scorecardresearch
 
 

প্রশাসকের দায়িত্ব নিয়েই কর্মীদের ছুটি বাতিল করলেন গৌতম দেব

প্রশাসক পদে দায়িত্ব নিয়েই শিলিগুড়ি পুরনিগমের কর্মীদের সমস্ত ছুটি বাতিল করে দিলেন গৌতম দেব। পাশাপাশি পরিস্থিতি মোকাবিলায় সপ্তাহে সাতদিনই পুরনিগম খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি। কাজ না করে কেউ মাইনে নিতে পারবেন না বলে হুঁশিয়ারিও দেন তিনি।

শিলিগুড়ি পুরনিগমের নতুন প্রশাসকমণ্ডলী শিলিগুড়ি পুরনিগমের নতুন প্রশাসকমণ্ডলী
হাইলাইটস
  • সমস্ত রকম ছুটি বাতিল পুরনিগমে
  • করোনা মোকাবিলায় সাতদিনই খোলা থাকবে পুরনিগম
  • বিরোধীদের পরামর্শ নিয়েই কাজ

প্রশাসক পদে দায়িত্ব নিয়েই শিলিগুড়ি পুরনিগমের কর্মীদের সমস্ত ছুটি বাতিল করে দিলেন গৌতম দেব। পাশাপাশি পরিস্থিতি মোকাবিলায় সপ্তাহে সাতদিনই পুরনিগম খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি। কাজ না করে কেউ মাইনে নিতে পারবেন না বলে হুঁশিয়ারিও দেন তিনি।

সক্রিয় গৌতম দেব

এতদিন জন প্রতিনিধি না থাকায় সরকারি আমলা দিয়ে প্রশাসকের কাজ চলছিল। আদপেই যে চলছিল না, তা পুরনিগমের আনাচ কানাচে কান পাতলে টের পাওয়া যাচ্ছিল। অনেকেই মোটিভেশনের অভাবে বাড়িতে সময় কাটানোই বেশি শ্রেয় বলে মনে করছিলেন। আপাতত কোভিড পরিস্থিতিতে তাঁদের দফতরে হাজিরা শুধু নয়, ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কার হিসেবে কাজ করতে বাধ্য করলেন গৌতমবাবু। 

সাতদিনই কাজ , কোনও ছুটি নেই

শিলিগুড়ি পুরনিগমে এখন থেকে কাজ হবে সপ্তাহে শনি ও রবিবারও। কোভিড পরিস্থিতিতে কর্মীদের ছুটি বাতিল ঘোষণা করেলন গৌতম। একই সাথে বেতন পেলে কাজ করতে হবে, বসে বসে মাইনে নেওয়া চলবে না ঘোষণা পুর প্রশাসকমণ্ডলীর।

দায়িত্বভার গ্রহণ ও জরুরি বৈঠক

শুক্রবার সকালে শিলিগুড়ি পৌরনিগমে দায়িত্ব নিতে পৌঁছে যান গৌতম দেব। সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন প্রশাসক বোর্ডের সদস্য দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা শিলিগুড়ি পুর নিগমের কুড়ি নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কো-অর্ডিনেটর রঞ্জন সরকার, উত্তরবঙ্গের আইএনটিটিইউসি চেয়ারম্যান অলক চক্রবর্তী এবং বিবেক বৈদ। এদিন শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসক তথা দার্জলিং ও কালিম্পংয়ের কোভিডের দায়িত্বে থাকা নোডাল অফিসার সুরেন্দ্র গুপ্তার কাছ থেকে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন গৌতম দেব। দায়িত্বভার গ্রহণ করেই এবং শিলিগুড়ি পুরনিগমের কমিশনার সোনাম ওয়াংদি ভুটিয়ার সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রশাসক বোর্ডের সদস্যরা। প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব নিতেই মূলত করোনা পরিস্থিতিতে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় মোকাবিলার কথা জানিয়েছেন গৌতম দেব।

করোনা মোকাবিলায়ই প্রাথমিক চ্যালেঞ্জ

এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে গৌতম দেব বলেন, "করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলাকেই প্রাথমিক গুরুত্ব দেওয়া হবে। দিন রাত যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ করা হবে। যে সব কর্মীরা বসে রয়েছেন তাদেরকেও কাজে লাগানো হবে। ছুটি বাতিল করা হবে। শনি ও রবিবার বলে কিছু থাকবে না।

বিরোধীদের সাহায্য প্রার্থনা

এরপর অশোক ভট্টাচার্য, শঙ্কর ঘোষ সহ বিরোধীদের প্রসঙ্গে গৌতম দেব বলেন, "অশোকবাবু একজন নির্বাচিত প্রতিনিধি। তাঁকে যথাযোগ্য সম্মান দেওয়া হবে। তাঁর অভিজ্ঞতা ও পরামর্শকে কাজে লাগানো হবে। শুধু তিনিই নযন, বিজেপি বিধায়ক ও বিদায়ী স্বাস্থ্য মেয়র পারিষদ শঙ্কর ঘোষ কেও গুরুত্ব দেওয়া হবে। শিলিগুড়ি পুরনিগমের সমস্ত কো-অর্ডিনেটরদেরকে নিয়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকে বসা হবে।"

পুর এলাকার জলপাইগুড়ি জেলার আধিকারিকদের নিয়েও উদ্যোগ

একই সাথে এদিন গৌতম দেব আরো বলেন, রাজ্যের পুর ও নগর উন্নয়ন দপ্তর থেকে দুজন আধিকারিকদের দেওয়া হয়েছে তাদেরকে শিলিগুড়ির মৈনাক পর্যন্ত অফিসে একটি জায়গায় বসিয়ে জলপাইগুড়ি জেলার ১৪ টি ওয়ার্ডে করোনা নিয়ে কাজ করবেন তাঁরা।