scorecardresearch
 

East Bengal Coach: গাম্বাউকে পেছনে ফেলে ইস্টবেঙ্গলের কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে ISL চ্যাম্পিয়ন কোচ

ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) কোচ হওয়ার দৌড়ে ঢুকে পড়লেন আন্তোনিও লোপেজ হাবাস (Antonio Lopez Habas)। জোসেফ গাম্বাউকে (Joseph Gombau) সরিয়ে লাড়াইয়ে চলে এলেন দুইবারের আইএসএল (ISL) জয়ী কোচ। গামবাউকে কোচ করার ক্ষেত্রে আপত্তি তুলেছিলেন ক্লাবের কর্তারা। বার্সেলোনা (Barceloba) যুব দল, এ লিগ, অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলে কোচিংয়ের রেকর্ড থাকলেও গাম্বাউ ভারতীয় ফুটবলে (Indian Football) সেভাবে সফল নন। দুই দফায় ওড়িশা এফসির (Odisha FC) কোচ হলেও সেভাবে দাগ কাটতে পারেননি তিনি। ফুটবলারদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

পিছিয়ে পড়লেন গাম্বাউ পিছিয়ে পড়লেন গাম্বাউ
হাইলাইটস
  • এগিয়ে গেলেন হাবাস
  • দিন পনেরোর মধ্যে কোচের নাম ঘোষণা

ইস্টবেঙ্গলের (East Bengal) কোচ হওয়ার দৌড়ে ঢুকে পড়লেন আন্তোনিও লোপেজ হাবাস (Antonio Lopez Habas)। জোসেফ গাম্বাউকে (Joseph Gombau) সরিয়ে লাড়াইয়ে চলে এলেন দুইবারের আইএসএল (ISL) জয়ী কোচ। গামবাউকে কোচ করার ক্ষেত্রে আপত্তি তুলেছিলেন ক্লাবের কর্তারা। বার্সেলোনা (Barceloba) যুব দল, এ লিগ, অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলে কোচিংয়ের রেকর্ড থাকলেও গাম্বাউ ভারতীয় ফুটবলে (Indian Football) সেভাবে সফল নন। দুই দফায় ওড়িশা এফসির (Odisha FC) কোচ হলেও সেভাবে দাগ কাটতে পারেননি তিনি। ফুটবলারদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

অন্যদিকে দুইবার আইএসএল-এর ট্রফি জেতা হাবাস কলকাতায় দীর্ঘদিন কোচিং করিয়েছেন। ভারতে কাজ করা সফল কোচদের মধ্যে অন্যতম তিনি। ইস্টবেঙ্গলের কাছে প্রাধান্য পাচ্ছে বিদেশি ফুটবলার বাছাই করা। হাবাস সে ক্ষেত্রেও বেশ সফল। ভারতীয় ফুটবলে নাম করা তিরি বা রয় কৃষ্ণ তাঁর নিয়ে আসা বিদেশি। ভারতীয় ফুটবলে তাঁরা অন্যতম সফল নাম। এই তথ্য পাওয়ার পরেই গাম্বাউয়ের থেকে এগিয়ে যান হাবাস। এমনটাই সূত্রের খবর। যদিও কোচ কে হবেন তা এখনই সরকারি ভাবে জানাতে নারাজ ইমামি ইস্টবেঙ্গল। আরও দিন পনেরো পরে তাঁরা কোচের নাম জানাবেন। বাংলা বছরের প্রথম দিনে ময়দানে বার পুজো হয়। সেই সময়ই কোচের নাম জানানো হতে পারে। এমনটাই জানিয়েছেন কর্তারা। 

আরও পড়ুন: পরের মরশুমেও ইস্টবেঙ্গলেই 'ব্যর্থ' ইভান, কোচের নাম ঘোষণাও পরের মাসে

১৫ দিনেই কোচ নিয়ে সিদ্ধান্ত

ইমামি ইস্টবেঙ্গল বোর্ডের অন্যতম সদস্য দেবব্রত মুখার্জী বলেন, 'কোচ কে হবেন তা আগামী দিন পনেরোর মধ্যে জানতে পারবেন আপনারা। কিছু জটিলতা থাকে। তা কাটিয়ে উঠতে হবে। তাই কিছুটা সময় লাগবে।যে জায়গায় দলটা ছিল সেখান থেকে উন্নতি হয়েছে।

আরও পড়ুন: সেরা ফুটবলার নিতে ইস্টবেঙ্গলের বাজেট বাড়বে? মুখ খুললেন ইমামি কর্তা

গত তিন বছরের তুলনায় এই বছরেই কিছুটা ভালো ফুটবল খেলেছে ইস্টবেঙ্গল। তবুও কোচ স্টিফেনকে না রাখা নিয়ে দেবব্রত বলেন, 'গত তিন বছরের কথা যদি ধবি, এই বছরেই সবচেয়ে বেশি ম্যাচে জয় পেয়েছি আমরা। যদিও আমরা চাই, ইস্টবেঙ্গলের যে ঐতিহ্য সেই অনুযায়ী খেলতে। তাই কোচ বদলের সিদ্ধান্ত।' মূলত ভালো মানের বিদেশি নিয়োগের কথা ভাবছে ইমামি ইস্টবেঙ্গল।