scorecardresearch
 
ভাইরাল

তিনটে পুরুষাঙ্গ নিয়ে জন্মাল শিশু, তারপর যা হল শুনেই মাথায় হাত

শিশু
  • 1/6

গোটা বিশ্বে এমন ঘটনা বোধহয় এটাই প্রথম। একটা শিশু তিনটে পুরুষাঙ্গ নিয়ে জন্মগ্রহণ করল। ইরাকের মসুল শহরে এমনই এক অদ্ভূত শারীরিক প্রতিবন্ধকতা নিয়ে এক শিশুর জন্ম হয়েছে। এই শিশুটিকে দেখে চিকিৎসকেরাও কার্যত হতবাক হয়ে গিয়েছে। চিকিৎসার ভাষায় এটাকে ট্রিপহেলিয়া বলা হয়।

শিশু
  • 2/6

রিপোর্ট অনুসারে, যত দিন এগোচ্ছিল তিন মাসের ওই শিশুটির পুরুষাঙ্গ ক্রমশ ফুলে যাচ্ছিল এবং জ্বালা করছিল। এরপরই শিশুটির বাবা-মা তাকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে আসে। আর তখনই গোটা বিষয়টা পরিষ্কার হয়ে যায়। চিকিৎসকদের মত অনুসারে, চিকিৎসা বিজ্ঞানে এমন ঘটনা এই প্রথমবার ঘটেছে যেটা ইরাকে হয়েছে।

শিশু
  • 3/6

চিকিৎসকেরা গোটা ব্যাপারটা খুঁটিয়ে দেখার পর জানতে পারেন যে শিশুটার আরও দুটো পুরুষাঙ্গ জন্মগতভাবে তৈরি হয়ে গেছে। একটা অন্ডকোষের নীচে ছিল এবং অন্যটা প্রধান পুরুষাঙ্গের ঠিক নিচে থেকে বেরিয়ে এসেছিল।

শিশু
  • 4/6

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন এটা একটা দূর্লভ ঘটনা। কারণ গর্ভাবস্থায় শিশুটি কোনওরকমের ওষুধের সম্পর্কে ছিল না। পাশাপাশি শিশুটির বংশেও এমন ঘটনা আগে কখনও ঘটেনি।

শিশু
  • 5/6

ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অফ সার্জারিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, চিকিৎসক শাকির সেলিম জাবলি এবং আয়াদ আহমদ মহম্মদ এই ব্যাপারটি আরও বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্য়া করেছেন। এই বিষয়ে তাঁরা আরও পড়াশোনা করে জানান যে ৫০ থেকে ৬০ লাখ শিশুর মধ্যে একজনের এমন সমস্যা হতে পারে।

শিশু
  • 6/6

যদিও পরবর্তীকালে চিকিৎসকেরা এই ব্যাপারটা ধরে ফেলেছিলেন যে বাকি দুটো পুরুষাঙ্গের সঙ্গে মুত্রনালীর কোনও যোগাযোগ ছিল না। সেকারণেই অপারেশন করে সেই দুটো বাদ দিয়ে দেওয়া হয়। ডেইলি মেল-এর খবর অনুসারে ২০১৫ সালে এমনই একটা ঘটনা সামনে এসেছিল। ভারতের একটা শিশুর তিনটে পুরুষাঙ্গ ছিল। যেহেতু এই ঘটনার কথা মেডিকেল জার্নালে উল্লেখ করা হয়নি, সেকারণে ইরাকের এই ঘটনাটিকেই বিশ্বের প্রথম ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।

(প্রত্যেকটা ছবিই প্রতীকী)