scorecardresearch
 
 

CBSE Class 12: দশম-একাদশের নম্বরের ভিত্তিতে মূল্যায়ন, রেজাল্ট ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে

CBSE Class 12 Result| সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রের অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, দশম শ্রেণির ৫টি বিষয়ের মধ্যে ৩টি বিষয়ের সবচেয়ে বেশি নম্বরগুলি নেওয়া হবে, এই ভাবেই একাদশ শ্রেণির ৫টি বিষয়ের সর্বোচ্চ নম্বর নেওয়া হবে ও দ্বাদশের প্রি-বোর্ড পরীক্ষার প্র্যাক্টিক্যালের নম্বর নেওয়া হবে।

ছবিটি প্রতীকী ছবিটি প্রতীকী
হাইলাইটস
  • ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে হবে ফল ঘোষণা
  • ইউনিট, টার্ম প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার ফলও থাকবে নজরে।

CBSE Evaluation 2021|CBSE বোর্ডের দ্বাদশ শ্রেণির রেজাল্টের বিষয়টি দেখভালের জন্য গঠিত ১৩ সদস্যের কমিটি আজ অর্থাত্‍ বৃহস্পতিবার রিপোর্ট জমা দিল সুপ্রিম কোর্টে। সিবিএসই-র তরফে বলা হয়েছে, দশম, একাদশ ও দ্বাদশের নম্বরের ভিত্তিতে দ্বাদশের ফাইনাল রেজাল্ট তৈরি হবে। 

সিবিএসই জানিয়েছে, ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে হবে ফল ঘোষণা। ৩০ শতাংশ ওয়েটেজ থাকবে দশম শ্রেণির পারফরমেন্সে। ৪০ শতাংশ ওয়েটেজ থাকবে একাদশ ও দ্বাদশের পারফরমেন্সে। ইউনিট, টার্ম প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার ফলও থাকবে নজরে। 

সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রের অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, দশম শ্রেণির ৫টি বিষয়ের মধ্যে ৩টি বিষয়ের সবচেয়ে বেশি নম্বরগুলি নেওয়া হবে, এই ভাবেই একাদশ শ্রেণির ৫টি বিষয়ের সর্বোচ্চ নম্বর নেওয়া হবে ও দ্বাদশের প্রি-বোর্ড পরীক্ষার প্র্যাক্টিক্যালের নম্বর নেওয়া হবে। দশম শ্রেণির নম্বরের ৩০ শতাংশ, দ্বাদশের ৩০ শতাংশ ও দ্বাদশের ৪০ শতাংশের ভিত্তিতে তৈরি করা হবে রেজাল্ট।

কী ভাবে রেজাল্ট?

সিবিএসই জানিয়েছে, যে মূল্যায়ন হবে তার ৪০ শতাংশ নম্বর দেওয়া হবে প্রি-বোর্ড পরীক্ষার ভিত্তিতে। এর মধ্যে দ্বাদশ শ্রেণির ইউনিট পরীক্ষা, টার্ম পরীক্ষা এবং প্র্যাক্টিক্যাল পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের গড়ও রয়েছে। একাদশ শ্রেণির চূড়ান্ত পরীক্ষায় সব চেয়ে বেশি নম্বর পাওয়া তিনটি বিষয়ের ফলাফলের ভিত্তিতে ৩০ শতাংশ নম্বর দেওয়া হবে। দশম শ্রেণির ক্ষেত্রেও একই নিয়ম। এ ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া তিনটি বিষয়ের প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ৩০ শতাংশ নম্বর দেওয়া হবে। এই তিনটি পরীক্ষার ফলাফল মিলিয়ে তবে প্রস্তুত হবে দ্বাদশের চূড়ান্ত ফলাফল। আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে যে ফল হাতে পাবে পড়ুয়ারা।

করোনা পরিস্থিতির কারণে চলতি সিবিএসই-র দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কী ভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের মূল্যায়ন হবে, তা নিয়ে একটি মামলা হয় সুপ্রিম কোর্টে। পরীক্ষা বাতিল করার সিদ্ধান্তে শীর্ষ আদালত সহমত হলেও জানতে চায়, ছাত্রছাত্রীদের মূল্যায়নের পদ্ধতি কী হবে, তা স্পষ্ট করে জানানো হোক আদালতে।