scorecardresearch
 
 

'ছেলে বলেছিল একদিন চমকে দেবে', গর্বের উচ্ছ্বাস ঈশানের বাবার গলায়

দিন্দা, সামির পর এবার বাংলার ঈশান পোড়েল। ভারতীয় দলের স্কোয়াড বোলার হিসাবে সুযোগ পেলেন ঈশান। ঈশানকে বাহবা দিলেন বাংলার কোচ ও প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার অরুণ লাল। ঈশানের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত মা-বাবা। আজতক বাংলায় খোলামেলা অরুণ লাল। সঙ্গে ঈশানের মা-বাবা। কোহলিদের ড্রেসিং রুম শেয়ার করবেন পোড়েল।

মরুদেশে কিংস ইলেভেনের অনুশীলনে ঈশান পোড়েল। মরুদেশে কিংস ইলেভেনের অনুশীলনে ঈশান পোড়েল।
হাইলাইটস
  • দিন্দা, সামির পর এবার বাংলার ঈশান
  • ভারতীয় দলের স্কোয়াড বোলার ঈশান
  • ঈশানকে বাহবা অরুণ লালের, উচ্ছ্বসিত মা-বাবা
  • কোহলিদের ড্রেসিং রুম শেয়ার করবেন পোড়েল

একে করোনা আবহ। দুই, মরুদেশের আইপিএলে কিংসদের একাদশে সুযোগ হচ্ছে না বাংলার পেসার ঈশান পোড়েলের। ফলে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গা পুজো বড়ই কঠিন অবস্থায় কাটিয়েছে বাংলার ঈশান ও তাঁর বাবা-মা। চন্দননগরের বাড়িতে হতাশা গ্রাস করেছিল তাঁদের। একই সঙ্গে মরুদেশে কিছুটা ভেঙে পড়েছিলেন ঈশানও। তবে দেবী দুর্গা যে তাঁদের দিকে ফিরে তাঁকাবেন কোথাও একটা বিশ্বাস ছিল ঈশানের মা-বাবার মনে। ঘটলোও এমনটাই। বিজয়াদশমীতে ঈশানের পরিবার পেল খুশির খবর। কোটিপতি লিগে এখনও একটি ম্যাচে সুযোগ না পেলেও, এবার ভারতীয় দলের ড্রেসিং রুমে বিরাটদের সঙ্গে জায়গা হয়ে গেল ঈশানের।

বাবা, মা পরিবারের সঙ্গে ঈশান পোড়েল। ছবি- ফেসবুক।
বাবা, মা পরিবারের সঙ্গে ঈশান পোড়েল। ছবি- ফেসবুক।

সরাসরি ভারতীয় দলের তালিকায় না হলেও, স্কোয়াড বোলার হিসাবে ভারতীয় দলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবেন ঈশান। এবার অশোক দিন্দা, মহম্মদ সামির পর বাংলার পেস ব্যাটারি থেকে ভারতীয় দলের স্কোয়াডে বোলার হিসাবে যোগ দিতে চলেছেন চন্দননগরের ছেলে। খুশির আমেজ ঈশানের পরিবার সহ লোকালয়ে। ঈশানের বাবা চন্দ্রনাথ পোড়েল আজতক বাংলাকে একান্ত সাক্ষাৎকারে বলছিলেন, 'এবছরের পুজোর সেরা গিফট আমাদের জন্য। ছেলে এত বড় একটা সারপ্রাইজ দেবে এটা ভাবিনি। বিজয়াদশমীতে সুখবরটা এলো। ভারতীয় ড্রেসিং রুমে থাকবে ছেলে, এটা ভেবে বাবা হিসাবে গর্বিত। নিজেকে প্রমাণ করার আবার একটা বড় সুযোগ।'

অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ থেকেই ঈশানের পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া। ২০১৮ সালে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জয় করেছিল ঈশানরা। মাঝে কেটে গিয়েছে দুটো বছর। তবে এই দুবছরে ঈশানের যাত্রাটা ছিল আরও সফল। গত মরশুমে বিসিসিআই-র ঘরোয়া ক্রিকেটে অন্যতম সেরা পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন ঈশান। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ভারতীয় 'এ' দলের হয়েও একটি ইনিংসে ৩টি উইকেট পেতে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। বাংলাকে রঞ্জি ফাইনালে তোলার পিছনেও ঈশানের অবদান অনেকটাই। প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে ঈশানের ঝুলিতে মাত্র ২২ ম্যাচ খেলে রয়েছে ৬১টি উইকেট। অন্যদিকে, লিস্ট 'এ' কেরিয়ারে ঈশান পেয়েছেন ৪১টি উইকেট। সেই জেরে আইপিএলের নিলামে পোড়েল সুযোগও পেয়ে গিয়েছিলেন কিংস ইলেভেন পঞ্জাব দলে।

করোনা আবহ কাটতেই কঠিন অনুশীলনে ঈশান। ফাইল ছবি। সৌজন্য- ঈশান পোড়েলের ইনস্টাগ্রাম।
করোনা আবহ কাটতেই কঠিন অনুশীলনে ঈশান। ফাইল ছবি। সৌজন্য- ঈশান পোড়েলের ইনস্টাগ্রাম।

