scorecardresearch
 

Shani Dhaiya: শনির ঢাইয়া শুরু হচ্ছে, এই ২ রাশি জাতকরা থাকুন ভীষণ সাবধান

বর্তমানে শনি মকর রাশিতে গমন করছে। এই সময়ে মিথুন ও তুলা রাশির জন্য শনি ঢাইয়া চলছে। ২৯ এপ্রিল থেকে, শনি কুম্ভ রাশিতে পরিক্রমণ শুরু করবে। মিথুন ও তুলা রাশির জাতক জাতিকারা এই রাশিতে শনি গমন শুরু হলেই শনি ঢাইয়া থেকে মুক্তি পাবেন। অন্যদিকে কর্কট ও বৃশ্চিক রাশির জাতকরা এর কবলে পড়বেন। শনি ধাইয়ার সময়কাল আড়াই বছর।

শনির ঢাইয়া শুরু হচ্ছে, এই ২ রাশি জাতকরা থাকুন ভীষণ সাবধান শনির ঢাইয়া শুরু হচ্ছে, এই ২ রাশি জাতকরা থাকুন ভীষণ সাবধান

Shani Dhaiya: শনির নাম শুনলেই মানুষের মনে একটা ভয় কাজ করে। বেশিরভাগ মানুষ বিশ্বাস করেন যে শনি (Shani Dev) শুধুমাত্র খারাপ ফল দেয়। কিন্তু জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী এমনটা বলা মোটেও ঠিক নয়। কারণ শনি কর্মের দাতা। জাতকদের কর্ম অনুসারে ফল দেয়। অর্থাৎ ভালো কাজের ভালো ফল আর খারাপ কাজের খারাপ ফল। যার কুণ্ডলীতে শনি শক্তিশালী অবস্থানে থাকে তারা জীবনের সমস্ত সুখ পান। এই ধরনের ব্যক্তি কর্মজীবনে খুব দ্রুত এগিয়ে যান। সেই সঙ্গে কার রাশিতে শনি দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। এই ধরনের লোকদের জীবনে অনেক অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়। জেনে নিন কোন রাশির জাতক জাতিকাদের এ বছর শনি ঢাইয়া (Shani Dhaiya) থাকবে।

বর্তমানে শনি মকর রাশিতে গমন করছে। এই সময়ে মিথুন ও তুলা রাশির জন্য শনি ঢাইয়া চলছে। ২৯ এপ্রিল থেকে, শনি কুম্ভ রাশিতে পরিক্রমণ শুরু করবে। মিথুন ও তুলা রাশির জাতক জাতিকারা এই রাশিতে শনি গমন শুরু হলেই শনি ঢাইয়া থেকে মুক্তি পাবেন। অন্যদিকে কর্কট ও বৃশ্চিক রাশির জাতকরা এর কবলে পড়বেন। শনি ধাইয়ার সময়কাল আড়াই বছর। শনি সাড়ে সাতির (Shani Sade Sati) মতো শনি ঢাইয়ার সময়ও বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন।

 

কাদের শুরু হচ্ছে ঢাইয়া

২৯ এপ্রিল থেকে কর্কট ও বৃশ্চিক রাশির জাতক জাতিকারা যেখানে শনি গ্রহের প্রভাব পড়বে, সেখানে মীন রাশির জাতক জাতিকারা শনি সাড়ে সাতির কবলে থাকবে। তবে এই সময়ে ধনু রাশির জাতকরা সাড়ে ৭ বছর পর শনির মহাদশা থেকে মুক্তি পাবেন। অতএব, ধনু রাশির জাতকদের জন্য এই ট্রানজিট খুব বিশেষ হতে চলেছে। ২০২২ সালে মীন রাশি ছাড়াও, মকর এবং কুম্ভ রাশির জাতকদেরও শনির সাড়ে সাতি চলবে। যার শেষ পর্ব শুরু হবে মকর রাশির জাতকদের উপর এবং দ্বিতীয় পর্ব শুরু হবে কুম্ভ রাশির জাতক জাতিকাদের উপর।

 

সাড়ে সাতি আর ঢাইয়া কী

শনির সাড়ে সাতির তিনটি পর্যায় রয়েছে, যার প্রতিটি পর্বের সময়কাল আড়াই বছর। ব্যক্তিকে প্রথম পর্যায়ে মানসিক ও আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। দ্বিতীয় দফায় মানসিক, আর্থিকের সঙ্গে শারীরিক দুর্ভোগও পোহাতে হয়। তৃতীয় দফায় ভোগান্তি কিছুটা কমতে থাকে। এই পর্বে শনিদেব ব্যক্তিকে তার ভুল সংশোধন করে সঠিক পথে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখান। সাড়ে সাতি শেষ হওয়ার সময় কিছু লাভ হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে।

 

 
; ; ;