scorecardresearch
 

7th Pay Commission: বাড়ছে বেতন, বাড়ির তৈরির অগ্রিম ৩০ লাখ! সরকারি কর্মীদের ডাবল উপহার?

সরকারি কর্মীদের বেতন মূল্যায়নের জন্য প্রতি ১০ বছর অন্তত বেতন কমিশন গঠন করা হয়। তার এখনও এক বছর বাকি। সূত্রের খবর,তার আগে কর্মচারীদের বেতন সংশোধনের জন্য সরকার একটি নতুন ফর্মুলা আনতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। তা ঘোষণা হতে পারে আসন্ন বাজেটে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি বাজেট ঘোষণা করতে চলেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।  

বাজেটে ডাবল ঘোষণা? বাজেটে ডাবল ঘোষণা?
হাইলাইটস
  • বাজেট নিয়ে আশায় সরকারি কর্মীরা।
  • বেতন বৃদ্ধি-সহ একাধিক ঘোষণা হতে পারে শীঘ্রই।

২০২৪ সালে লোকসভার ভোট। তার আগে এটাই দ্বিতীয় মোদী সরকারের তৃতীয় বাজেট। বাজেটের আগে আশায় কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা। কারণ তাঁদের জন্য থাকতে পারে জোড়া উপহার। মাইনে বাড়ার পাশাপাশি এইচবিএ ভাতা নিয়েও বড় খবর আসতে পারে। প্রতিবছর জানুয়ারি ও জুন মাসে বাড়ে মহার্ঘ ভাতা। এ বছর কতটা বাড়তে পারে ভাতা? সূত্রের খবর, ৩ শতাংশ বাড়ানো হতে পারে ডিএ। সেই সঙ্গে সরকারি কর্মীদের বেতনবৃদ্ধির নতুন ফর্মুলাও ঘোষণা করতে পারে কেন্দ্র।           

সরকারি কর্মীদের বেতন মূল্যায়নের জন্য প্রতি ১০ বছর অন্তত বেতন কমিশন গঠন করা হয়। তার এখনও এক বছর বাকি। সূত্রের খবর,তার আগে কর্মচারীদের বেতন সংশোধনের জন্য সরকার একটি নতুন ফর্মুলা আনতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। তা ঘোষণা হতে পারে আসন্ন বাজেটে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি বাজেট ঘোষণা করতে চলেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।  

বেতন বাড়ানোর নতুন ফর্মুলা কী?

বর্তমানে, প্রতি ১০ বছরে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য একটি বেতন কমিশন গঠন করা হয়। ২০১৪ সালে সপ্তম বেতন কমিশন গঠিত হয়েছিল। এতে ফিটমেন্ট ফ্যাক্টরের ভিত্তিতে মূল বেতন বাড়ানো হয়েছিল কর্মচারীদের। কর্মীদের ক্ষোভ, এই ফর্মুলায় আমলারই উপকৃত হয়েছেন। সাধারণ কর্মীরা লাভবান হননি। তৎকালীন অর্থমন্ত্রী প্রয়াত অরুণ জেটলির কাছেই বিষয়টি বিবেচনার জন্য আবেদন করেছিল সরকারি কর্মীদের সংগঠন। ফলে ফিটমেন্ট ফ্যাক্টরের বদলের কথা থাকতে পারে বাজেটে।  

বর্তমানে সরকারি কর্মীদের ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর ২.৫৭। তা বাড়িয়ে ৩.৬৮ শতাংশ করার দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা। সেই হিসেবেই বাড়ানো হলে হিসাবটা এমন দাঁড়াবে- বর্তমানে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ন্যূনতম বেতন ১৮ হাজার টাকা। ফিটমেন্ট ফ্যাক্টর বাড়ানোর পর ২৬,০০০ টাকা। সরকারি কর্মীরা পান ১৮,০০০ X ২.৫৭ = ৪৬,২৬০। ৩.৬৮ শতাংশ হলে ন্যূনতম বেতন ২৬ হাজার টাকা। বেতন হবে ২৬,০০০ X ৩.৬৮ = ৯৫৬৮০ টাকা।

অগ্রিম ভাতা ৩০ লাখ

বাজেটে কর্মচারীদের জন্য দ্বিতীয় বড় ঘোষণা,  হাউস বিল্ডিং অ্যালাউন্স (HBA) সংক্রান্ত। বর্তমানে বাড়ি নির্মাণ বা মেরামতের জন্য সরকার অগ্রিম হিসাবে যে অর্থ প্রদান করছে তার সুদের হার ৭.১%। এখন কর্মচারীরা ২৫ লাখ পর্যন্ত অগ্রিম নিতে পারে। সেই পরিমাণ ৩০ লাখে চলে যেতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। তবে সুদের হার ৭.১% থেকে ৭.৫% হতে পারে।

মহার্ঘ ভাতা

বাজেটে মহার্ঘ ভাতা নিয়ে কোনও ঘোষণা থাকার সম্ভাবনা নেই। বরং সেই সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত হতে পারে বাজেটের পর মার্স মাসে। মার্চে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে মহার্ঘ ভাতা ৩ শতাংশ বাড়ানো হতে পারে বলে খবর। সেক্ষেত্রে সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতার পরিমাণ দাঁড়াবে ৪১ শতাংশ। তা কার্যকর হবে ১ জানুয়ারি থেকেই। 

আরও পড়ুন- বাম্পার কামাই হতে পারে রতন টাটার সংস্থায়, ১৯ বছর পর আসছে সুযোগ