scorecardresearch
 

Juhi Chawla: 5G Wireless Network প্রয়োগের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ জুহি!

ভারতে 5G মোবাইল প্রযুক্তি প্রয়োগের বিরুদ্ধে মামলা করলেন অভিনেত্রী ও পরিবেশবিদ  জুহি চাওলা (Juhi Chawla)। সোমবার বিচারপতি সি হরিশঙ্করের (Justice C Harishankar) বেঞ্চ এই বিষয়টি পুনরায় শুনে, দিল্লি হাইকোর্টের অন্য একটি বেঞ্চে স্থানান্তর করেন।

বলিউড অভিনেত্রী জুহি চাওলা বলিউড অভিনেত্রী জুহি চাওলা
হাইলাইটস
  • ভারতে 5G মোবাইল প্রযুক্তি প্রয়োগের বিরুদ্ধে মামলা করলেন অভিনেত্রী জুহি চাওলা।
  • সোমবার দিল্লি হাইকোর্টের অন্য একটি বেঞ্চে মামলাটি স্থানান্তর করেন।
  • এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে আগামী ২ জুন।

বলিউড অভিনেত্রী ও পরিবেশবিদ  জুহি চাওলা (Juhi Chawla), রেডিও-ফ্রিকোয়েন্সির (Radio Frequency/ RF) বিকিরণের ক্ষতিকারক প্রভাব সম্পর্কে সক্রিয়ভাবে সচেতনতা বার্তা দিচ্ছেন বহু দিন ধরেই। এবার ভারতে 5G মোবাইল প্রযুক্তি (5G Wireless Network) প্রয়োগের বিরুদ্ধে মামলা করলেন অভিনেত্রী। তিনি মনে করেন, এই 5G প্রযুক্তি মানুষ এবং প্রাণীকে আরএফ রেডিয়েশনের কাছে উন্মোচিত করে, যা বর্তমান সময়ের চেয়ে ১০ থেকে ১০০ গুণ বেশি।

সোমবার বিচারপতি সি হরিশঙ্করের (Justice C Harishankar) বেঞ্চ এই বিষয়টি পুনরায় শুনে, দিল্লি হাইকোর্টের অন্য একটি বেঞ্চে স্থানান্তর করেন। এই মামলাটির পরবর্তী শুনানি হবে আগামী ২ জুন।

এক বিবৃতিতে জুহি চাওলা-র মুখপাত্র বলেছেন যে, " 'যাঁদের অহেতুক আসামি বানানো হয়েছে' তাঁদের নির্দেশনা পাওয়ার জন্য এই মামলাটি প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে, যাতে 5G প্রযুক্তি মানুষ এবং সমস্ত জীবিত প্রাণীদের জন্য নিরাপদ হয়। সেই সঙ্গে যাতে এর ফলে রেডিও-ফ্রিকোয়েন্সি বিকিরণ সম্পর্কিত তাদের গবেষণা তৈরি করতে পারে। ইতিমধ্যে পরিচালিত না হলে, বেসরকারী স্বার্থে অংশগ্রহণ ছাড়া দক্ষ গবেষণাও করা উচিত"

আরও পড়ুন: TRP-র জন্য প্রতিযোগীদের মিথ্যে প্রশংসা করতে হয়, বিস্ফোরক সুনিধি 

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে 5G ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক চালু করার প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার তাগিদে "আমাদের বর্তমান এবং ভবিষ্যত প্রজন্মের স্বাস্থ্যের জন্য উদ্বেগজনক দিকগুলি বিবেচনায় আনতে কিছুটা বিক্ষিপ্ত করেছে। পৃথিবীতে কোনও ব্যক্তি, প্রাণী, পাখি, পোকামাকড় এবং কোনও গাছপালা কোনও দিনই বছরের ৩৬৫ দিন, ২৪ ঘন্টা, আরএফ বিকিরণের মাত্রা এড়াতে সক্ষম হবে না। যেটি বর্তমানে ১০ থেকে ১০০ গুণ বেশি।"

আরও পড়ুন: নয়া বিধি লাগু করতেই হবে, ডিজিটাল মিডিয়াগুলিকে ১৫ দিনের ডেডলাইন কেন্দ্রের 

জুহি চাওলা একটি বিবৃতিতে স্পষ্ট করে বলেছেন যে তারা ওয়্যারলেস যোগাযোগ সহ প্রযুক্তিগত অগ্রগতি বাস্তবায়নের বিরোধী ছিলেন না। তিনি বলেন "আমরা একটি স্থির দ্বিধায় রয়েছি, কারণ তার বিহীন গ্যাজেট এবং নেটওয়ার্ক সেল টাওয়ারগুলি থেকে আরএফ রেডিয়েশনের বিষয়ে নিজস্ব গবেষণা করার পরে, আমাদের বিশ্বাস করার যথেষ্ট কারণ রয়েছে যে সকলের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষার জন্য এই বিকিরণ অত্যন্ত ক্ষতিকারক।"