scorecardresearch
 

India vs New Zealand 3rd ODI: শ্রীলঙ্কার পর নিউজিল্য়ান্ড, হোয়াইটওয়াশ করে বিশ্বের ১ নম্বর রোহিতরা

তৃতীয় একদিনের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৯০ রানে হারিয়ে একদিনের ক্রিকেটে আইসিসি র‍্যাঙ্কিং-এ শীর্ষে চলে গেল রোহিত শর্মার ভারত। তিনটি  একদিনের ম্যাচের তিনটিতেই জিতে সিরিজে ক্লিন সুইপ করে ফেলল টিম ইন্ডিয়া। ১৩৮ রান করে আউট হলেও দলের হার বাঁচাতে পারলেন না ডেভন কনওয়ে। 

টিম ইন্ডিয়া টিম ইন্ডিয়া
হাইলাইটস
  • শীর্ষে উঠে এল ভারতীয় দল
  • নিউজিল্যান্ডকে ৩-০ ব্যবধানে হারাল ভারত

তৃতীয় একদিনের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে (India vs New Zealand) ৯০ রানে হারিয়ে একদিনের ক্রিকেটে আইসিসি র‍্যাঙ্কিং-এ (ICC Ranking) শীর্ষে চলে গেল রোহিত শর্মার (Rohit Sharma) ভারত। তিনটি  একদিনের ম্যাচের তিনটিতেই জিতে সিরিজে ক্লিন সুইপ করে ফেলল টিম ইন্ডিয়া (Team India)। ১৩৮ রান করে আউট হলেও দলের হার বাঁচাতে পারলেন না ডেভন কনওয়ে (Devon Conway)। 

তিনি আউট হতেই একের পর এক উইকেট হারিয়ে ফেলে নিউজিল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত ২৯৫ রানে শেষ হয়ে যায় কিউয়িদের ইনিংস। কনওয়ে ও হেনরি নিকলস ছাড়া কেউই সে ভাবে রান করতে পারেননি। টসে জিতে শুরুতে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। শুরু থেকেই কিউয়িদের ব্যকফুটে ঠেলে দেন ভারতের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা (Rohit Sharma) ও শুভমন গিল (Subhman Gill)। দুউই জনেই সেঞ্চুরি করেন। 

আরও পড়ুন:রোহিত-গিলদের সেঞ্চুরি, নিউজিল্যান্ডের সামনে রানের পাহাড় ভারতের

১৬ ইনিংস পর সেঞ্চুরি পেলেন ভারত অধিনায়ক। মাত্র ৮৫ বলে ১০১ রানের ইনিংস খেলেন রোহিত। ৯টা চার ও ৬টা ছক্কা মারেন ভারত অধিনায়ক। অন্যদিকে, ৭৮ বলে ১১২ রানের ইনিংস খেলে আউট হন গিল। ১৩টা চার ও ৫টা ছক্কা মারেন ভারতের ওপেনার। ২৭ বলে ৩৬ রানের ইনিংস খেলে আউট হন বিরাট কোহলিও। এর পরেই বেশ কিছু উইকেট হারায় ভারতীয় দল। সেই সময় রানের গতি কিছুটা কমে আসে। ৩৮ বলে ৫৪ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন হার্দিক পান্ডিয়া (Hardik Pandya)। তিনটে চার আর তিনটে ছক্কা দিয়ে সাজান তাঁর ইনিংস। 

আরও পড়ুন: ১০ লাখ টাকা খোরপোশ চাইবেন হাসিন! কীভাবে তাঁর সঙ্গে শামির প্রেম বদলে গেল তিক্ততায়?

তবে তার আগেই কাজের কাজ করে গিয়েছেন ভারতের ওপেনাররা। যদিও মাঝের ওভারে কিছুটা নিয়ন্ত্রণ আনতে পেরেছিল নিউজিল্যান্ড। তবে তাতেও কাজ হয়নি। ভারতের রান এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন সহ-অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া। হাফ সেঞ্চুরি করে আউট হন তিনি। তিনিও যে মেজাজে খেলছিলেন তাতে মনে হচ্ছিল ৪০০ না হলেও কাছাকাছি নিয়ে যেতে পারেন হার্দিক। 

১০ ওভারে ১০০ রান দিলেও ভারতের ৩ উইকেট তুলে নেন জেকব ডাফি। উইকেট না পেলেও নিয়ন্ত্রিত বোলিং করেছেন লকি ফার্গুসন। এক ওভারে ২২ রান খাওয়ার পরেও বাকি ৯ ওভারে মাত্র ৩১ রান দিয়েছেন তিনি। যার মধ্যে রয়েছে একটি মেডেনও। টিকনারও তিনটি উইকেট নিয়েছেন। ১০ ওভারে ৭৬ রান দেন তিনি। মাইকেল ব্রেসওয়েল পেয়েছেন ১টি উইকেট।