scorecardresearch
 

Madan Mitra: রচনার পিতার শ্রাদ্ধ, মদন লিখলেন 'পিতামহ'! ট্রোলিং শুরু নেটিজেনদের

Madan Mitra: বাবার শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের আয়োজন করেন অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন উপস্থিত হন মদন মিত্র। নিজের সোশ্যাল পেজে একাধিক ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। এই অবধি তো ঠিক ছিল। কিন্তু বিপত্তি ঘটলো অন্য জায়গায়।

রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাবার শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে মদন মিত্র রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাবার শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে মদন মিত্র
হাইলাইটস
  • গত ১৫ নভেম্বর প্রয়াত অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাবা।
  • যার জেরে 'দিদি নম্বর ১' থেকেও সাময়িক বিরতি নিয়েছেন অভিনেত্রী।
  • তাঁর বাবার শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে হাজির ছিলেন টলিপাড়ার বহু শিল্পী থেকে শুরু করে বিভিন্ন মহলের বিশিষ্টজনেরা। 

গত ১৫ নভেম্বর প্রয়াত অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Rachana Banerjee) বাবা রবীন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়। দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। বাড়িতেই চিকিৎসা হচ্ছিল, কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। যার জেরে 'দিদি নম্বর ১' (Didi No 1) থেকেও সাময়িক বিরতি নিয়েছেন অভিনেত্রী। বৃহস্পতিবার বাবার শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের আয়োজন করেন অভিনেত্রী। হাজির ছিলেন টলিপাড়ার বহু শিল্পী থেকে শুরু করে বিভিন্ন মহলের বিশিষ্টজনেরা। 

এদিন রচনার বাড়ির অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র (Madan Mitra)। নিজের সোশ্যাল পেজে একাধিক ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। এই অবধি তো ঠিক ছিল। কিন্তু বিপত্তি ঘটলো অন্য জায়গায়। ছবির ক্যাপশনে অভিনেত্রীকে বাবাকে তাঁর 'দাদু' বলে সম্বোধন করলেন তিনি। মুহূর্তে সেই ভুল সংশোধন করে দিতে শুরু করলেন নেটিজেনরা। 

মদন মিত্রের পেজ থেকে প্রথমে ছবির ক্যাপশনে লেখা হয়, "রচনা ব্যানার্জির পিতামহের শ্রদ্ধা অনুষ্ঠানে। বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি ও সশ্রদ্ধ প্রণাম।" এই পোস্টের বেশ কিছুক্ষণ পরে ভুল শুধরে নিয়ে লেখা হয়, "রচনা ব্যানার্জির স্বর্গীয় পিতার শ্রদ্ধা অনুষ্ঠানে। বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি ও সশ্রদ্ধ প্রণাম"। 

 

Madan Mitra gets trolled after sharing post on Rachana Banerjee father funeral

 

আরও পড়ুন: 'পরম সুন্দরী' থেকে ডেডলিফট গার্ল! নেটিজেনদের মুগ্ধ করছেন 'হট' জুন আন্টি

ভুল ক্যাপশন দেখেই কেউ প্রশ্ন করেছেন, "পিতা না?' অন্য একজন আবার লিখেছেন, "পিতামহ লয় গো দাদা। ওটা পিতা কর। ওহ লাভলি হয় নী তো।ঠিক করে নাও।" যদিও পরে সেই পোস্ট থেকে অনেক কমেন্ট ডিলিট করে দেওয়া হয়। মদন মিত্রের রয়েছে বহু অনুগামী। তাঁর প্রশংসায় যেমন সকলে কমেন্ট বক্স ভরিয়ে দেন। তেমন সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে, কটাক্ষ করতেও ছাড়লেন না নেটিজেনরা।    

 

 

আরও পড়ুন: TRP: আরও নম্বর বাড়ল 'মিঠাই'-র! চমক দিল 'বরণ', ফিকে 'মন ফাগুন' -র প্রেমের ম্যাজিক

ফেসবুক লাইভ হোক বা রাজনৈতিক মঞ্চ, সর্বক্ষেত্রে সুপারস্টার মদন মিত্র। পশ্চিমবঙ্গের এই বিধায়ক ও  প্রাক্তন মন্ত্রীকে অনেকে আবার 'বাংলার ক্রাশ' বলতে পছন্দ করেন। রাজনীতির বাইরেও বিভিন্ন ক্ষেত্রেও সংবাদের শিরোনামেই থাকেন তিনি। বড়পর্দায় খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে মদন মিত্রের বায়োপিক।