তবে, এবছর পঞ্জাব আইপিএলে ১২টা ম্যাচ খেলে ফেললেও সুযোগ আসেনি ঈশানের। সেই নিয়ে বড়ই হতাশ ছিলেন বাংলার এই পেস বোলারের বাবা-মা। পুজোতে সেই কারণে কোনও আনন্দই করেননি ঈশানের পরিবারের সদস্যরা। বাবা বলেছিলনে, 'এটা অনেক বড় একটা হতাশার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। পুজোতে আমরা একটুও আনন্দ করতে পারিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো বোলিং, ভারতীয় 'এ' দলে ভালো খেললো, তারপরও একটা ম্যাচেও সুযোগ হলো না আইপিএলে। এটা খুব হতাশাজনক। ভেঙে পড়েছিলাম আমরা কিন্তু ছেলেকে বুঝিয়েছি আরও ধৈর্য্য ধরতে। ও আমাদের সান্ত্বনা দিচ্ছিল। অবশেষে একটা সারপ্রাইজ দিলো। আসল জায়গায় সুযোগ এসেছে। সিলেক্টররা ওর কথা মনে রেখেছেন। এটাই অনেক বড় পাওনা।'

আইপিএলে শুধুই কী ব্রাত্য ঈশান? তাঁর বাবার আবার মনে হচ্ছে কিছুটা জল্পনা রয়েছে এরই মধ্যে। আইপিএলে শুধু সুযোগ হচ্ছে না ঈশানের এমনটা নয়। বাংলার ক্রিকেটারদের মধ্যে এবছরের আইপিএলে শুধু দেখা গিয়েছে ঋদ্ধিমান সাহাকে। অন্যদিকে, মাত্র একটি ম্যাচে সুযোগ পেয়েছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের শাহবাজ আহমেদ। এই বিষয় নিয়ে ঈশানের বাবা চন্দ্রনাথ বাবু বলছিলেন, 'কোথাও  বাংলা  ব্রাত্য থাকছে, এমনটা ইঙ্গিত পাচ্ছি। তবে ঈশান বাংলার ছেলে। আর বাংলা থেকে ও ভারতীয় দলে সুযোগ পেলে আগামী দিনে বাংলার মুখ উজ্জ্বল হবে। আমরা আরও বেশি গর্বিত হবো। আমি বাংলাতেই জোরটা দিচ্ছি।'

শেষ দুবছরে বাংলার হয়ে ভালো পারফর্ম করেছেন ঈশান। নিজেকে মেলে ধরেছেন আন্তর্জাতিক স্তরেও। সবটাই কাছ থেকে দেখেছেন বাংলার কোচ অরুণ লাল। ঈশানের এই সুযোগটা আগেই পাওয়া উচিত ছিল বললেন বঙ্গ কোচ ও প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার অরুণ লাল। লালজি আজতক বাংলাকে বলেন, 'এই সুযোগটা আরও আগেই পাওয়া উচিত ছিল ওর। দারুণ বোলিং করছে ঈশান। ওকে নিতে দেরি করে ফললো। ভারতীয় দলে ওর জায়গা অনেক লম্বা সময়ের জন্য। আমি কাছের থেকে দেখেছি ওকে।'

পাশাপাশি আইপিএলে এখনও পর্যন্ত ঈশানের একটি ম্যাচ না পাওয়া নিয়ে লালজি বলছিলেন, 'ও যেদিন সুযোগ পাবে সেদিনই প্রমাণ করে দেখাবে নিজেকে। ধৈর্য্য ধরে রাখতে হবে। তবে জানিনা কেন ওকে খেলানো হচ্ছে না। টিম ম্যানেজমেন্ট কী ভাবছে সেটা বলা মুশকিল। তবে আমাদের বাংলার ছেলেরা সবাই খুব ট্যালেন্টেড। সুযোগ পেলেই আসল জায়গায় নিজেকে প্রমাণ করতে হবে।'

 

 

দুবাই থেকে সরাসরি অস্ট্রেলিয়া উড়ে যাবেন বিরাট কোহলিরা। সেই ভারতীয় দলের সঙ্গেই সম্ভবত অজি সফরে চলে যাবেন ঈশানও। আইপিএলের পর মাঝে বাড়ি আসা হবে না। স্পেশাল দিনে ছেলেকে রান্না করে খাওয়াতে পারবেন না ঈশানের মা। ফলে একটু মনটা খারাপ। তবুও ছেলের সাফল্যে দারুণ খুশি ঈশানের মা। বিদেশ সফর থেকে ফিরে এবার ছেলে ঈশান মা-বাবাকে রান্না করে খাওয়াবেন, এমনটাই নিজের পরিবারকে জানিয়েছেন তিনি। ফলে আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সফর ঘিরে বেশ উত্তেজনায় ফুটছে ঈশান। কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের একটি ভিডিওতে ঈশান নিজে বলেছেন, এটা আমার জন্য গর্বের বিষয়। সুযোগটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করব। আরও ভালো বোলিং করতে হবে।