scorecardresearch
 

Vijay Mallya: বিজয় মালিয়ার ৪ মাসের জেল, দু'হাজার টাকা জরিমানা, নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

পলাতক ব্যবসায়ী বিজয় মালিয়ার সাজা ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট। তাঁকে আদালত অবমাননার দায়ে ৪ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে দু'হাজার টাকা জরিমানা। অনাদায়ে আরও ২ মাস থাকতে হবে জেলে।

বিজয় মালিয়া- ফাইল ছবি। বিজয় মালিয়া- ফাইল ছবি।
হাইলাইটস
  • বিজয় মালিয়ার সাজা ঘোষণা।
  • সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অবমাননার দায়ে কারাদণ্ড।

পলাতক বিজয় মালিয়াকে ৪ মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। সেই সঙ্গে ২ হাজার টাকা জরিমানা। জরিমানা না দিলে অতিরিক্ত ২ মাস জেলে কাটাতে হবে মালিয়াকে। শুধু তাই নয় বিদেশে পাঠানো ৪০ মিলিয়ন ডলার ৪ সপ্তাহের মধ্যে মেটাতে হবে পলাতক শিল্পপতিকে। 

তথ্য গোপন এবং আদালত অবমাননার দায়ে মালিয়াকে ২ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৪ মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ইউইউ ললিত, রবীন্দ্র ভাট এবং বিচারপতি সুধাংশু ধুলিয়ার বেঞ্চ। জরিমানা সময়মতো জমা না দিলে মালিয়াকে আরও দু'মাস জেলে থাকতে হবে। ২০১৭ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অগ্রাহ্য করে সন্তানদের প্রায় ৩১৭ কোটি ৬৩ লক্ষ টাকা পাঠিয়েছিলেন মালিয়া। সেই টাকা ৮ শতাংশ সুদে চার সপ্তাহের মধ্যে ফেরত দিতে তাঁকে। অনাদায়ে বিজয় মালিয়ার সম্পত্তি বেচে টাকা তুলবে পাওনাদার সংস্থাগুলি। 

ব্য়াঙ্কগুলির কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা ঋণ নিয়ে বিদেশে পালিয়েছিলেন মালিয়ার। ৯ হাজার কোটি টাকা ঋণখেলাপি করেছেন। এরপর নিজের সম্পত্তির সম্পূর্ণ খতিয়ান পাওনাদার ব্যাঙ্কগুলির কাছে তিনি গোপন করেছিলেন বলে অভিযোগ। ২০১৭ সালের ১০ জুলাই বিজয় মালিয়াকে আদালতে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। ব্যাঙ্কগুলি অভিযোগ করে, ২০১৭ সালে কর্নাটক হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে ছেলে সিদ্ধার্থ ও মেয়ে লীনাকে ৪০ মিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছিলেন মালিয়া।

৫ বছর আগে আদালত অবমাননার অভিযোগে মালিয়ার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা শুরু হয়েছিল। দেশের শীর্ষ আদালত জানায়, মালিয়া তথ্য গোপন করেছেন। একইসঙ্গে কর্নাটক হাইকোর্টের নির্দেশও লঙ্ঘন করে টাকা বিদেশে পাঠিয়েছেন। উল্লেখ্য,২০১৬ সালের মার্চ থেকে লন্ডনেই আছেন বিজয় মালিয়া। 


আরও পড়ুন- কামানোর বিরাট সুযোগ, ১৮ বছর পর আইপিও আনার পরিকল্পনা টাটার