scorecardresearch
 
 

অনলাইনে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক হবে, বিজ্ঞপ্তি জারি করল বিশ্বভারতী

রাজ্য সরকার মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করেছে। কিন্তু, উল্টো পথে হাঁটল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। তারা বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, অনলাইনে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক নেবে বিশ্বভারতী মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক নেবে বিশ্বভারতী
হাইলাইটস
  • রাজ্য সরকার মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক বাতিল করেছে
  • তবে এই দুটো পরীক্ষায় নেবে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ
  • বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে তারা

রাজ্য সরকার মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিল করেছে। কিন্তু, উল্টো পথে হাঁটল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। তারা বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, অনলাইনে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নেবে। 

বিজ্ঞপ্তিতে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী ৫ জুলাই থেকে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব বিশ্বভারতী বোর্ড থেকে পাঠভবন এবং শিক্ষাসত্রে স্কুল সার্টিফিকেট এগজামিনেশন বা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নিতে চলেছে। অনলাইনে এই পরীক্ষা নেওয়া হবে। এরপরই নেওয়া হবে মাধ্যমিক। সেটাও অনলাইনে।  

আরও পড়ুন : 'অশান্ত' বঙ্গ বিজেপির অন্দরমহল, দিল্লিতে জোর আলোচনা

প্রসঙ্গত, বিশ্বভারতীর ছাত্র–ছাত্রীরা নিজস্ব বোর্ডের অধীনে থেকে স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা ও প্রি–ডিগ্রি এগজামিনেশন দেয়, যেটা মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকের সমতুল্য।

বিশ্বভারতীর জারি করা বিজ্ঞপ্তি
বিশ্বভারতীর জারি করা বিজ্ঞপ্তি

গত ৯ জুন বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা নিয়ে বিভিন্ন ভবন, বিভাগ, সেন্টারের অধ্যক্ষ, অধ্যাপকদের সঙ্গে বৈঠকে বসে। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীও। সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় উচ্চমাধ্যমিক এবং মাধ্যমিক পরীক্ষা অনলাইনে নেওয়া হবে। এরপর বুধবার তা বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে ৫ জুলাই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা শুরুর পরে মাধ্যমিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। 

বিশ্বভারতীর সূত্রে জানা গিয়েছে,  বিশ্বভারতীতে মূলত চারটি স্কুল রয়েছে। আনন্দ পাঠশালা, সন্তোষ পাঠাশালা, পাঠভবন এবং শিক্ষাসত্র। আনন্দ পাঠশালা এবং সন্তোষ পাঠশালাতে প্রথম শ্রেণি থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হয়। পাঠভবন এবং শিক্ষাসত্রে পঞ্চম শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হয়। গতবারও  বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ মাধ্যামিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা অনলাইনে নিয়েছিল।