scorecardresearch
 

Rabindranath Tagore: ঠাকুরবাড়ির রান্না! বাড়িতেই তৈরি করুন গুরুদেবের পছন্দের 'কবি সম্বর্ধনা মিষ্টি'

প্রতি বছর ২৫ শে বৈশাখে নাচে-গানে-কবিতায় নিজেদের মতো করে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে (Rabindranath Tagore) স্মরণ করেন সকলে। তবে অনেকেরই অজানা রবি ঠাকুরের পছন্দের মিষ্টি ছিল 'কবি সম্বর্ধনা' (Kabi Sambardhana)। চলুন এই বিশেষ দিনে শিখে নেওয়া যাক গুরুদেবের প্রিয় মিষ্টি তৈরির রেসিপি।

গুরুদেবের পছন্দের কবি 'সম্বর্ধনা মিষ্টি'র সহজ রেসিপি গুরুদেবের পছন্দের কবি 'সম্বর্ধনা মিষ্টি'র সহজ রেসিপি
হাইলাইটস
  • আজ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬০তম জন্মদিন।
  • অনেকেরই অজানা রবি ঠাকুরের পছন্দের মিষ্টি ছিল 'কবি সম্বর্ধনা'।
  • নামটা একটা অন্য রকম এবং কম জানা হলেও এই মিষ্টি তৈরি করা কিন্তু একদম সহজ।

আজ  ২৫ শে বৈশাখ। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের (Rabindranath Tagore) ১৬০তম জন্মদিন। প্রতি বছর এই বিশেষ দিনে  নাচে-গানে-কবিতায় নিজেদের মতো করে তাঁকে স্মরণ করেন সকলে। তবে অনেকেরই অজানা রবি ঠাকুরের পছন্দের মিষ্টি ছিল 'কবি সম্বর্ধনা' (Kabi Sambardhana)। গুরুদেবের পঞ্চাশতম জন্মদিনে এই বিশেষ ধরনের সুস্বাদু মিষ্টি তৈরি করে তাঁকে খাইয়েছিলেন, তাঁর ভাইঝি প্রজ্ঞাসুন্দরী দেবী। তিনি নিজেও স্বীকার করেছিলেন, ফুলকপি এবং ক্ষীরের মিশেলে এই মিষ্টি স্বাদের কথা।

নামটা একটা অন্য রকম এবং কম জানা হলেও এই মিষ্টি তৈরি করা কিন্তু একদম সহজ। আজ বিশেষ দিনে গানের সঙ্গে স্বাদেও স্মরণ করুন গুরুদেবকে। এক নজরে দেখে নিনকবি সম্বর্ধনা মিষ্টির রেসিপি (Recipe)।  

উপকরণ 

*  ফুলকপি- ৩ টে ছোট মাপের

* চিনি - 

* দুধ - ১/৪ কাপ 

* খোয়া ক্ষীর- ১/২ কাপ

* জাফরান- একদম সামান্য

* ঘি - ১ টেবিল চামচ

* চিনি - স্বাদ অনুসারে 

* নুন - স্বাদ অনুসারে 

* কাজু বাদাম, আমন্ড ও পেস্তা - সামান্য 

Kabi Sambardhana Sweet

প্রণালী

* প্রথমে ডাঁটি বাদ দিয়ে শুধুমাত্র ফুল কেটে নিন।

* এরপর জলে সামান্য নুন দিয়ে ৫-৭ মিনিট ফুলকপিটা সেদ্ধ করে নিন।

* সেদ্ধ হয়ে গেলে জলটা ভাল করে ছেঁকে নিন।

* এবার মিক্সার গ্রাইন্ডারে সেদ্ধ করা ফুলকপিটা সামান্য গ্রাইন্ড করুন।

* দুধে এক চিমটি জাফরান ভিজিয়ে রাখুন।

* গ্যাসে কড়াইতে ঘি গরম করে তাতে গ্রেট করা ফুলকপি দিয়ে ৩-৪ মিনিট হালকা আঁচে ভাজুন।

আরও পড়ুন:   "যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে...তবে নাকি একলা চলতে হয়!" রবীন্দ্রনাথ প্রসঙ্গে নচিকেতা 

* এক চিমটি নুন ও জাফরান ভেজানো দুধ যোগ করুন।

* এবার  হালকা আঁচে ৫ মিনিট রান্না করার পর গ্রেট করা খোয়া ক্ষীর যোগ করুন।

* মনে রাখবেন অনবরত নাড়তে হবে, যাতে কড়াইয়ের নীচ থেকে পোড়া না লাগে। 

* স্বাদ অনুযায়ী চিনি যোগ করে ভালো করে মেশান।  

*  ঘন হওয়া অবধি হালকা আঁচে নাড়তে থাকুন।

* এবার পরিমাণ মতো আমন্ড-পেস্তা-কাজু কুঁচি যোগ করুন।

* খানিক ক্ষণ নেড়েচেড়ে আঁচ বন্ধ করুন। 

*এবার সম্পূর্ণ তৈরি কবিগুরুর প্রিয় 'কবি সম্বর্ধনা মিষ্টি'। 

Kabi Sambardhana Sweet

* এই মিষ্টি যেমন বাড়িতে অতিথি এলে খাওয়াতে পারেন, সেরকমই কারও বাড়িতে গেলেও নিয়ে যেতে পারেন‌।

* এতে যেমন বাজারজাত মিষ্টির চেয়ে ক্ষতি কম হবে, তেমনই আপনার হাতে বানানো সুস্বাদু মিষ্টি খেয়ে সকলেই খুশি হবে। আর সেই সঙ্গে রয়েছে গুরুদেবের ঐতিহ্যের সেই ছোঁয়া। 

আরও পড়ুন:  কঠিন সময়ে রবি ঠাকুরের এই গানগুলি শুনলে সাহস পাবেন!