scorecardresearch
 

মালদায় নৃশংসতা! স্ত্রী ও তার প্রেমিক ছক কষে খুন করল যুবককে

স্ত্রী এবং তার প্রেমিক রীতিমতো ছক কষে খুন করলো যুবককে। ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য মালদার ইংরেজবাজার থানার মিলকি ফাঁড়ির কাউয়াখোন মোহনপুর এলাকায়। পুলিশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • ছক কষে খুন করা হলো যুবককে
  • স্ত্রী এবং তার প্রেমিক ষড়যন্ত্র করে খুন
  • ঘটনায় মালদায় ব্যাপক চাঞ্চল্য

ফের পরকীয়ার বলি আরও এক। এবার ঘটনাস্থল মালদা। স্ত্রী এবং তার প্রেমিক রীতিমতো ছক কষে খুন করলো যুবককে। ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য মালদার ইংরেজবাজার থানার মিলকি ফাঁড়ির কাউয়াখোন মোহনপুর এলাকায়। খুনের অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে মিলকি ফাঁড়ির পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ১০ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ হয়ে যান কাউয়াখোন মোহনপুর গ্রামের বাসিন্দা সাদিকুল খান। ১৬ তারিখ মিল্কি ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে দ্রুত একাধিক বিষয় খোঁজ করে চার দিনের মধ্যে এই ঘটনার কিনারা করল মিলকি ফাঁড়ির পুলিশ।

তদন্তে নেমে প্রথমে ওই গ্রামের বাসিন্দা লাল চাঁদ শেখ এবং নূর আলমকে পুলিশ প্রথমে গ্রেপ্তার করে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। এরপর সাদিকুল খানের স্ত্রী শরিফা বিবিকে সামনাসামনি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। তাদের সঙ্গে নিয়ে গতকাল রাতে ওই গ্রামে একটি বাগান থেকে উদ্ধার করা হয় সাদিকুল খানের মৃতদেহ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকাজুড়ে।

সাদিকুলের স্ত্রী  শরিফা বিবি, তাঁর প্রেমিক লালচাঁদ ও বন্ধু নূর আলমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মৃতদেহ ময়না তদন্তে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত আরম্ভ হয়েছে। এই ঘটনায় আর কারা যুক্ত রয়েছে তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

তবে দীর্ঘদিন ধরেই বিবাহ বহির্ভুত সম্পর্ক চলছে দুজনের মধ্যে বলে আশপাশের লোকজনের কাছ থেকে জানা গিয়েছে। তবে তার পরিণতি এত করুণ হবে, তা ভাবতে পারেননি কেউই।