scorecardresearch
 

Company to Pay Salary in Gold: টাকায় নয়, ব্রিটেনের এই কোম্পানি এবার মাইনে দেবে সোনায়, কেন?

ব্রিটেনে জীবনযাত্রার ব্যয় (Living Cost) দ্রুত বাড়ছে এবং পাউন্ড বর্তমানে গত দুই বছরের সর্বনিম্ন পর্যায়ে রয়েছে। ব্যাঙ্ক অফ ইংল্যান্ড (Bank Of England) ইতিমধ্যে সতর্ক করেছে যে ২০২২ অর্থনীতির জন্য একটি মন্দার বছর হতে পারে।

কর্মচারীরা এখন 'সোনার' বেতন পাবেন কর্মচারীরা এখন 'সোনার' বেতন পাবেন
হাইলাইটস
  • ব্রিটেনে মূল্যস্ফীতি কয়েক দশকের সর্বোচ্চ উচ্চতায়
  • বৃটিশ পাউন্ডের মূল্য ব্যাপকভাবে কমেছে

আজকাল, বিশ্বের দেশগুলি অনিয়ন্ত্রিত মুদ্রাস্ফীতিতে (Inflation) বিপর্যস্ত। ভারতে খুচরা মূল্যস্ফীতি এখন ৮ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (ইউএস) এবং ব্রিটেনে (ইউকে), মুদ্রাস্ফীতির হার বর্তমানে কয়েক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ। এটি মোকাবেলায় সব কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক (Central Banks) দ্রুত সুদের হার বাড়াচ্ছে। লন্ডনের একটি কোম্পানি তাদের কর্মীদের ওপর মূল্যস্ফীতির প্রভাব কমাতে অনন্য প্রস্তুতি নিয়েছে। সংস্থাটি এখন তাদের কর্মীদের নগদ অর্থের পরিবর্তে সোনায় বেতন দিতে চলেছে।

স্বর্ণ মুদ্রাস্ফীতি থেকে রক্ষা করে
 স্থানীয় মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, TallyMoney, একটি আর্থিক পরিষেবা প্রদানকারী কোম্পানি, এখন বেতনের পরিবর্তে তার কর্মীদের সোনা দেবে। খবরে কোম্পানির সিইও ক্যামেরন প্যারিকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে যে সোনা মূল্যস্ফীতি থেকে রক্ষা করতে কার্যকর প্রমাণিত হয়। এই কারণে, সংস্থাটি তাদের কর্মীদের বেতনে সোনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সিইও বলেন, “বর্তমান যুগে ঐতিহ্যবাহী অর্থ ক্রমাগত তার ক্রয়ক্ষমতা হারাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে স্বর্ণ মানুষকে মুদ্রাস্ফীতিতে এগিয়ে থাকতে সাহায্য করে।"

এই যুক্তি দেন সিইও
 মো প্যারি বলেছেন যেভাবে পাউন্ড ক্রয়ক্ষমতা হারাচ্ছে তা উদ্বেগজনক। অন্যদিকে এ বছর ক্রমাগত বেড়েছে সোনার মূল্য। তিনি বলেন, 'জীবনযাত্রার খরচ খারাপ থেকে খারাপের দিকে চলে গেছে। এইরকম পরিস্থিতিতে, পাউন্ডে অর্থপ্রদানের কোন মানে হয় না, বিশেষ করে যখন এর মান দিন দিন কমতে থাকছে। এটা অনেকটা খোলা ক্ষতস্থানে ব্যান্ড-এইড লাগানোর মত।'

এই বছর মন্দা আসতে পারে
 বর্তমানে টেলিমনিতে ২০ জনের বেশি লোক কাজ করছেন। সংস্থাটি তার সিনিয়র কর্মীদের সোনায় বেতন দেওয়া শুরু করেছে। কোম্পানিটি এখন সকল কর্মচারীদের জন্য একই পেমেন্ট সিস্টেম বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। সিইও প্যারি নিজেও বেতন নিচ্ছেন সোনায়। তবে, কোম্পানি কর্মচারীদের পাউন্ডে বেতন নেওয়া চালিয়ে যাওয়ার বিকল্প বেছে নেওয়ার সুযোগও দেবে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে ব্রিটেনে জীবনযাত্রার ব্যয় দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং পাউন্ড বর্তমানে দুই বছরের সর্বনিম্ন স্তরে  রয়েছে। ব্যাঙ্ক অফ ইংল্যান্ড ইতিমধ্যে সতর্ক করেছে যে ২০২২ অর্থনীতির জন্য একটি মন্দা বছর হতে পারে।