scorecardresearch
 

Know Your Job And Business According To Zodiac :জন্ম তারিখ দেখে জেনে নিন কোন চাকরি বা ব্যবসা আপনার জন্য শুভ

চাকরি করবেন না ব্যবসা? কোন ব্যবসা বা কিসের চাকরি আপনার জন্য রাখা, অথচ আপনি অন্য চাকরি করে সময় নষ্ট করছেন। আপনার জন্ম তারিখই বলে দেবে, কোন চাকরি কিংবা কী ব্যবসা করবেন? আপনি কী জানেন? না হলে দেরি হওয়ার আগে দ্রুত জেনে নিন...

জন্ম তারিখ বলে দেবে, চাকরি না ব্যবসা কোনটা আপনাকে সাফল্য দেবে? জন্ম তারিখ বলে দেবে, চাকরি না ব্যবসা কোনটা আপনাকে সাফল্য দেবে?
হাইলাইটস
  • কী চাকরি কিংবা কোন ব্যবসা করবেন?
  • আপনার জন্ম তারিখই বলে দেবে কাহিনী
  • জেনে নিন, কোন তারিখে জন্মে কী কাজ করবেন

জন্মতারিখ থেকে মানুষের ব্যক্তিত্ব শুধু নয় বরং তার কেরিয়ার, রোজগার বিষয়ে জানা যায়। আসুন আমরা জেনে নিই যে কোন তারিখে জন্ম হলে কোন লোকেদের কি ধরণের ব্যবসা করা উচিত হবে এবং তারা রোজগারের কি সমস্যা আসতে পারে এবং এটা কীভাবে দূর করা সম্ভব এটা জানা জরুরি।

০১, ১০, ১৯, ২৮

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০১, ১০, ১৯, ২৮ হয়, আপনার সম্পর্ক সূর্য এবং মঙ্গল এর সঙ্গে। আপনার জন্য প্রশাসন, চিকিৎসা এবং টেকনিকাল কোনও কাজ অত্যন্ত ভাল হবে। ব্যবসা করলে এ ধরনের চিকিৎসা, টেকনিক্যাল বিষয় এর ব্যবসা করতে পারেন। চাকরি করলে এই বিষয়গুলির মধ্যে কোনও একটি বেছে নিয়ে পেশাদার কোর্স ট্রেনিং আপনি করতে পারেন এবং ওষুধের ব্যবসা আপনার জন্য খুব ভালো হবে। যদি রোজগারের সমস্যা হয় তাহলে তামা ধারণ করুন। রোজ সকালে সূর্য কে জল অর্পণ করুন।

০২, ১১, ২০, ২৯

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০২, ১১, ২০, ২৯ হয়, আপনার সম্বন্ধ চাঁদ এবং শুক্র-এর সঙ্গে রয়েছে। শিল্পকলা, অভিনয়, সঙ্গীত, সৌন্দর্য এবং জলের ক্ষেত্র আপনার জন্য অত্যন্ত ভালো। হাসপাতাল, রেস্তোরাঁ এবং সৌন্দর্য প্রসাধনী সম্পর্কিত ব্যবসা আপনি করতে পারেন। চাকরি করলেও সাহিত্য-সংস্কৃতি একাডেমি বা কোনও কসমেটিক্স প্রোডাক্ট এর কোম্পানি, কোনও হেলথকেয়ার সেক্টরে চাকরির জন্য প্রস্তুতি নিতে পারেন। আপনার জন্য অতি উত্তম হবে। যদি রোজগারের সমস্যা এসে থাকে তাহলে রূপো ধারণ করুন। শিবের উপাসনা শুরু করে দিন।

০৩, ১২, ২১, ৩০

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০৩, ১২, ২১ অথবা ৩০ হয়, আপনার সম্পর্ক বুধ এবং বৃহস্পতির সঙ্গে রয়েছে। আপনার জন্য শিক্ষা, কনসালটেন্সি, ওকালতি এবং বৌদ্ধিক ক্ষেত্রে চাকরি অথবা ব্যবসা অতি উত্তম। আপনি স্টেশনারি, শিক্ষা বা ধর্ম কার্য সম্পর্কিত কোনও বিষয়ে ব্যবসা করতে পারেন। যদি রোজগার সমস্যা হয়, তাহলে সোনা ধারণ করুন। সঙ্গে বিষ্ণুর সহস্রনাম পাঠ করতে হবে।

