছে বারমালিকদের। দাবি করেছে সংগঠন (প্রতীকী ছবি) মদের দাম কমে যাওয়ায় সমস্যা তৈরি হয়েছে বারমালিকদের। দাবি করেছে সংগঠন (প্রতীকী ছবি)
হাইলাইটস
  • রাজ্যে দিন কয়েক আগে কমেছে মদের দাম
  • তা যেমন স্বস্তি দিয়েছে সুরাপ্রেমীদের, তেমনই স্বস্তি দিয়েছে মদ বিক্রেতা, বারমালিকদেরও
  • তবে অন্য সমস্যা তৈরি হয়েছে

Liquor Price Drop in Bengal: রাজ্যে দিন কয়েক আগে কমেছে মদের দাম। তা যেমন স্বস্তি দিয়েছে সুরাপ্রেমীদের, তেমনই স্বস্তি দিয়েছে মদ বিক্রেতা, বারমালিকদেরও। কারণ দাম কমলে মনে করা হয় বিক্রিবাটা বাড়ে। আর তা হয়েছে। রাজ্য সরকারেরও আয় বাড়তে পারে বে অনুমান করা হচ্ছে। তবে অন্য সমস্যা তৈরি হয়েছে।

পুরনো স্টকে সমস্যা
সেটি হল স্টক থেকে যাওয়া। মানে মদের পুরনো স্টক থেকে যাওয়া। দাম যেহেতু কমেছে তাই তা বারমালিকদের জন্য সমস্যা তৈরি করেছে। এমনই দাবি করেছেন তাঁরা। পুজোর সময় থেকেই চাউর হয়েছিল দাম কমবে মদের। শেষ পর্যন্ত তা হয়েছে চলতি মাসে।

আরও পড়ুন: গোলাপী বিকিনিতে সি বিচে উষ্ণতা ছড়ালেন TV অভিনেত্রী

সুরারিসকদের সওয়াল
সুরারসিকদের একাংশের অভিযোগ, এই জন্যই নিজেদের প্রিয় ব্র্য়ান্ড পাচ্ছিলেন না তাঁরা। কারণ তাঁরা মানে মদের দোকানিরা বুঝতে পেরেছিলেন বা জানতেন যে মদের দাম কমবে। বা কোনও পরিবর্তন হবে। তাই তারা সব স্টক ছেড়ে দিচ্ছিলেন, খালি করছিলেন। নতুন কোনও মদ তুলছিলেন না।

আরও পড়ুন: দু'হাতে কোনও ক্রমে ঢাকার চেষ্টা! পুনমের বোল্ড TOPLESS ছবি ভাইরাল

বিপাকে বারমালিকেরা
কিন্তু বারমালিকদের তা করার বিশেষ উপায় নেই। তাদের তো বিভিন্ন রকমের মদ দিতেই হবে। কারণ কোন গ্রাহক কী পছন্দ করেন, তার কোন ঠিক নেই। এবার বারে এসে তা না পাওয়া গেলে ভাবমূর্তি ধাক্কা খাবে। ফলে তারা স্টক করে রেখেছিলেন। বা বলা যায় রাখতেই হয়েছিল। তার দাম কমে যাওয়ায় এখন সমস্যায় পড়েছেন। 

আরও পড়ুন: নবদ্বীপের চরকি, সবংয়ের গাছবোমা-জলবোমা, কোন এলাকায় কোন বাজি বিখ্য়াত? 

চলতে হবে এভাবেই
এই ব্যবসার সঙ্গে যুক্তরা জানাচ্ছেন, এখন তো আগের বেশি দামে কেনা জিনিস সেই অর্থে কম দামে বিক্রি করতে হবে। কারণ দাম বাড়ালে গ্রাহকদের কাছ থেকে প্রশ্ন আসবে, দাম কমেছে আর আপনারা বাড়াচ্ছেন কী করে? 
সমস্যাটা মেনে নিয়েছেন বারমালিকদের সংগঠন। 

সোমবার ওয়েস্ট বেঙ্গল ফরেন লিকার সি এস অফ অ্যান্ড অন শপ অ্যান্ড হোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন (West Bengal Foreign Liquor C S Off and on Shop and Hotel Owners Association)-এর সহকারি সাধারণ সম্পাদক সুস্মিতা মুখোপাধ্যায় দাবি করেন, মদের দাম কমায় দোকানি, সুরাসরিকদের সুবিধা হয়েছে। তবে বারমালিকদের কাছে পুরনো দামের মদ রয়েছে গিয়েছে। ফলে তাঁরা অসুবিধায় পড়েছেন। পুরনো স্টক রয়েছে। তাঁদের মাথায় হাত পড়েছে।

 

 
; ; ;