scorecardresearch
 
 

দার্জিলিং চিড়িয়াখানায় রেড পাণ্ডা শাবকের জন্ম, খুশির হাওয়া

দার্জিলিং চিড়িয়াখানায় এক রেড পাণ্ডা দম্পতি নতুন শাবকের জন্ম দিল। ফলে খুশির হাওয়া চিড়িয়াখানায়। করোনা পরিস্থিতি কাটতেই শাবকটিকে দর্শকদের সামনে আনা হবে বলে জানা গিয়েছে। আপাতত মা ও ছানা দুজনেই সুস্থ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

প্রসন্ন-র গর্ভে ও কিম্বুর ঔরসে জন্ম নিল পাণ্ডা শাবক প্রসন্ন-র গর্ভে ও কিম্বুর ঔরসে জন্ম নিল পাণ্ডা শাবক
হাইলাইটস
  • রেড পাণ্ডা শাবকের জন্ম দার্জিলিংয়ে
  • কিম্বু-প্রসন্ন এর সন্তান ভূমিষ্ঠ
  • লকডাউনের পর প্রকাশ্যে আনা হবে

রেড পাণ্ডা সংসারে নতুন অতিথি

দার্জিলিং চিড়িয়াখানায় এক রেড পাণ্ডা দম্পতি নতুন শাবকের জন্ম দিল। ফলে খুশির হাওয়া চিড়িয়াখানায়। করোনা পরিস্থিতি কাটতেই শাবকটিকে দর্শকদের সামনে আনা হবে বলে জানা গিয়েছে। আপাতত মা ও ছানা দুজনেই সুস্থ রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

কিম্বু ও প্রসন্ন দম্পতির ঘর আলো করে এল সন্তান

সদ্য জন্মানো শাবকটির বাবার নাম কিম্বু। মা এবং ছানা দুজনেই এখন সুস্থ রয়েছে। পদ্মজা নাইডু হিমালয়ান জুওলজিক্যাল পার্কে অধীনে টোপকেদারা ব্রিডিং সেন্টারে রেডপান্ডা শাবকটির জন্ম হয়েছে বলে খবর।

চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের দাবি

চিড়িয়াখানার ডিরেক্টর ধর্মাদেও জানান, এই মুহূর্তে শাবকটি সুস্থ রয়েছে। তাঁরা এই খবরে অত্যন্ত খুশি। গতকাল রেডপান্ডার মা প্রসন্ন একটি ছোট শাবকের জন্ম দিয়েছে। পদ্মজা নাইডু হিমালয়ান জুওলজিক্যাল পার্কে এই নিয়ে এখন রেড পান্ডার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৩। 

রেড পাণ্ডা প্রজননে প্রশংসনীয় ব্রিডিং সেন্টার

পদ্মজা নাইডু হিমালয়ান জুওলজিক্যাল পার্কে আজ রেড পান্ডার জন্ম ঘিরে তৈরি হয়েছে খুশির আবহ। প্রায় বিলুপ্ত হতে-‌‌চলা রেড পান্ডাকে টোপকেদারা ব্রিডিং সেন্টারে সফল প্রজনন ঘটিয়ে গোটা বিশ্বে দার্জিলিং চিড়িয়াখানা নিজের পরিচিতি করে নিয়েছে। এই চিড়িয়াখানার দৌলতেই দার্জিলিঙের সংরক্ষিত বনাঞ্চলে ফিরে এসেছে বিরল প্রজাতির রেড পান্ডা। নতুন করে আরও এক রেড পান্ডা অতিথির আগমনে স্বাভাবিক ভাবেই খুশি প্রকৃতিপ্রেমী থেকে বনকর্তারা। দার্জিলিঙের জঙ্গলে আবার রেডপান্ডা ফিরবে বলে আশাবাদী প্রকৃতিপ্রেমীরা।

পদ্মজা নাইডু পার্কে এই মুহূর্তে উল্লেখযোগ্য প্রাণীরা

এখন এখানে বিপন্নপ্রায় স্নো লেপার্ড, রেড পান্ডা, গোরাল (পাহাড়ি ছাগল), সাইবেরিয়ান বাঘ-‌‌সহ বিভিন্ন প্রজাতির পাখি রয়েছে। পদ্মজা নাইডু হিমালয়ান জুলজিক্যাল পার্কটিকে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বন বিভাগের অধীনে রয়েছে। রেড পান্ডা ছাড়াও দার্জিলিং চিড়িয়াখানায় নীল ভেড়া, হিমালয়ের মোনাল, ধূসর ময়ূর, হিমালয়ের স্যালামান্ডার, তিব্বতীয় নেকড়ে ইত্যাদি প্রাণীও দেখতে পাওয়া যায় এবং প্রজননও করা হয়।

লকডাউনে মন খারাপ চিড়িয়াখানার

লকডাউনে চিড়িয়াখানার কর্তৃপক্ষের মন খারাপ। দর্শকদের হুই হুল্লোড় নেই। আশপাশের হাঁকডাক নেই। চারিদিকে কেমন স্তব্ধ হয়ে রয়েছে। দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ফের অগ্রাধিকারের তালিকায় রেখে চিড়িয়াখানা খোলা হবে বলে জানিয়েছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ।