scorecardresearch
 

উত্তরবঙ্গ

নির্বাচনের দিন ঘোষণার পরদিন থেকেই অনশনে বসে পড়লেন গুরুং।

GTA নির্বাচনের বিরোধিতা, আজ থেকে অনশনে বসলেন গুরুং

25 May 2022

২৬ জুন অনুষ্ঠিত হবে জিটিএ বা গোর্খা টেরিটোরিয়াল (GTA Vote) অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের বৈঠক। দার্জিলিংয়ের জেলাশাসকের অফিসে মঙ্গলবারের সর্বদলীয় বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। জানা গিয়েছে, ২৭ মে ভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি হবে, ২৬ জুন ভোটগ্রহণ আর ২৯ জুন হবে গণনা। আর জিটিএ নির্বাচনের দিন ঘোষণা হতেই ফের বেঁকে বসলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সুপ্রিমো বিমল গুরুং। নির্বাচনের দিন ঘোষণার পরদিন থেকেই অনশনে বসে পড়লেন গুরুং।

পাহাড়ে ২৬ জুন GTA নির্বাচন, গণনা ২৯ তারিখ

24 May 2022

GTA Election: আগামী ২৬ শে জুন জিটিএ নির্বাচন হতে চলেছে। এদিন এমনটাই ঘোষণা করলেন জলপাইগুড়ির ডিভিশনাল কমিশনার অজিতরঞ্জন বর্ধন। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানান, গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ওরফে জিটিএ-এর নির্বাচন হবে আগামী ২৬শে জুন।

হিলি সীমান্ত-ফাইল ছবি

পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশের উপর দিয়ে ট্রেন যাবে মেঘালয়, চলছে প্রস্তুতি

24 May 2022

Bengal to Meghalaya Direct Train: পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলাদেশের উপর দিয়ে ট্রেন যাবে মেঘালয়। সফরের জন্য আপনি প্রস্তুত তো?

প্রতীকী ছবি

কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভারী বৃষ্টি উত্তরবঙ্গের সব জেলায়

23 May 2022

North Bengal Weather Update: কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ভারী বৃষ্টি উত্তরবঙ্গের সব জেলায়

আকাশ জুড়ে মেঘ করেছে...

উত্তরবঙ্গে কয়েকদিনে বাড়বে তাপমাত্রা, বৃষ্টি হবে?

22 May 2022

North Bengal Weather Forecast Today: উত্তরবঙ্গে কয়েকদিনে বাড়বে তাপমাত্রা, বৃষ্টি হবে? কী বলছে হাওয়া অফিস?

দিলীপ ঘোষ

"অর্জুনকে মুখ্যমন্ত্রী করে দিতাম", কেন বললেন দিলীপ ঘোষ?

22 May 2022

সরকারে থাকলে অর্জুনকে মুখ্যমন্ত্রী করে দেওয়া যেত। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের পদত্যাগ করা উচিত। স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে পরপর রাজনৈতিক গোলা নিক্ষেপ করলেন দিলীপ ঘোষ। যা নিয়ে হইচই বাংলার রাজনৈতিক মহলে। কী বললেন তিনি?

"আকাশ এত মেঘলা"

উত্তরবঙ্গেও ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা, কোন জেলায় কেমন বৃষ্টি?

21 May 2022

North Bengal Weather Today: উত্তরবঙ্গেও ঝড়-বৃষ্টির আশঙ্কা, কোন জেলায় কেমন বৃষ্টি? এখনই জেনে নিন।

