scorecardresearch
 

Paytm-এর ক্ষতি সাড়ে ৮ শো কোটি, মাথায় হাত লগ্নিকারীদের

শেষ ত্রৈমাসিকের হিসেবে Paytm কোম্পানির ক্ষতি ৪৮১ কোটি টাকার বেশি হয়ে গিয়েছে। যা লগ্নিকারীদের রাতের ঘুম উড়িয়ে দিয়েছে। কীভাবে হবে ক্ষতিপূরণ তা ভেবেই দুঃশ্চিন্তা।

paytm এ ক্ষতি paytm এ ক্ষতি
হাইলাইটস
  • সাড়ে আটশো কোটির ক্ষতি
  • লগ্নিকারীদের মাথায় হাত
  • দুশ্চিন্তায় ভুগছেন লগ্নিকারীরা

দেশের মধ্যে এখনও পর্যন্ত সবচয়ে বড় IPO আনা কোম্পানি Paytm আর্থিক বর্ষ ২০২১-২২ এর দ্বিতীয় ভাগ এবং প্রথম ভাগের আর্থিক লাভ-ক্ষতির হিসেব পেশ করেছে। আর তা দেখেই চোখ কপালে উঠেছে লগ্নিকারীদের। কারণ কোম্পানি যে ক্ষতির হিসেব দিয়েছে তা সামান্য পরিমাণ নয়।

যদি শেষ ত্রৈমাসিকের হিসেব করি, তাহলে কোম্পানির ক্ষতি ৪৮১ কোটি টাকার বেশি হয়ে গিয়েছে। এর আগের ত্রৈমাসিকে ক্ষতির পরিমাণ ছিল ৩৭৬ কোটি টাকা। ফলে ামাদের হিসেবে কোম্পানির মোট ক্ষতি হয়েছে সাড়ে ৮০০ কোটি টাকার বেশি। গত বছর এই সময়কাল পর্যন্ত কোম্পানির ক্ষতির পরিমাণ ছিল ৭২৩ কোটি টাকার সামান্য বেশি।

ক্ষতি যেমন বেড়েছে, তেমনই কোম্পানির মোট আয়ও বেড়েছে। হিসেবে তাও দেখানো হয়েছে। শেষ ত্রৈমাসিকে আয় ১৯.৬২ শতাংশ বেড়ে ১১৩৪.৫ শতাংশ বেড়েছে। পাশাপাশি এপ্রিল-সেপ্টেম্বর ত্রৈমাসিকে আয়ের পরিমাণ বেড়ে ২০৮২.৫ কোটি টাকা হয়েছে।

পেটিএম এর শেয়ার গত ১০ বছরে সবচেয়ে খারাপ লিস্টিংওয়ালা শেয়ার হিসেবে গণ্য হয়েছে। পেটিএম কর্ত-পক্ষ নিজেদের শেয়ারের দাম ২১২০  টাকা ধার্য করেছিল। যা লিস্টিংয়ের দিন ২৭ শতাংশ পড়ে গিয়ে বন্ধ হয়ে যায়। কোম্পানি পরিণামের কথা ঘোষণা করার পর তার নিম্নগতি জারি রয়েছে। কোম্পানির শেয়ার ইস্যু প্রাইস থেকে ১৭ শতাংশ নীচে চলছে।

বিসনেস ট্রেডের খবর অনুযায়ী পেটিএম ব্যবসায় নিবেশকদের সবচেয়ে বড় চিন্তা পেমেন্ট বিজনেসে মার্জিন কম হয়ে যাওয়া। পাশাপাশি এর কম্পিটিশন মার্কেট অত্যন্ত বেশি। কিন্তু এখন কোম্পানি ধার দেওয়া, নিবেশ, ব্রোকিং, ওয়েল্থ ম্যানেজমেন্টে জোর দিচ্ছে। পাশাপাশি ইনসুরেন্স বিজনেসেও কাজ শুরু করছে। যা শেয়ার হোল্ডারদের কাছে একটা ভাল খবর।