scorecardresearch
 
ধর্ম

PHOTOS : এখানে হোলিতে পুরুষদের লাঠিপেটা করেন মহিলারা, দেখুন

হোলি সমগ্র ভারত জুড়ে মহা আড়ম্বরে পালিত হয়
  • 1/10

Holi: রঙের উত্সব হোলি সমগ্র ভারত জুড়ে মহা আড়ম্বরে পালিত হয়। কিন্তু দেশের সবচেয়ে বিখ্যাত হোলি হল 'কৃষ্ণ নগরীর' হোলি। মথুরা এবং এর আশেপাশের এলাকায়, যাকে কৃষ্ণ নগরী বলা হয়। হোলির অনেক আগে থেকে হোলির উত্সব শুরু হয় এখানে, যা রংপঞ্চমী পর্যন্ত চলতে থাকে।
(All Image credits: Getty Images)
 

 দেশ-বিদেশের বহু পর্যটক হোলি উদযাপন করতে এখানে আসেন
  • 2/10

মথুরা, বৃন্দাবন এবং বরসানার হোলিতে মানুষ রাধা-কৃষ্ণের ভক্তিতে লীন হয়ে যায়। দেশ-বিদেশের বহু পর্যটক হোলি উদযাপন করতে এখানে আসেন। কিন্তু এবার কোভিড প্রোটোকলের জন্য আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকায় বিদেশি পর্যটকদের ভিড় কম হবে।
 

হোলিতে এই শহরগুলি নানান রঙে রঙিন হয়ে যায়
  • 3/10

সারা বিশ্ব থেকে মানুষ প্রতি বছর হোলি উদযাপন করতে মথুরা, বৃন্দাবন এবং বারসানায় আসে। হোলিতে এই শহরগুলি নানান রঙে রঙিন হয়ে যায়। ভেদাভেদ মুছে সকল মানুষ একে অপরের গায়ে রঙ 'গুলাল' মেখে হোলি উৎসব উদযাপন করে। ভক্তরা মন্দিরে গিয়ে ভগবানের স্তোত্র পাঠ, শ্রবণ করা এবং ভক্তিতে হারিয়ে যনয়। সেই সঙ্গে ভগবানের বিশেষ সজ্জাও করানো হয় এবং সেই সঙ্গে ফুল ও রং দিয়ে হোলি খেলা হয়।
 

ব্রজবাসীদের হোলি উদযাপনের নিজস্ব পদ্ধতি রয়েছে
  • 4/10

ব্রজবাসীদের হোলি উদযাপনের নিজস্ব পদ্ধতি রয়েছে। কোথাও ফুলের হোলি, কোথাও আবির রঙ, কোথাও লাড্ডু। এমনকি কোথাও কোথাও লাঠমার হোলি পালনের প্রথা রয়েছে। বিশ্ববিখ্যাত লাঠমার হোলি হোলিকা দহনের পাঁচ দিন আগে বরসানায় পালিত হয়। এই লাঠমার হোলিতে, মহিলারা, যাদেরকে হুরিয়ারিন বলা হয়, তারা লাঠি হাতে নিয়ে হুরিয়ারদের অর্থাৎ পুরুষদের মারেন।
 

এই লাঠমার হোলিতে অনেক মানুষ উৎসাহের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেন
  • 5/10

এই লাঠমার হোলিতে অনেক মানুষ উৎসাহের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেন। পুরুষরা তাদের মাথায় ঢাল রেখে হুরিয়ারিনদের লাঠি থেকে নিজেদের রক্ষা করেন।
 

কথিত আছে, এই ঐতিহ্য পাঁচ হাজার বছরেরও আগে শুরু হয়েছিল
  • 6/10

কথিত আছে, এই ঐতিহ্য পাঁচ হাজার বছরেরও আগে শুরু হয়েছিল। গ্রন্থে উল্লেখ আছে যে, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ যখন ব্রজ ত্যাগ করে দ্বারকায় যান এবং তারপর আবার যখন তিনি বারসানায় ফিরে আসেন, তখন ব্রজে হোলির সময় ছিল। কৃষ্ণের বিচ্ছেদ দেখে দুঃখিত, রাধা এবং তার বন্ধুরা তার ফিরে আসার জন্য তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন।
 

লাঠমার হোলি
  • 7/10

রাধা এবং তার সমস্ত বন্ধুরা চেয়েছিল যে কৃষ্ণ কখনই তাদের থেকে দূরে থাকবেন না, তাই কৃষ্ণ যখন তাদের বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন, তখন রাধা এবং তার বন্ধুরা তাদের প্রেমময় রাগ প্রকাশ করে কৃষ্ণের সঙ্গে লাঠমার হোলি খেলেন।
 

 বরসানায় অনুষ্ঠিত লাঠমার হোলিতে, হুরিয়ারিরা রাধার বন্ধুর রূপে থাকে
  • 8/10

বরসানা রাধারাণীর গ্রাম এবং নন্দগাঁওয়ে নন্দবাবার বাড়ি হওয়ার কারণে কৃষ্ণের গ্রাম নামেও পরিচিত। বরসানায় অনুষ্ঠিত লাঠমার হোলিতে, হুরিয়ারিরা রাধার বন্ধুর রূপে থাকে এবং হুরিয়ারা যারা নন্দগাঁও থেকে বরসানায় হোলি খেলতে আসে তারা কৃষ্ণের গোপালের চেতনায় এখানে আসে।
 

বরসানা রাধারাণীর গ্রাম
  • 9/10

বরসানা রাধারাণীর গ্রাম এবং নন্দগাঁওয়ে নন্দবাবার বাড়ি হওয়ার কারণে কৃষ্ণের গ্রাম নামেও পরিচিত। বরসানায় অনুষ্ঠিত লাঠমার হোলিতে, হুরিয়ারিরা রাধার বন্ধুর রূপে থাকে এবং হুরিয়ারা যারা নন্দগাঁও থেকে বরসানায় হোলি খেলতে আসে তারা কৃষ্ণের গোপালের চেতনায় এখানে আসে।
 

ঐতিহ্যবাহী লেহেঙ্গা-ধুতির পোশাক পরা হুরিয়ারিনরা, হোলি খেলতে আসেন।
  • 10/10

এতে, ঐতিহ্যবাহী লেহেঙ্গা-ধুতির পোশাক পরা হুরিয়ারিনরা, হোলি খেলতে আসেন। প্রথমে, নন্দগাঁওয়ের হুরিয়ারা হোলি খেলতে বারসানায় আসেন এবং পরের দিন নন্দগাঁওতে একই প্রথার পুনরাবৃত্তি হয়। তবে বরসানার পুরুষরা নন, নন্দগাঁও যান শুধু মহিলারা।
 

 
; ; ;