scorecardresearch
 

গণেশের পর এবার দুধ খাচ্ছে নন্দী? খবর চাউর হতেই মহারাষ্ট্রে হইচই

মহারাষ্ট্রে বেশ কিছু শহরে নন্দীর মূর্তি দুধ খাচ্ছে বলে খবর ছড়িয়েছে। এর সঙ্গে জড়িত ভিডিও এবং মেসেজ সোশ্যাল মিডিয়াতে খুব দ্রুত ভাইরাল হচ্ছে। রাজ্যের ছোট বড় শহরে এরকম ছবির সামনে আসছে। চন্দ্রপুর, নাগপুর, অমরাবতী এবং ঔরঙ্গাবাদ এর বিভিন্ন শহরে এই চমৎকার দেখার জন্য মন্দিরে মন্দিরে ভিড় জমাচ্ছেন মানুষ।

গণেশের পর এবার নন্দী গণেশের পর এবার নন্দী
হাইলাইটস
  • 'নন্দী'র দুধ খাওয়ার খবরে মন্দিরে ভিড় মহারাষ্ট্রে
  • গুজব বলছে বিজ্ঞানভিত্তিক সংস্থা
  • এদিকে ছবি, ভিডিও ভাইরাল

মহারাষ্ট্রতে বেশ কিছু শহরে নন্দীর মূর্তি দুধ খাচ্ছে বলে খবর ছড়িয়েছে। এর সঙ্গে জড়িত ভিডিও এবং মেসেজ সোশ্যাল মিডিয়াতে খুব দ্রুত ভাইরাল হচ্ছে। রাজ্যের ছোট বড় শহরে এরকম ছবির সামনে আসছে। চন্দ্রপুর, নাগপুর, অমরাবতী এবং ঔরঙ্গাবাদ এর বিভিন্ন শহরে এই চমৎকার দেখার জন্য মন্দিরে মন্দিরে ভিড় জমাচ্ছেন মানুষ।

আগেও ছড়িয়েছিল গুজব

জানিয়ে দেওয়া যাক বেশ কিছু বছর আগে ভগবান গণেশের মূর্তি দুধ খাচ্ছে বলে গুজব ছড়িয়েছিল। এখন মন্দিরে নন্দী মূর্তি দুধ খাচ্ছে বলে খবর ছড়ায়। বিষয়টি জানার জন্য আজ থেকে প্রতিনিধিরা সেখানে অখিল ভারতীয় অন্ধ শ্রদ্ধা নির্মূল কমিটির সদস্যদের কাছে যান এবং তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তারা একে বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়া বলে জানিয়েছেন এবং এই ধরনের অন্ধ বিশ্বাসে কান না দিতে আবেদন জানিয়েছেন। সঙ্গে এই সত্যি প্রমাণ করতে পারলে ২৫ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন। সমিতি দ্বারা বলা হয়েছে যে এই ধরনের কোনও প্রকারের প্রচার-প্রসার করা এবং মানুষকে বিভ্রান্ত করা এক ধরনের অপরাধ।

মানুষের কাছেও আবেদন ভারতীয় অন্ধ শ্রদ্ধা নির্মূল কমিটির

কমিটির তরফে চন্দ্রপুরের অনিল দাহেগাওকর জানিয়েছেন যে, এই বৈজ্ঞানিক প্রক্রিয়া যার কারণে, তাকে সারফেস টেনশন বলে। যার কারণে কোনও মাটির মূর্তি অথবা পাথরের মূর্তি, কোনও তরল পদার্থ জল বা দুধের সঙ্গে সম্পর্ক হলে তার কিছু পরিমাণে মূর্তি জল টেনে নেয়। এই কারণে আমাদের মনে হয় যে মূর্তি জল পান করছে। কিন্তু কিছু সময় পরে সেই জল বা দুধ নীচে মাটিতে বয়ে যায়। কিন্তু মনে শ্রদ্ধার কারণে মানুষের দেখে না। দেখলেও এড়িয়ে যায় এবং এটিকে চমৎকার বলে মনে করে। মানুষকে আবেদন করেছে সামাজিক স্বাস্থ্য বজায় রাখার এবং মানুষের মানুষের বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোণ দিয়ে বিচার করুন।

 

 
; ; ;