scorecardresearch
 

Nusrat Jahan and Mimi Chakraborty : দলের বৈঠকে গরহাজির কেন? নুসরত-মিমিকে শোকজ TMC-র

Nusrat Jahan and Mimi Chakraborty: সংসদীয় দলের বৈঠকে গরহাজির থাকার জন্য দলের দুই তারকা সাংসদকে শোকজ নোটিশ পাঠল তৃণমূল। মঙ্গলবার নুসরত জাহান (TMC MP Nusrat Jahan) এবং মিমি চক্রবর্তী (TMC MP Mimi Chakraborty)-কে নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরত জাহান (ফাইল ছবি) মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরত জাহান (ফাইল ছবি)
হাইলাইটস
  • সংসদীয় দলের বৈঠকে গরহাজির থাকার জন্য দলের দুই তারকা সাংসদকে শো-কজ নোটিশ পাঠল তৃণমূল
  • মঙ্গলবার নুসরত জাহান এবং মিমি চক্রবর্তীকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে
  • কেন তাঁরা অনুপস্থিত, সে ব্য়াপারে দলকে কিছু জানানো হয়নি

Nusrat Jahan and Mimi Chakraborty: সংসদীয় দলের বৈঠকে গরহাজির থাকার জন্য দলের দুই তারকা সাংসদকে শোকজ নোটিশ পাঠল তৃণমূল। মঙ্গলবার নুসরত জাহান (TMC MP Nusrat Jahan) এবং মিমি চক্রবর্তী (TMC MP Mimi Chakraborty)-কে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। কেন তাঁরা অনুপস্থিত, সে ব্য়াপারে দলকে কিছু জানানো হয়নি।

দিল্লিতে অভিষেক
তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্য়ায় (TMC All India General Secretary Abhishek Banerjee) সোমবার দিল্লি পৌঁছেছেন।

আরও পড়ুন: কবর থেকে বের করলেন বন্ধুর লাশ, তারপর বাইকে শহর ঘুরলেন যুবক

এদিন গান্ধী মূর্তির সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি ছিল দলের। সেখানে অংশ নেন অভিষেক। ছিলেন দলের সাসপেন্ড হওয়া সাংসদরাও।

আরও পড়ুন: ব্লাউজের বদলে পিঠজুড়ে মেহেন্দি, ফ্লাইং কিস দিচ্ছেন এই সুন্দরী, VIRAL

সংসদীয় দলের বৈঠক
এরপর সংসদীয় দলের বৈঠক ছিল। সেখানে পৌরহিত্য করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (TMC All India General Secretary Abhishek Banerjee)। দেখা যায়, দলের দু'জন সাংসদ অনুপস্থিত। সে ব্য়াপারে খোঁজ নেন তিনি। আর তারপরই তাঁদের মানে নুসরত জাহান (TMC MP Nusrat Jahan) এবং মিমি চক্রবর্তী (TMC MP Mimi Chakraborty)-কে শোকজ করা হয়।

আরও পড়ুন: ডিসেম্বরে ব্যাঙ্ক বন্ধ ১১ দিন, ছুটির লিস্ট দেখে নিন

দল সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সংসদের অধিবেশন মোটেই হালকা ভাবে নেওয়া যাবে না। সব সাংসদকে সেই বার্তা দেওয়া হয়েছে। দলের সব সাংসদ যাতে সংসদের অধিবেশন উপস্থিত থাকেন, সে ব্যাপারে নিশ্চিত করতে হবে। কারণ বিভিন্ন ইসুতে বিজেপির ওপর চাপ বাড়াতে চায় তৃণমূল।

কংগ্রেসকে তোপ অভিষেকের
কংগ্রেসের অভিযোগ, তৃণমূল ইউপিএ, কংগ্রেসকে ভাঙছে। এ ব্য়াপারে অভিষেক বলেন, কংগ্রেস কী জন্য বলছে সেটা দেখা দরকার। আমিও একই অভিযোগ করতে পারি। কংগ্রেস বাংলার বিধানসভা ভোটে বিজেপিকে সাহায্য করেছে। দেশ কংগ্রেসের ওপর ভরসা করেছিল। তবে বিরোধী হিসেবে তারা ব্যর্থ। সংসদের ভেতরে এবং বাইরে। 

তিনি আরও বলেন, তৃণমূলের অন্য কোনও রাজ্যে যাওয়ার অধিকার নেই, এমনটা নয়। আপনি যা করবেন, তাই পাবেন। এক রাজ্য়ের মুখ্যমন্ত্রী অন্য রাজ্যে গেলে, অন্য রাজ্য়ের মন্ত্রী আর এক রাজ্যে গেলে, সমস্যা কোথায়? 

 

 
; ; ;