scorecardresearch
 

Shani Jayanti 2022: শনি জয়ন্তীতে তৈরি হচ্ছে ২ শুভ কাকতালীয় যোগ! এই কাজগুলিতে তুষ্ট হবেন গ্রহরাজ

Shani Dev: শনি জয়ন্তীর পাশাপাশি এই দিনে সোমবতী অমাবস্যাও রয়েছে। এটি বছরের শেষ সোমবতী অমাবস্যা। এদিন নদীতে স্নান করে দান করলে পুণ্য লাভ হয়।

গ্রহরাজ শনিদেব গ্রহরাজ শনিদেব

জ্যৈষ্ঠ মাসের অমাবস্যায় শনি জয়ন্তী (Shani Jayanti) পালিত হয়। এবার শনি জয়ন্তীতে দুটি বিশেষ যোগ তৈরি হচ্ছে। শনি জয়ন্তীর পাশাপাশি এই দিনে সোমবতী অমাবস্যাও (Somvati Amavasya) রয়েছে। এটি বছরের শেষ সোমবতী অমাবস্যা। এদিন নদীতে স্নান করে দান করলে পুণ্য লাভ হয়। শনিদেব জ্যৈষ্ঠ অমাবস্যায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন, তাই প্রতি বছর জ্যৈষ্ঠ অমাবস্যায় শনি জয়ন্তী পালিত হয়। আগামী ৩০ মে সোমবার শনি অমাবস্যা পালিত হবে।

শনি জয়ন্তীতিতে শুভ যোগ (Shani Jayanti Subho Yoga)

শনি জয়ন্তীতে দুটি শুভ যোগ তৈরি হচ্ছে। এদিন সুকর্ম যোগ গঠিত হচ্ছে। এছাড়াও সর্বার্থ সিদ্ধি যোগও গঠিত হচ্ছে। এই শুভ দিনে শনিদেবের আরাধনা করলে সমস্ত মনোবাঞ্ছা পূর্ণ হয়। কারণ সর্বার্থ সিদ্ধি যোগ কর্মে সাফল্য দিতে পারে।

আরও পড়ুন:  বাড়িতে এই ৫ গাছ লাগালে অর্থের অভাব হবে না! তবে এই ভুলগুলি এড়িয়ে চলুন


কখন শুভ যোগ? (Shani Jayanti Subho Muhurat)

এবার সর্বার্থ সিদ্ধি যোগ শনি জয়ন্তীর দিন সকাল ০৭.১২ থেকে শুরু হবে এবং ৩১ মে মঙ্গলবার সকাল ৫.২৪ পর্যন্ত থাকবে। আপনি যদি শনি জয়ন্তীতে শনিদেবকে খুশি করতে চান তবে এই শুভ সময় পুজো করা আপনার জন্য খুব শুভ হবে।

আরও পড়ুন:  অস্ত যাবে বুধ! কুম্ভ সহ এই ৩ রাশির খারাপ সময় আসছে

এছাড়াও সকাল থেকে রাত ১১.৩৯ পর্যন্ত থাকবে সুকর্ম যোগ থাকছে। এই যোগ যে কোনও কাজের জন্য অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়। এছাড়া পুজোর শুভ সময় সকাল ১১.৫১ থেকে দুপুর ১২.৪৬ মিনিট পর্যন্ত।

শাস্ত্র মতে পুজোর নিয়ম (Shani Jayanti Puja)

শনি জয়ন্তীতে শনিদেবের বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। এদিন ভোরে ঘুম থেকে উঠে স্নান সেরে, শনিদেবের প্রতিমাতে তেল, ফুলের মালা ও প্রসাদ অর্পণ করুন। তাঁর পায়ে কালো অড়হর ডাল ও তিল নিবেদন করুন। এরপর তেলের প্রদীপ জ্বালিয়ে শনি চালিসা পাঠ করুন। এদিন উপবাস করলেও শনিদেবের বিশেষ আশীর্বাদ পাওয়া যায়। শনি জয়ন্তীর দিন গরিবকে খাওয়ালে খুব শুভ ফল পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন: সামনেই জামাইষষ্ঠী! জানুন কবে পড়েছে এবছরের জামাই আদরের বিশেষ দিন?

কথিত আছে এই দিনে দান করলে জীবনের সকল কষ্ট দূর হয়। সাধারণত শনিদেবকে নিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা যায়। এমন অনেক বিশ্বাস আছে যে, শনিদেব শুধুমাত্র মানুষের ক্ষতি করেন। কিন্তু আসলে শাস্ত্র অনুসারে, শনিদেব ব্যক্তির কর্ম অনুসারে তার শাস্তি নির্ধারণ করেন। শনির অর্ধশতক এবং ঢাইয়া একজন ব্যক্তিকে তার কর্মের ভিত্তিতেই ফল দেয়।