scorecardresearch
 

FIFA World Cup 2022: বিশ্বকাপে নামার আগে শাস্তি, ২ ম্যাচ খেলতে পারবেন না রোনাল্ডো

বিশ্বকাপে (FIFA World Cup 2022) ঘানার (Portugal vs Ghana) বিরুদ্ধে ম্যাচের নামার আগেই শাস্তির মুখে পড়তে হল পর্তুগিজ স্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে (Cristiano Ronaldo)। ইংল্যান্ডের ফুটবল ফেডারেশন থেকে জরিমানা করার পাশাপাশি দুই ম্যাচের জন্য নির্বাসিত হলেন তিনি।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো
হাইলাইটস
  • বড় শাস্তির মুখে তারকা ফুটবলার
  • ২ ম্যাচ ব্যান হল তাঁর

বিশ্বকাপে (FIFA World Cup 2022) ঘানার (Portugal vs Ghana) বিরুদ্ধে ম্যাচের নামার আগেই শাস্তির মুখে পড়তে হল পর্তুগিজ স্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে (Cristiano Ronaldo)। ইংল্যান্ডের ফুটবল ফেডারেশন থেকে জরিমানা করার পাশাপাশি দুই ম্যাচের জন্য নির্বাসিত হলেন তিনি। যদিও কিছুদিন আগেই ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের (Manchester United) সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন রোনাল্ডো।

বিশ্বকাপের সব খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

এভারটনের বিরুদ্ধে ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর রাগে এক ভক্তের মোবাইল ভেঙে দেন তিনি। এই জন্যই রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল এফএ (FA)। জরিমানা করার পাশাপাশি দুই ম্যাচ নিষিদ্ধও করা হয়েছে তাঁকে। দ্য মিররের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোনাল্ডোকে ৫০ হাজার পাউন্ড (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪৯ হাজার টাকা) জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও এফএ পরিচালিত টুর্নামেন্ট থেকে দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ। তবে বিশ্বকাপে এই নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য নয়। এই নিষেধাজ্ঞা শুধুমাত্র এফএ পরিচালিত টুর্নামেন্টের ম্যাচেই থাকবে। অর্থাৎ, ইংল্যান্ডে কোনও ক্লাবে সই করলে দুই ম্যাচ নির্বাসিত থাকতে হবে রোনাল্ডোকে।

আরও পড়ুন: আজ মাঠে রোনাল্ডোরা, CR7-এর এটাই শেষ বিশ্বকাপ?

কী ঘটেছিল?
এভারটনের বিরুদ্ধে ম্যাচ হেরে হতাশ হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরছিলেন সিআর সেভেন। ম্যাচে চোট পাওয়ায় আরও বিরক্ত হয়ে ছিলেন তিনি। টানেলে ঢোকার সময় এক ভক্ত তাঁর সঙ্গে সেলফি তুলতে চান। সেলফি তো দূরে থাক সেই ভক্তের ফোন ছুড়ে ফেলে দেন পর্তুগিজ তারকা।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের মাঠে টিম ফটো সেশনে মুখ ঢাকলেন জার্মান ফুটবলাররা, কেন?

 ক্ষমা চেয়েছিলেন রোনাল্ডো

এই ঘটনার পর ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোও অনুতপ্ত। এরপর ইনস্টাগ্রামে একটি একটি পোস্ট দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। তিনি লিখেছেন, 'আমি আমার রাগের জন্য ক্ষমা চাইতে চাই, সেই সঙ্গে আমি সেই সমর্থককে ম্যাচ দেখার জন্যও ডাকতে চাই।'     

চলতি বছরের এপ্রিলে এভারটনের বিপক্ষে ম্যাচের পর এই ঘটনা ঘটে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জনের জন্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে এই ম্যাচ জেতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কিন্তু তা হয়নি। এই ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের শোচনীয় পরাজয় হয়। সেই সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যোগ্যতা অর্জনের আশাও ক্ষীণ হয়ে যায়। 

 
; ; ;