scorecardresearch
 

Nadia Child Murder: পণে বাইক মেলেনি, নদিয়ায় ৬ বছরের শ্যালককে খুন জামাইবাবুর

মাসখানেক আগে পূর্ণিয়ায় বাপের বাড়িতে গিয়েছিলেন শাহজাদি। ভাইকে সঙ্গে করে নদিয়ায় শ্বশুরবাড়িতে ফেরেন তিনি। বুধবার বিকেলে শিশুটিকে ধোড়াদহ বাড়ারে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে বের হয় সোহেল। তার পর থেকে দিল ইসলামের আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।

অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতের নাম সোহেল শেখ। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতের নাম সোহেল শেখ।
হাইলাইটস
  • নদিয়ায় শ্যালককে খুন।
  • পণে বাইক না মেলায় রাগ।
  • অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

দিদির বাড়ি বেড়াতে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিল ভাই। খবর দেওয়া হয়েছিল থানায়। খোঁজ শুরু হয়। পচাগলা মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তদন্তে উঠে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। পুলিশ জানতে পারে, নাবালককে খুন করে জঙ্গলে ফেলে দিয়ে গিয়েছিল জামাইবাবুই। পণের দাবি না মেটায় শ্যালককে খুন করে প্রতিহিংসা চরিতার্থ করেছে বলে অভিযোগ। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতের নাম সোহেল শেখ। 

নদিয়ার থানারপাড়ায় দিদির বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল ৬ বছরের দিল ইসলাম। তার বাড়ি পূর্ণিয়া জেলার গটপুর গ্রামে। সাড়ে তিন মাসে বিহারের পূর্ণিয়ার বাসিন্দা মনিরুলের মেয়ে শাহজাদি বিবির সঙ্গে নিকাহ হয় সোহেলের। বিয়ের পর থেকে সে মোটরসাইকেল পণ হিসেবে দাবি করে আসছিল। শ্বশুরবাড়ি সেই দাবি পূরণ করতে পারেনি। এনিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তিও করত সোহেল। 

মাসখানেক আগে পূর্ণিয়ায় বাপের বাড়িতে গিয়েছিলেন শাহজাদি। ভাইকে সঙ্গে করে নদিয়ায় শ্বশুরবাড়িতে ফেরেন তিনি। বুধবার বিকেলে শিশুটিকে ধোড়াদহ বাড়ারে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে বের হয় সোহেল। তার পর থেকে দিল ইসলামের আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সোহেল নিজেই মাইকিং করে প্রচার শুরু করে। টাকা-পয়সাও খরচ করে। পুলিশকে গোটা ঘটনাটি জানান শাহজাদি। এরপর ফুলবাড়ি নদীর ধারে জঙ্গলের মধ্যে পাওয়া যায় দিলের দেহ। সিসিটিভি ফুটেজে পুলিশ দেখতে পায়, বুধবার রাত ১০টা নাগাদ সোহেল সাইকেল করে শিশুটিকে জলঙ্গি নদীর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। 

পুলিশি জেরায় অপরাধের কথা স্বীকার করেছে সোহেল। সে জানিয়েছে, মোটরবাইক না এনে বাপের বাড়ি থেকে শ্যালকে এনেছিলেন স্ত্রী। সেই রাগেই দিলকে শ্বাসরোধ করে খুন করেছে সে। সন্দেহ যাতে না হয় সেজন্য জলঙ্গি নদী পেরিয়ে মুর্শিদাবাদের ডোমকলের জঙ্গলে ফেলে দেয়। সোহেলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বিহার থেকে নদিয়ায় এসে ছেলের দেহ সনাক্ত করেন দিলের বাবা।     

আরও পড়ুন- রাজ্যের ৫ জেলায় অতিভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি হাওয়া অফিসের