scorecardresearch
 

EXCLUSIVE: মমতার মন্ত্রিসভায় ঠাঁই হল না! মদন মিত্র কী বলছেন?

কামারহাটি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জিতে ফের বিধায়ক হয়েছেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। তবে জায়গা পাননি মমতার মন্ত্রিসভায়। যদিও মদন মিত্র জেতার পর শোনা যাচ্ছিল, তাঁকে ফের মন্ত্রী করতে পারেন তৃণমূল নেত্রী। তবে সেই জল্পনা সত্যি হয়নি। এই নিয়ে কী বললেন মদন মিত্র?

MADAN MITRA MADAN MITRA
হাইলাইটস
  • মমতার মন্ত্রিসভায় জায়গা পেলেন না মদন মিত্র
  • এই নিয়ে কী বললেন এই তৃণমূল নেতা?

কামারহাটি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জিতে ফের বিধায়ক হয়েছেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। তবে জায়গা পাননি মমতার মন্ত্রিসভায়। যদিও মদন মিত্র জেতার পর শোনা যাচ্ছিল, তাঁকে ফের মন্ত্রী করতে পারেন তৃণমূল নেত্রী। তবে গতকাল ৪৩ জন মন্ত্রীর তালিকায় নাম পাওয়া যায়নি মদন মিত্রর। আজ মন্ত্রীরা শপথও নিয়েছেন। 

'মন্ত্রিত্ব পেলেন না? কী বলবেন', প্রতিক্রিয়ায় আজতক বাংলাকে মদন মিত্র বলেন, 'কে মন্ত্রী হবেন বা হবেন না সেই সিদ্ধান্ত নেন দলনেত্রী। তিনি এবারও মন্ত্রিসভা তৈরি করেছেন। সবার সঙ্গে পরামর্শ করেই করেছেন। আমার মনে হয়, এর থেকে ভালো মন্ত্রিসভা হতে পারে না। সবাইকে মন্ত্রী হতে হবে এমন কোনও মানে নেই। দল আমাকে সম্মান দিয়েছে। আমি খুশি।  মহিলা, অনগ্রসর শ্রেণি সবাইকে নিয়ে মন্ত্রিসভা তৈরি হয়েছে। সবাই মন্ত্রী হলে দলের কাজ কে করবে? দলেরও অনেক কাজ থাকে।' 

MADAN

মদন মিত্র আরও বলেন, 'মন্ত্রী না হলে কাজ করা যায় না, এই নীতিতে আমি বিশ্বাস করি না। আমার দল সরকার তৈরি করেছে। যারা মন্ত্রী হয়েছেন, তাঁরাও তো আমারই দলের লোক। তাই মিলেমিশে কাজ করব।' 

শুভেন্দু অধিকারীকে বিরোধী দলনেতা করেছে বিজেপি। এই নিয়ে মদন মিত্র বলেন, 'শুভেন্দু অধিকারী বিরোধী দলনেতা হয়েছেন। সবটাই মানুষ দেখছে। ভবিষ্যতই এর উত্তর দেবে।' 

আরও পড়ুন : একদা মমতার ছায়াসঙ্গী, আজ বিরোধী দলনেতা, কেমন শুভেন্দুর সফর?

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে প্রথমবার বিধায়ক হন মদন মিত্র। ২০১১ সালে কামারহাটি থেকে জেতেন তিনি। ক্রীড়া দফতরের মন্ত্রী করা হয় তাঁকে। ২০১২ সালে ক্রীড়ার সঙ্গে পরিবহন দফতরের দায়িত্বও দেওয়া হয় তাঁকে। তবে চিটফান্ড মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর মন্ত্রীপদ থেকে ইস্তফা দিতে হয় তাঁকে।