scorecardresearch
 
স্পেশাল

অযোধ্যার রাম মন্দিরে পৌঁছবে বুলেট ট্রেন, যাবেন নাকি !

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 1/7

বুলেট ট্রেনের মানচিত্রে যুক্ত চলেছে অযোধ্যা। রাম মন্দির নির্মাণ চলছে জোরকদমে। তার সঙ্গে দিল্লি থেকে বুলেট ট্রেন চালিয়ে দিলে পর্যটক আকর্ষণের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠবে এই শহর। মূলত সে দিকে লক্ষ্য রেখেই দিল্লি থেকে অযোধ্যা বুলেট ট্রেন চালাতে মনস্থ করেছে ভারত সরকার।

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 2/7

রেল মন্ত্রকের তরফ এমনই পরিকল্পনার কথা জানানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক পর্যটন মানচিত্রে সামনের সারিতে অযোধ্যাকে নিয়ে আসতেই কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্ত। অযোধ্যাতে মর্যাদা পুরুষোত্তম রাম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিকল্পনা নেওয়ার পর এখন বুলেট ট্রেন অযোধ্যা পর্যন্ত ছুটিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 3/7

রাষ্ট্রীয় high-speed রেল কর্পোরেশন লিমিটেড কাছ থেকে পাওয়া সূত্রের খবর অনুযায়ী দিল্লি থেকে অযোধ্যা পর্যন্ত ৬৭০ কিলোমিটার দূরত্ব মাত্র ২ ঘন্টায় পৌঁছে যাবে। ফলে সময় হলে প্রচুর মানুষ এবং পর্যটক দিল্লি থেকে সারা দিনের ট্যুরে অযোধ্যা ঘুরে আসতে পারবেন। পাশাপাশি অযোধ্যার সঙ্গে দেশের অন্যান্য বিমানবন্দরগুলি থেকেও সরাসরি উড়ান চালানোর একটা পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 4/7

কর্পোরেশনের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, শুক্রবার আধিকারিকরা অযোধ্যার পরিদর্শন করেন। সেখানে কোথায় বুলেট ট্রেনের স্টেশন, আবাসন সহ অন্যান্য সুবিধা চালু করা যাবে সে বিষয়ে তারা একটা প্রাথমিক পরিকল্পনা তৈরি করে রিপোর্ট জমা দেবেন রেল মন্ত্রকের কাছে।

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 5/7

সূত্রের খবর অনুযায়ী পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, বুলেট ট্রেনের স্টেশন প্রস্তাবিত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছেই হবে। পাশাপাশি লখনউ, গোরখপুর বাইপাস রোড লাগোয়া এলাকাতেই যাতে এটি রাখা যায় সে বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। কর্পোরেশন, এয়ারপোর্ট অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে বিষয়ে পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছে এবং নো অবজেকশন সার্টিফিকেট এর জন্য আবেদন জানিয়েছে।

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 6/7

অনাপত্তি প্রমাণপত্র পেলেই পরিকল্পনার কাজ শুরু করে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। বুলেট ট্রেনের ট্র্যাক অবশ্য সাধারণ ট্রেন লাইনের চেয়ে আলাদা হবে বলে জানানো হয়েছে। দিল্লি-বারাণসী বুলেট ট্রেনের যে ট্র্যাক তার চাইতেও এর ধরণ হবে আলাদা। দিল্লি বারাণসী পর্যন্ত ৯৪১ কিলোমিটার একটি ট্র্যাকে বারাণসী পর্যন্ত যাবে। কিন্তু লখনউ থেকে অযোধ্যা পর্যন্ত আলাদা ট্র্যাক হবে ১৩০ কিলোমিটার।

 

ছুটবে বুলেট ট্রেন
  • 7/7

এর প্রত্যেকটি ট্রেনই অত্যাধুনিক সুবিধা যুক্ত হবে। পর্যটক আকর্ষণের কেন্দ্র হিসেবে একে অগ্রাধিকারভিত্তিক ট্রেন হিসেবে তুলে ধরতে উদ্যোগী কেন্দ্র। এর মধ্যে ২০০ লক্ষ কোটি টাকা খরচ হবে বলে ধরা হচ্ছে। তাহলে রামমন্দির নির্মাণের পক্ষে কিংবা বিপক্ষে যেদিকেই থাকুন না কেন, স্থাপত্য হিসেবে এর সৌন্দর্য উপভোগ করতে হলে এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতেই পারেন। 

 

 

ছবি- পিটিআই

 
; ; ;