scorecardresearch
 

'ওঁর যে দায়িত্ব, তা পালন করুন', বাংলায় এসে মমতাকে পরামর্শ বিপ্লব দেবের

পরিবর্তন যাত্রায় যোগ দিতে রাজ্যে এসে মঙ্গলবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসাতে বিপ্লব জানান, এটা মুখ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত বিষয় তিনি কার সঙ্গে দেখা করবেন, আর করবেন না। কিন্তু সিবিআই একটা স্বশাসিত সংস্থা। সে তার মত কাজ করবে। তাই আইন অনুসারে সিবিআইকে সেই কাজ করতে দেওয়া উচিত। আর ওঁর (মমতা) যে দায়িত্ব আছে, সেই দায়িত্ব উনি পালন করুক।

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। মঙ্গলবার বারাসতে। ছবি: দীপক দেবনাথ ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। মঙ্গলবার বারাসতে। ছবি: দীপক দেবনাথ
হাইলাইটস
  • মঙ্গলবার সিবিআই অভিষেকের বাড়িতে গিয়েছিল
  • তাঁর আগে মমতা অভিষেকের বাড়ি যান
  • এ নিয়ে মুখ খুললেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়ের ভাইপো সাংসদ অভিষেক বন্দ্যেপাধ্যায়ের বাড়িতে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করা নিয়ে মুখ খুললেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। বিজেপির কর্মসূচিতে যোগ দিতে এ রাজ্যে এসেছেন তিনি। মঙ্গলবার সিবিআই অভিষেকের বাড়িতে গিয়েছিল। তাঁর আগে মমতা অভিষেকের বাড়ি যান। এ প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন বিপ্লব।

পরিবর্তন যাত্রায় যোগ দিতে রাজ্যে এসে মঙ্গলবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বারাসাতে বিপ্লব জানান, এটা মুখ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত বিষয় তিনি কার সঙ্গে দেখা করবেন, আর করবেন না। কিন্তু সিবিআই একটা স্বশাসিত সংস্থা। সে তার মত কাজ করবে। তাই আইন অনুসারে সিবিআইকে সেই কাজ করতে দেওয়া উচিত। আর ওঁর (মমতা) যে দায়িত্ব আছে, সেই দায়িত্ব উনি পালন করুক।

সাংবাদিকেদের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ত্রিপুরার মানুষ ভাল আছেন। তাঁর দাবি ত্রিপুরার মতো বাংলাতেও পরিবর্তনের ঢেউ উঠেছে এবং পরিবর্তন এ রাজ্যে আসবেই ত্রিপুরায় যে জোয়ার দেখা গিয়েছিল তার থেকে বেশি মানুষের ঢেউ রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাংলার সরকারের পরিবর্তন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার চৈতন্য চেতনা রথযাত্রায় বারাসাতে এসে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব পশ্চিমবঙ্গের সরকারকে চালচোরের সরকার বলে অভিযোগ তুললেন। পশ্চিমবঙ্গ এখন সার্বিক ভাবে ত্রিপুরার চেয়ে পিছিয়ে। যাঁরা বিজেপিকে আক্রমণ করছে তাঁদের ছাড়া হবে না,আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঙ্কার দিয়েছেন বিপ্লব দেব।

এদিকে, রবিবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে যান সিবিআইয়ের একটি দল। সেখানে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরাকে সমন পাঠানো হয়। সূত্রের খবর, সোমবারের মধ্যে তদন্তকারীদের সঙ্গে দেখা না করলে তাকে ফের দ্বিতীয়বার সমন পাঠানোর সম্ভাবনা ছিল।

সিবিআইয়ের নোটিশের জবাব দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা। মঙ্গলবার তদন্তকারীদের তিনি দেখা করার সময় দিয়েছিলেন। বেলা ১১টা থেকে দুপুর ৩টের মধ্যে দেখা করতে বলেছেন তিনি।

সেইসঙ্গে তিনি চিঠিতে জানিয়েছিলেন, তাকে ঠিক কী কারণে ডাকা হয়েছে, সেই বিষয়ে তিনি অবগত নন। এদিন সিবিআই অফিসারেরা তাঁদের বাড়ি যাওয়ার আগে তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়। তিনি বেরিয়ে আসার খানিক বাদে সেখানে যায় সিবিআই।