০৪, ১৩, ২২ বা ৩১

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০৪, ১৩, ২২ বা ৩১ হয়, আপনার সম্পর্ক রাহু এবং চন্দ্রের সঙ্গে। আপনার জন্য প্রযুক্তিগত, ঔষধি, জ্যোতিষ, তন্ত্রমন্ত্র ক্ষেত্র, চাকরি অথবা ব্যবসা অতি উত্তম। আপনি ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স কিংবা পরামর্শ সম্পর্কিত ব্যবসা কনসালটেন্সি ব্যবসা করতে পারেন। যদি সমস্যা থাকে, তাহলে কোনও জিনিস শরীরে ধারণ করুন। শিবের উপাসনা করতে থাকুন।

০৫, ১৪, ২৩

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০৫, ১৪, অথবা ২৩ হয়, আপনার সম্পর্কে বুধ এবং সূর্যের সঙ্গে রয়েছে। আপনার জন্য কারেন্সি, প্রশাসন অথবা কর্পোরেট ক্ষেত্রে অত্যন্ত ভালো। আপনার লেখালেখি, সঙ্গীতের ক্ষেত্রে চাকরি অথবা ব্যবসা দুটোই ভাল হবে। যদি রোজগারের সমস্যা এসে থাকে তাহলে ব্রোঞ্জ ধারণ করুন। শ্রীকৃষ্ণের উপাসনা আপনার ক্যারিয়ারের উন্নতি সহায়ক হবে।

০৬, ১৫, ২৪

০৬, ১৫ এবং ২৪ যদি আপনার জন্ম তারিখ হয়। আপনার সম্পর্ক শুক্র এবং বুধের সঙ্গে রয়েছে। আপনার জন্য অভিনয়, ফিল্ম, মিডিয়া এবং চিকিৎসা ক্ষেত্রে খুব ভালো হবে। আপনার শিক্ষাক্ষেত্রেতেও ভালো ফল পাবেন। যদি রোজগারের সমস্যা এসে থাকে তাহলে আপনি রুপোর কিছু ধারণ করুন। শিব-পার্বতীকে আপনার উপাস্য করে নিন।

০৭, ১৬, ২৫

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০৭, ১৬, ২৫ হয়। আপনার সম্বন্ধ কেতু এবং শুক্রের সঙ্গে। আপনার জন্য ধর্ম, শিক্ষা, শিল্পকলা, ইনভেস্টিগেশন, টেকনিক্যাল কোনও কাজ ভালো হবে। আপনি বিশেষ ঔষধ এবং জরিবুটি অথবা আয়ুর্বেদের ব্যবসা করতে পারেন। যদি রোজগারের সমস্যা এসে থাকে তাহলে সোনা ধারণ করুন। গণেশের পুজো করুন।

০৮, ১৭, ২৬

যদি আপনার জন্ম তারিখ ০৮, ১৭, অথবা ২৬ হয়, আপনার সম্বন্ধে শনি এবং মঙ্গলের সঙ্গে রয়েছে। আপনার জন্য প্রশাসন, রাজনীতি, আইন-কানুন এবং ইঞ্জিনিয়ারিং এর ক্ষেত্রে অত্যন্ত ভালো হবে। আপনি আধ্যাত্বিক, জ্যোতিষ এবং তন্ত্র-মন্ত্রের ক্ষেত্রে সফলতা পাবেন। যদি রোজগারে কোনও সমস্যা থাকে, তাহলে লোহা ধারণ করুন। নিয়মিত রূপে শনিদেবের এবং হনুমানের উপাসনা করুন।

৯, ১৮, ২৭

যদি আপনার জন্ম তারিখ ৯, ১৮ অথবা ২৭ হয়। তাহলে আপনার মঙ্গল এবং বৃহস্পতির প্রভাব রয়েছে। আপনি সেনা, সাহস, ফ্যাক্টরি, জমি অথবা নির্মাণের ক্ষেত্রে ভালো ফল করতে পারবেন। আপনি শিক্ষা এবং লেখালেখিতে সফলতা লাভ করবেন। যদি আপনার রোজগারের সমস্যা হয়, তাহলে আপনি তামা ধারণ করুন। নিয়মিত রূপে হনুমানজির উপাসনা শুরু করুন, এগুলি আপনাকে সর্বোত্তম ফল দিতে পারে।

 

 
; ; ;