দার্জিলিংয়ের উচ্চতম গ্রাম শ্রীখোলা যেন একটুকরো আদিম ইতিহাস

21 May 2022

দার্জিলিং এর একটি ছোট্ট গ্রাম শ্রীখোলা। তথাকথিত পর্যটনকেন্দ্র নয়, তবে শ্রীখোলা যারা একবার গিয়েছেন, তাঁদের কাছে খোঁজ নিয়ে দেখুন, তাঁরা হয়তো এজন্মে আর ভুলবেন না এখানকার আদিম সৌন্দর্য। সান্দাকফু-ফালুট ট্রেকিং করতে যারা যান, তাঁদের জানা রয়েছে শ্রীখোলার ব্যাপারে। অনেকে রাত্রিবাস না করে কিছুক্ষণ সময় কাটিয়ে যান। রিম্বিক থেকে খুব কাছে, তবু মিনিট পনেরোর রাস্তা। দার্জিলিং থেকে যেতে হলে কমপক্ষে ছ'ঘন্টা লাগবে। এটি দার্জিলিং জেলার উচ্চতম স্থানগুলির মধ্যে একটি। ইন্টারনেট নেই, মোবাইল নেটওয়ার্ক নেই, ইলেকট্রিসিটি পর্যন্ত নেই। যদি কয়েকদিন এমন পরিবেশে নিজেকে হারিয়ে ফেলতে ইচ্ছে করে, তাহলে একবার ঘুরে আসতে পারেন শ্রীখোলায়। সঙ্গে বাড়তি পাওনা রডোডেনড্রনের ওয়াইন আর চমরি গাইয়ের মাংস। আর এখানে রয়েছে দুশো বছরের পুরনো সেতু। যা আপনাকে করে তুলবে নস্টালজিয়ায় আক্রান্ত।

উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

উত্তরবঙ্গে আরও ভারী বৃষ্টি, পাহাড়ে বিশেষ সতর্কতা

20 May 2022

North Bengal Weather Forecast: উত্তরবঙ্গে আরও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস, পাহাড়ে বিশেষ সতর্কতা। কোন জেলায় সতর্কতা।

বাংলাদেশের নীলফামারিতে দর্শক টানছে শিলিগুড়ি থেকে নিয়ে যাওয়া দুশো বছরের পুরনো কড়াই

20 May 2022

হাতি নেই বহুকাল। তবে হাতি পোষার ইতিহাসের সাক্ষ্য বহন করে রয়ে গিয়েছে হাতিকে জল খাওয়ানোর কড়াই। আকার দেখলে মালুম হবে, কড়াইটি হাতির যোগ্যই বটে। লোহার এই কড়াইটির চওড়ায় ২০ ফিট, ব্যাসে ৭ ফিট। ওজন প্রায় ১ টন। এত বড় লোহার কড়াই, রক্ষা করতে শিকলে বেঁধে তালা মেরে রাখা হয়েছে কড়াইটিকে। কড়াইয়ের মালিকপক্ষের দাবি, কড়াইটি তাঁদের পূর্বপুরুষদের ২০০ বছরের ঐতিহ্য। বাড়িতে পোষা জোড়া হাতিকে জল খাওয়ানোর জন্য এটি অবিভক্ত ভারতের শিলিগুড়ি থেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সম্প্রতি কড়াইটি প্রত্নতত্ত্ব দপ্তরের নিদর্শনের স্বীকৃতিও পেয়েছে। এই কড়াই নিয়েই এখন হইচই বাংলাদেশজুড়ে। দেড়’শ-থেকে দুশো বছরের পুরোনো লোহার ওই ‘কড়াই’টি রয়েছে বাংলাদেশের নীলফামারি জেলার জলঢাকায়। সে সময়ে হাতিকে জল খাওয়ানোর জন্য কেনা এই কড়াই এখন দর্শনীয় বস্তুতে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিনই ভিড় করছেন বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ।

শ্রীখোলা সেতু।   ছবি সৌজন্য- গুগল.কম

রডোডেনড্রন ওয়াইন-ইয়াকের মাংস! দার্জিলিঙের শ্রীখোলা গেছেন?

20 May 2022

দুশো বছরের পুরনো সেতু, Rhododendron ওয়াইন এবং yak এর মাংস নিয়ে হাতছানি দেয় শ্রীখোলা, গিয়েছেন কখনও? না গেলে একবার অন্তত জীবনে ঘুরে আসুন। ইলেকট্রিসিটি, মোবাইল নেটওয়ার্ক বিবর্জিত জায়গা। শর্ট ট্রিপের জন্য আদর্শ। এখানকার সিনিক বিউটি মাতাল করার মতো।