scorecardresearch
 

FIFA World Cup 2022: রোনাল্ডো না ব্রুনো? গোলটা করলেন কে? এখনও জানে না FIFA-ও

FIFA World Cup 2022: ফিফা এখন এই গোলের ফুটেজ পরীক্ষা করছে। তারপরেই সিদ্ধান্ত জানান হবে। সেই জন্য, এখনও ফিফার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রথম গোল কে করেছেন তা লেখা হয়নি। 

রোনাল্ডো ও ব্রুনো ফারনান্দেজ রোনাল্ডো ও ব্রুনো ফারনান্দেজ
হাইলাইটস
  • প্রথম গোল নিয়ে বিতর্ক
  • তথ্য নেই ফিফার ওয়েবসাইটে

বিশ্বকাপে (FIFA World Cup 2022) পর পর দুই ম্যাচ জিতে শেষ ষোলতে পৌঁছে গিয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর (Cristiano Ronaldo) পর্তুগাল (Portugal)। গতকাল উরুগুয়েকে ২-০ গোলে হারায় তারা। এই ম্যাচে গোল করার খুব কাছাকাছি চলে এসেছিলেন রোনাল্ডো। প্রায় সকলেই মনে করেছিলেন গোলটা রোনাল্ডোর। তবে সিদ্ধান্ত হয়, গোলটা ব্রুনো ফার্নান্দেজের। যদিও, ফিফা এখন এই গোলের ফুটেজ পরীক্ষা করছে। তারপরেই সিদ্ধান্ত জানান হবে। সেই জন্য, এখনও ফিফার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রথম গোল কে করেছেন তা লেখা হয়নি। 

বিশ্বকাপের সব খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন 

কী ঘটেছিল?
ম্যাচের ৫৪ মিনিট অবধি  ডানদিক থেকে সেন্টার করেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ । বল মাথায় ছোঁয়ার চেষ্টা করলেও মাথায় বল লাগেনি। গোলরক্ষক সার্জিও রোচেত চেষ্টা করলেও রোনাল্ডো লাফ দেওয়ায় বলটা দেখতেও পারেননি। ফলে বল গোলে চলে যায়। রোনাল্ডো ভেবেছিলেন বল তাঁর মাথা ছুঁয়ে গোলে গিয়েছে। উৎসব করতে শুরু করে দেন দুই জনেই। ব্রুনোও ভেবেছিলেন গোল করেছেন রোনাল্ডোই। কিন্তু পরে রেফারিরা সিদ্ধান্ত নেন গোল করেছেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। পরে যদিও এ নিয়ে বিতর্ক হয়। 

ফিফার ওয়েবসাইট
ফিফার ওয়েবসাইট

আরও পড়ুন: রোনাল্ডোদের ম্যাচের মাঝেই রংধনু পতাকা নিয়ে মাঠে সমর্থক, তারপর...

কী রয়েছে ফিফার ওয়েবসাইটে?
ফিফার ওয়েবসাইটে গেলেই দেখা যাচ্ছে, কালকে রাতের ম্যাচের প্রথম গোলদাতার নাম নেই। দ্বিতীয় গোলদাতা হিসেবে নাম রয়েছে ব্রুনো ফার্নান্দেজের। তাই এটা বলাই যায়, প্রথম গোলদাতা কে তা নিয়ে সংশয়ে রয়েছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থাও। 

আরও পড়ুন: ব্রুনো ফার্নান্দেজের জোড়া গোল, উরুগুয়েকে হারিয়ে পরের রাউন্ডে পর্তুগাল

রেকর্ডের সামনে রোনাল্ডো
আরও একটা গোল হলে বড় রেকর্ড গড়ে ফেলবেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। বিশ্বকাপের মঞ্চে ৯ গোল হয়ে যাবে তাঁর। ছুঁয়ে ফেলবেন কিংবদন্তি ইউসেবিওকে। তিনিও পর্তুগালের জার্সি গায়ে বিশ্বকাপে ৯টি গোল করেছেন। ফিফা কিছুক্ষণের মধ্যেই হয়ত তাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেবে। তারপরেই জানা যাবে এই রেকর্ডের ব্যাপারে। ইতিমধ্যেই পরপর দুই ম্যাচ জিতে পরের রাউন্ডে নিজেদের জায়গা পাকা করে ফেলেছে পর্তুগাল। তাই দেশের কিংবদন্তি ফুটবলারকে টপকে যাওয়ার সুযোগও থাকছে তাঁর সামনে। এটাই পর্তুগিজ সুপারস্টারের শেষ বিশ্বকাপ। তাই এই বিশ্বকাপেই রেকর্ড গড়ে ফেলতে চাইছেন সিআর সেভেন।