scorecardresearch
 

আচমকা বিমানের দরজা খুলে ডানায় উঠে পড়লেন যুবক, তারপর...

চলন্ত প্লেন থেকে আচমকা দরজা খুলে ডানায় উঠে পড়লো এক যাত্রী। যা দেখে চক্ষু চড়কগাছ সকলের। কোনও রকমে বিমান দুর্ঘটনা এড়ানো গিয়েছে। কিন্তু কীভাবে এই ঘটনা, তা খতিয়ে দেখছে ব্যক্তিরা।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • আচমকা খুলে দিলেন বিমানের দরজা
  • বেসামাল বিমান বাঁচাতে গলদঘর্ম পাইলট
  • গ্রেফতার করা হয়েছে যুবককে

চলন্ত প্লেন থেকে আচমকা দরজা খুলে ডানায় উঠে পড়লো এক যাত্রী। যা দেখে চক্ষু চড়কগাছ সকলের। প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এভাবে উঠে পড়ার ঘটনা ভাইরাল হয়েছে আমেরিকায়। আচমকা এমন ঘটনায় মারাত্মক ধরণের দুর্ঘটনার হাত থেকে বেঁচে গেল যাত্রীরা। সমস্ত যাত্রীদের জীবন বিপন্ন হতে পারতো।

বিমান ল্যান্ডিংয়ের সময় আচমকা গেট খুলে দেয় যুবক

আসলে বিমান ল্যান্ডিং করার সঙ্গে সঙ্গেই ইমারজেন্সি গেট খুলে ফেলেন ওই যুবক। এর পরে তিনি বিমানের ডানায় চড়ে বসেন। সহযাত্রীর এই ঘটনায় সবাই চমকে যায়। পরে মতিভ্রম হওয়া ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসুন জেনে নিই পুরো ঘটনা।

মিয়ামিতে এই ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য

রিপোর্ট অনুযায়ী এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা আমেরিকার মিয়ামি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হয়েছে। যেখানে আমেরিকান এয়ারলাইনস ফ্লাইট ৯২০ যখনই এয়ারপোর্টে এসে পৌঁছায়। মাটিতে অবতরণের পরই আচমকা ইমারজেন্সি গেট খুলে ডানায় চড়ে বসে এই যুবক। যাতে বিমানটিতে বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো।

ওই যাত্রীকে গ্রেফতার

এয়ারলাইন্সের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে ওই যাত্রীকে তৎক্ষণাৎ বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ আটক করে। পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। যাত্রীর নাম ক্রিশ্চিয়ান সেগুরা। যার বয়স ৩৩ বছর। তার বিরুদ্ধে বিমানবন্দরের সম্পত্তি নষ্ট করা এবং পুলিশ আধিকারিক এর সঙ্গে অভব্যতার অভিযোগ আনা হয়েছে।

হাসপাতালে গ্রেফতার করা হয় ওই ব্যক্তিকে

এই ঘটনা নিয়ে মিয়ামি পুলিশ জানিয়েছে, ফ্লাইট ডি২২ নিচে নামছিল। সেই সময়ে ওই ব্যক্তির ইমারজেন্সি গেট খুলে এবং বিমানের ডানায় চড়ে বসে এবং নিষিদ্ধ এলাকাতেও পৌঁছে যায় ওই ব্যক্তি। রিপোর্ট অনুযায়ী ওই ব্যক্তি প্য়েলেন ল্যান্ডিংয়ের সময় শারীরিকভাবে ভালো বোধ করছিলেন না। তাই বিমান ল্যান্ডিং এর পরই আচমকা তিনি গেট খুলে বাইরে বেরিয়ে আসেন। তাকে অবশ্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। যেখানে তাকে চেকআপের পরে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে।

 

 
; ; ;