scorecardresearch
 

Gangasagar 2021: 'সব তীর্থ বারবার, গঙ্গাসাগর একবার'! চলছে সাগরে পূণ্যস্নান

বাংলা সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উৎসব পৌষ পার্বণ (Poush Parbon) বা মকর সংক্রান্তি (Makar Sanranti)। পৌষ মাসের শেষ দিন পালন করা হয়। তবে এই উৎসবকে ঘিরে রয়েছে অনেক লোককথা। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার সাগরদ্বীপে প্রত্যেক বছর আয়োজন হয় গঙ্গাসাগর মেলার (Gangasagar Mela)। কপিল মুনির আশ্রমকে (Kapil Muni Ashram) কেন্দ্র করে পুণ্যস্নান ও বিরাট মেলা অনুষ্ঠিত হয়। গঙ্গাসাগরে পবিত্র স্নান করতে দূর দূরান্ত থেকে আসেন লক্ষ লক্ষ পুণ্যার্থী। কথায় বলে 'সব তীর্থ বারবার, গঙ্গাসাগর একবার'! জানেন এর কারণ কি?

গঙ্গাসাগর মেলায় কপিল মুনির আশ্রম গঙ্গাসাগর মেলায় কপিল মুনির আশ্রম
হাইলাইটস
  • গঙ্গাসাগর মেলা ঘিরে রয়েছে অনেক লোককথা।
  • কপিল মুনির আশ্রমকে কেন্দ্র করে পুণ্যস্নান ও বিরাট মেলা অনুষ্ঠিত হয়।
  • 'সব তীর্থ বারবার, গঙ্গাসাগর একবার'!

বাংলা সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উৎসব পৌষ পার্বণ (Poush Parbon) বা মকর সংক্রান্তি (Makar Sanranti)। পৌষ মাসের শেষ দিন পালন করা হয়। তবে এই উৎসবকে ঘিরে রয়েছে অনেক লোককথা। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার সাগরদ্বীপে প্রত্যেক বছর আয়োজন হয় গঙ্গাসাগর মেলার (Gangasagar Mela)। কপিল মুনির আশ্রমকে (Kapil Muni Ashram) কেন্দ্র করে পুণ্যস্নান ও বিরাট মেলা অনুষ্ঠিত হয়। গঙ্গাসাগরে পবিত্র স্নান করতে দূর দূরান্ত থেকে আসেন লক্ষ লক্ষ পুণ্যার্থী। কথায় বলে 'সব তীর্থ বারবার, গঙ্গাসাগর একবার'! জানেন এর কারণ কি?

গঙ্গা নদী ও বঙ্গোপসাগরের মিলিত স্থানকে বলা হয় গঙ্গাসাগর। এটি একাধারে যেমন তীর্থভূমি, আবার অন্যদিকে মেলাভূমি। এই দুইয়ের মেলবন্ধনেই গঙ্গাসাগর মেলা। কুম্ভ মেলার পর গঙ্গাসাগর মেলা দ্বিতীয় বৃহত্তম হিন্দু মেলা। বাংলার বাইরে ও বিহার উত্তর প্রদেশ ও অন্যান্য রাজ্য থেকেও প্রতিবছর লক্ষ লক্ষ পুণ্যার্থীরা পবিত্র তীর্থস্থান লাভের আশায় ভিড় জমান। 

আর পড়ুন: Gangasagar 2021: গঙ্গাসাগর মেলায় অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট, গুরুত্ব e-স্নানেই

একসময় গঙ্গাসাগরের পথ ছিল অত্যন্ত বিপদসংকুল ও দুর্গম। একদিকে যেমন ছিল সাগরে নৌকাডুবি হওয়ার ভয়, অন্যদিকে ছিল জলদস্যু। পৌষ মাসের শেষ দিকে কনকনে ঠান্ডা তার সঙ্গে খাবার জলের অভাবেও হত সাগরে। বহু কষ্টে পৌঁছে গেলেও একাধিক অসুবিধায় পড়তেন পুণ্যার্থীরা।

যুগ যুগ ধরে বিশ্বাস, গঙ্গাসাগরে যে একবার স্নান করে সে জীবনের সব পাপ থেকে মুক্ত হয় এবং লাভ হবে পরম মোক্ষ। পুরাণ মতে, প্রয়াগে মৃত্যু হলে, বেনারসের গঙ্গা যাওয়ার পথে জলে বা স্থলে মৃত্যু হলে মোক্ষ লাভ হয়। তবে গঙ্গাসাগরের জলে-স্থলে-অন্তরীক্ষে যদি মৃত্যু হয় তাহলে সেই মহামুক্তি মেলে। অন্যান্য তীর্থস্থানে মোক্ষ লাভ হলেও এই স্থানে মহা মুক্তির আশায়  লক্ষ লক্ষ পুণ্যার্থীরা ভিড় জমান।

আর পড়ুন: Makar Sankranti 2021: জয়দেব-কেন্দুলিতে বসছে না মেলা, মন খারাপ বাউলদের একাংশের

গঙ্গাসাগরের কপিল মুনি আশ্রমকে নিয়ে রয়েছে নানা লোককথা ও ইতিহাস। বেশিরভাগ বছর মকর সংক্রান্তির দিন অপরিবর্তিত থাকে। ২০২১ সালে মকর সংক্রান্তি পড়েছে ১৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার। ধনু থেকে মকরে রবির অর্থাৎ সূর্যের প্রবেশ ঘিরে এই দিনটি বিশেষভাবে উদযাপিত হয় হিন্দু মতে। সকাল ৮.৩০ থেকে বিকেল ৫.৪৬ মিনিট পর্যন্ত রয়েছে পুণ্য কাল। আর মহা পূণ্য কাল রয়েছে সকাল ৮.৩০ মিনিট থেকে ১০.১৫ মিনিট পর্যন্ত। এই দিন পুণ্যলাভের আশায় তাই সাগরে মিলিত হন পুণ্যার্থীরা।