scorecardresearch
 

Camera In Office Toilet: অফিসের কর্মীদের উপর নজরদারিতে টয়লেটেও ক্যামেরা, ছবি লিক

Camera In Office Toilet: অফিসের কর্মীরা টয়লেটে বড্ড বেশি সময় নিচ্ছে। কাজের দেরি হচ্ছে। এই সন্দেহ থেকে তাদের উপর নজরদারি চালাতে গিয়ে বস টয়লেটে লাগিয়ে দিলেন ক্যামেরা। ক্যামেরা, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি লিক হতেই হইচই শুরু হয়েছে। দেখুন কাণ্ড...

অফিসের কর্মীদের উপর নজরদারিতে টয়লেটেও ক্যামেরা, ছবি লিক অফিসের কর্মীদের উপর নজরদারিতে টয়লেটেও ক্যামেরা, ছবি লিক
হাইলাইটস
  • অফিসের কর্মীদের উপর নজরদারি করতে গিয়ে সীমা ছাড়াল কোম্পানি
  • টয়লেটেও ক্যামেরা লাগাল কোম্পানি, ছবি লিক
  • ক্যামেরাবন্দি কর্মীদের ছাঁটাই করল কোম্পানি

Camera In Office Toilet: কর্মীদের ওপর নজর রাখার জন্য বিভিন্ন জায়গায় অফিসে, দোকানে ক্যামেরা লাগানোর বিষয়টি আমরা জানি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ক্যাশ কাউন্টারে ক্যামেরা লাগানো থাকে। যাতে কোনও রকম নয়-ছয়ের সম্ভাবনা না থাকে। কিন্তু তাই বলে কর্মীদের উপর নজরদারি করতে গিয়ে টয়লেটের মধ্যে ক্যামেরা? এমন কখনও শুনেছেন? এমনই ঘটনা ঘটেছে। যা সামনে আসতেই হইচই শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ পাকা চুল সাদা করে, সারায় বহু রোগ, পিঁয়াজের খোসা ফেলবেন না

কোম্পানির বসের সন্দেহ ছিল যে স্টাফেরা টয়লেটে গিয়ে স্মোক করেন এবং অনেক বেশি সময় মোবাইল ঘাঁটাঘাঁটি করেন। টয়লেটের কিছু ফটো অনলাইনে লিক হয়ে যাওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়াতে এখন আলোচনা শুরু হয়েছে।

যদিও এই ফটো প্রকাশ্যে আসার পরেও কোম্পানি এই অভিযোগ ভুল বলে দাবি করেছেন। এই কোম্পানি বাথরুমে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগাননি বলে দাবি করেছেন। বিষয়টি দক্ষিণ চিনের একটি শহরের। এখানে একটি টেকনোলজি কোম্পানিতে টয়লেটে ক্যামেরা লাগানো হয়েছিল। রেড স্টার নিউজ এর রিপোর্ট অনুযায়ী বিরতির সময় টয়লেটে থাকা এক কর্মীর ছবি এখন সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তিনটি ফটো পাওয়া গিয়েছে। যাতে তিনজন আলাদা আলাদা ব্যক্তি টয়লেটে স্মোকিং এবং ফোন ইউজ করছেন বলে দেখা গিয়েছে।

স্পাই ক্যাম

রিপোর্টে বলা হয়েছে যে কোম্পানি এই তিনটি ছবি ব্যবহার করেছিল অন্য কর্মীদের সতর্ক করার জন্য। যে ছবি  সোস্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়াতে কোম্পানিকে নানা কথা শুনতে হচ্ছে। এটি ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ বলেও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এক ইউজার লিখেছেন যে, কোম্পানির এই পদক্ষেপ শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আরেকজন লিখেছেন যে মানুষকে জানোয়ারের মতো বিবেচনা করছে এই কোম্পানি। আরেকজন লিখেছেন, কোম্পানির এই পদক্ষেপ দুঃস্বপ্নের মত।

আরও পড়ুনঃ Pitru Paksha 2022: পিতৃপক্ষে এই ৭ টি জিনিস দান করলে সব বাধা দূর হবে, আসবে সাফল্য

যাদের ছবি ভাইরাল হয়েছে তাদের চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। যেখানে অন্যদের বোনাস কেটে নেওয়া হয়েছে এবং ঐ সমস্ত লোকেদের কোম্পানির তরফ থেকে শেষ সতর্ক করা হয়েছে এই সিদ্ধান্তের উপর কোম্পানি জানিয়েছে যে, কর্মচারীরা লক্ষণ রেখা পার করে নিয়েছে। এ কারণে তিনি তারা কড়া ব্যবস্থা নিয়েছেন। রেড স্টার নিউজের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে স্টাফ মেম্বার জানিয়েছেন যে নিশ্চিতভাবেই ক্যামেরাতে কিছু প্রাইভেট মোমেন্টস অবশ্যই কয়েদ হয়েছে। কিন্তু সত্যি বলতে গেলে এই পলিসিতে লাভ এবং লোকসান দুটোই আছে।