scorecardresearch
 
পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন

PHOTOS: ডোমজুড়ে রিক্সাচালকের বাড়িতে ভোজন অমিত শাহের, সঙ্গী রাজীবও

Amit Shah Lunch
  • 1/10

তৃতীয় দফার ভোট গ্রহণের পরের দিন বঙ্গ সফরে এসেছেন মোদীর সেনাপতি অমিত শাহ। এদিন পরপর চারটি কর্মসূচী রয়েছে শাহের। যার সূচনা হয়েছিল সিঙ্গুরে রোড শো দিয়ে৷ দ্বিতীয়টি  ছিল ডোমজুড়ে৷ যেখানে বিজেপির প্রার্থী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।
 

Amit Shah Lunch
  • 2/10

ডোমজুড়ে রোড শেষে করেই বিজেপি প্রার্থী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে শাহ হাজির হন হাওড়া জেলার চামরাইলের মন্ডলপাড়ায় বাসিন্দা শিশির সানার বাড়িতে।

Amit Shah Lunch
  • 3/10

প্রতিবার রাজ্য সফরে এসে পিছিয়ে পড়া দলিত শ্রেণির বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ করতে দেখা যায় শাহকে। এবার এক রিক্সাচালকের বাড়ি দুপুরের আহার সারলেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

Amit Shah Lunch
  • 4/10

 পেশায় রিক্সাচালক শিশির সানা বিজেপি সমর্থক বলেই জানা যাচ্ছে । তবে পদ্ম শিবিরের কর্মী হিসেবে তাঁকে সেভাবে রাজনীতির ময়দানে দেখা যায়নি। 

Amit Shah Lunch
  • 5/10

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসবেন। তাই খুশির আনন্দ ছিল সানা পরিবারে। পরিবারের সকলের আগেই কোভিড টেস্ট হয়ে গিয়েছিল। বেলা সাড়ে ১১টার মধ্যে সমস্ত রান্না শেষ করতে হয়েছে। সমস্ত খাবার তাঁর নিরাপত্তারক্ষী আগে পরীক্ষা করে দেখেছেন। তারপরই সেই খাবার পরিবেশন করা হয় শাহকে।

Amit Shah Lunch
  • 6/10

বুধবার সকাল থেকেই সাজো সাজো রব ছিল হাওড়ার সানা পরিবারে। সকাল থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছিল রান্না। মোট সাত জনের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়। যদিও সেই বিপুল আয়োজনের ক্ষমতা শিশিরবাবুর ছিল না। মঙ্গলবারই পার্টির কর্মীরা বাজার করে দিয়ে গিয়েছিলেন। 
 

Amit Shah Lunch
  • 7/10

শাহের এদিনের মেনুতে ছিল ভাত, রুটি, সবজি ডাল, লাল শাক ভাজা, আলু ঢেঁড়স ভাজা, পটল পোস্ত, এঁচোড়, চাটনি, পাঁপড়, দই, মিস্টি। 
 

Amit Shah Lunch
  • 8/10


শাহ আসবেন বলে গোটা এলাকায় ছিল কড়া নিরাপত্তা।  এলাকার মানুষ সেখানে এক ঝলক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দেখার জন্য দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষায় ছিলেন।
 

Amit Shah Lunch
  • 9/10

এদিন  শুধু খাওয়াই নয় সানা  পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও কথা বলতে দেখা গিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে।

Amit Shah Lunch
  • 10/10

বছর খানেল আগে বঙ্গ সফরে এসে উত্তরবঙ্গের এক আদিবাসী পরিবারে মধ্যাহ্নভোজ করেছিলেন অমিত শাহ। সেই সময়ে তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ছিলেন না। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি হিসেবে গ্রহণ করেছিলেন সেই খাবার। তারপরে গত কয়েক মাসে বেশ কয়েকবার তাঁকে দেখা গিয়েছে দুঃস্থ পরিবারে পাত পেরে খেতে।