scorecardresearch
 

High Cholesterol Controlling Foods : কোলেস্টেরল কমাতে এই খাবারগুলো দেখাতে পারে 'ম্যাজিক'

High Cholesterol Controlling Foods: হাই কোলেস্টেরলের লক্ষণগুলি শরীরে শনাক্ত করা খুব কঠিন। এটা হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের মতো অনেক গুরুতর রোগের আশঙ্কা বাড়িয়ে তোলে। হাই কোলেস্টেরলের সমস্যা চিকিৎসা করা খুবই কঠিন। তবে সঠিক সময়ে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করে এর ঝুঁকি কমানো যায়।

কোলেস্টেরল কমাতে কাজে লাগবে যে খাবার (প্রতীকী ছবি) কোলেস্টেরল কমাতে কাজে লাগবে যে খাবার (প্রতীকী ছবি)
হাইলাইটস
  • হাই কোলেস্টেরলের লক্ষণগুলি শরীরে শনাক্ত করা খুব কঠিন
  • এটা হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের মতো অনেক গুরুতর রোগের আশঙ্কা বাড়িয়ে তোলে
  • হাই কোলেস্টেরলের সমস্যা চিকিৎসা করা খুবই কঠিন

High Cholesterol Controlling Foods: হাই কোলেস্টেরলের লক্ষণগুলি শরীরে শনাক্ত করা খুব কঠিন। এটা হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের মতো অনেক গুরুতর রোগের আশঙ্কা বাড়িয়ে তোলে। হাই কোলেস্টেরলের সমস্যা চিকিৎসা করা খুবই কঠিন। তবে সঠিক সময়ে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করে এর ঝুঁকি কমানো যায়। একটি কেস স্টাডি অনুসারে, চারটি খাবারের সংমিশ্রণ কয়েক সপ্তাহের মধ্যে কোলেস্টেরলের মাত্রা ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কমাতে পারে।

স্ট্যানিন নামে লিপিড
হাই বা উচ্চ কোলেস্টেরল রক্তে ফ্যাটি অণুর উপস্থিতি বোঝায়, যা দুটি প্রোটিনে বিভক্ত হতে পারে। লো-ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন (LDL) মানে খারাপ কোলেস্টেরল এবং দ্বিতীয়, হাই-ডেনসিটি লাইপোপ্রোটিন (ভাল কোলেস্টেরল)। স্ট্যানিন নামে লিপিড কমানোর ওষুধগুলো অনেক সময় হাই কোলেস্টেরল আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করা হয়। তবে এর ব্যবহারে শরীরের ওপর কিছু গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে।

কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে
আগের গবেষণা অনুসারে, কিছু জিনিসের সংমিশ্রণ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে স্ট্যানিনের মতো একইভাবে কাজ করে। কিংস কলেজের (লন্ডন) ডাঃ স্কট হার্ডিং দাবি করেছেন যে ওটস, বাদাম, সোয়া এবং উদ্ভিদ স্টেরল (সবুজ শাকসবজি এবং বীজে পাওয়া যায় এমন পদার্থ) সহজেই শরীরের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।

আরও পড়ুন: আদানি উইলমার আইপিও করতে পারে মালামাল! অ্যালটমেন্ট চেক করুন এভাবে

আরও পড়ুন: পুরুষ-শরীরে এই ১০ লক্ষণ চিন্তার, ক্যান্সার নয় তো?

আরও পড়ুন: খুলে গেল সুন্দরবন, অনলাইন বুকিংও শুরু, মানতেই হবে কোভিড বিধি

এ ক্ষেত্রে উচ্চ কোলেস্টেরলযুক্ত ৪২ রোগীর নমুনা পরীক্ষার জন্য নেওয়া হয়েছে। তাঁদের তিনটি দলে বিভক্ত করা হয়েছিল এবং তাদের বিভিন্ন ধরনের ডায়েট করা হয়েছিল। প্রথম দলকে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় ৭৫ গ্রাম ওটস খেতে বলা হয়েছিল

আর দ্বিতীয় দলকে প্রতিদিন ৬৫ গ্রাম বাদাম খেতে বলা হয়েছিল। তৃতীয় গ্রুপকে কোলেস্টেরল জাতীয় খাবার থেকে দূরে থাকার এবং প্রাণীর স্যাচুরেটেড ফ্যাটের পরিবর্তে উদ্ভিদ-ভিত্তিক চর্বি খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল।

এই জিনিসগুলি কীভাবে কোলেস্টেরল কমায়?
বিশেষজ্ঞরা দেখেছেন যে ওটস কোলেস্টেরলকে অন্ত্রে ফের শোষিত হতে বাধা দেয় এবং রক্তের লিপিডের জন্যও উপকারী। অন্যদিকে সোয়া লিভারে কোলেস্টেরল সংশ্লেষণকে বাধা দেয়। একই সময়ে, উদ্ভিদ স্টেরল শরীরে কোলেস্টেরলের সঙ্গে লড়াই করতে কাজ করে। উদ্ভিজ্জ তেল, বাদাম, শস্য এবং বীজ উদ্ভিদ স্টেরলের ভাল উৎস হিসাবে বিবেচিত হয়।

এই পোর্টফোলিও ডায়েটের চার সপ্তাহ পরে, ডাক্তাররা রোগীদের মোট কোলেস্টেরল ২৫ শতাংশ এবং এলডিএল কোলেস্টেরলের ৩৩ শতাংশ হ্রাস পেতে দেখেছেন। এ ছাড়াও শুধুমাত্র ওটস খাওয়া গ্রুপে এলডিএল কোলেস্টেরলের ৯ শতাংশ হ্রাস পাওয়া গেছে। যেখানে কোলেস্টেরল-বর্ধক জিনিস থেকে দূরে থাকা গ্রুপের সার্বিক কোলেস্টেরলের মাত্রা ১৩ শতাংশ কমেছে।