scorecardresearch
 

নতুন কিনতে হবে না, পেট্রল বাইক-স্কুটারকে বদলে ফেলুন ইলেকট্রিক 2 Wheeler-এ

নতুন কিনতে হবে না। পেট্রল বাইক-স্কুটারকে বদলে ফেলুন ইলেকট্রিক বাইকে। খরচও খুব বেশি নয়। এক বছরের মধ্যেই পেট্রলের সাশ্রয়ে খরচ উঠে যাবে দাবি স্টার্ট আপ কোম্পানিগুলির।

স্কুটার নয়, মত বদলান স্কুটার নয়, মত বদলান
হাইলাইটস
  • পুরনো পেট্রল বাইক স্কুটারকে বদলে ফেলুন
  • বাইক বদলাতে হবে না, মত বদলান
  • সামান্য খরচে পেট্রল থেকে ইলেকট্রিক

যদি আপনি পেট্রোলের ক্রমবর্ধমান দামে অস্থির হয়ে ওঠেন তাহলে আপনি পেট্রোলওয়ালা মোটরসাইকেল অথবা স্কুটারটিকে আপনার বাইকটিকে ইলেকট্রিক করাতে পারেন। এতে আপনার পেট্রোলের হাওয়া মাসিক খরচা অনেকটাই কমে যাবে এবং টু হুইলার ইলেকট্রিক কিট লাগানোর খরচ খুব বেশি নয়।

স্টার্ট-আপ থেকে করান ইলেকট্রিক কিট রেট্রোফিট

যদি আপনি আপনার কাছে থাকে হিরো হন্ডা স্প্লেন্ডার এর মত কোনও মোটর সাইকেল কিংবা যদি আপনি হোন্ডা অ্যাক্টিভা টাইপের স্কুটার চালান, তাহলে আপনি আপনার স্কুটার ও বাইককে পেট্রোল থেকে অনায়াসে ইলেকট্রিক গাড়িতে কনভার্ট করে ফেলতে পারবেন।

বিভিন্ন এলাকায় স্টার্ট-আপ

বর্তমান সময়ে দেশে আলাদা আলাদা জায়গায় বিভিন্ন এলাকায় স্টার্ট-আপ শুরু হয়ে গিয়েছে। যাত্রীরা পেট্রোল ইঞ্জিন থেকে ইলেকট্রিক কিট লাগিয়ে তার রেট্রোফিটিং এর কাজ করছে। এই বিষয়ে ZUINK-কে GOGOA1 এবং BOUNCE-এর মত কোম্পানির নাম চর্চায় রয়েছে। যদি আপনি আপনার মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন বদলে ফেলতে চান, আপনার গাড়িকে ইলেকট্রিক মোটর লাগাতে চান, তাহলে আপনি পেট্রোলের খরচ থেকে অনেকটাই বেঁচে যাবেন।

গুগল সার্চ ওয়ালা গীত এ রয়েছে আইনি ঝামেলা

যদি আপনি সামান্য গুগল সার্চ করে জানতে চান তাহলে আপনি দশ হাজার টাকায় কমে ইলেকট্রিক মোটর কিট পেয়ে যাবেন। কিন্তু এটা একটু রিস্কি ব্যাপার রয়েছে। কারণ এই কিট সরকার আইনি মান্যতা দেয়নি। এ কারণে যখন আপনার বাইক বা স্কুটারের পরীক্ষা করা হবে বা আপনি রাস্তাঘাটে কখনো পুলিশ দ্বারা বাধা প্রাপ্ত হবেন, যাচাই করলে আপনি আইনি বিপাকে পড়তে পারেন। কারণ মোটর ভেহিকেল অ্যাক্ট অনুযায়ী ধারা-৫২ অনুসারে যদি আপনি আপনার গাড়িতে রেস্টোরেশন এর বাইরে কোন রেট্রোফিটিং অথবা মালিকের ওনারশিপ বদলান তাহলে আপনাকে তা আইনিভাবে নথিভূক্ত হতে হবে এ কারণে আপনি আরটিও এপ্রুভড ইলেকট্রিক লাগলে আপনার পক্ষে ভবিষ্যতের জন্য সুবিধাজনক।

ইলেকট্রিক কিট লাগালে কত খরচ

সাধারণভাবে যদি কোন পেট্রোল স্কুটারকে ইলেকট্রিক স্কুটার এ পরিণত করতে, পেট্রোল মোটরসাইকেল এর চেয়ে কম খরচ হয়। কারণ স্কুটারে অনেকটা বুট স্পেস থাকে। এ কারণে কনভার্সনের কষ্ট কম হয়। সাধারণভাবে আরটিও এপ্রোপ্রিয়েট ইলেকট্রিক মোটর কিট এর দাম ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে পড়ে। কিন্তু আপনি যদি ব্যাটারি আলাদাভাবে লাগাতে চান তাহলে এর রেঞ্জ এবং পাওয়ার এর উপর ডিপেন্ড করে। কিন্তু যদি আপনি সর্বোচ্চ ব্যাটারি সীমার ব্যবহার করতে চান যা তিন বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি দেবে তাহলে আপনার পেট্রোল যা খরচ বাঁচবে, তাতেই আপনি আপনার ব্যাটারি লাগানোর খরচ তুলে ফেলতে পারবেন।

এক চার্জে ১৫১ কিলোমিটার

সেখানে কিছু কোম্পানি সোয়াইপেবল ব্যাটারি এবং ভাড়ার ব্যাটারি অপশন দিয়েছে। কিছু কোম্পানি তাদের ব্য়াটারি সিঙ্গেল চার্জে ১৫১ কিলোমিটার পর্যন্ত গাড়িকে নিয়ে যেতে পারবে বলে দাবি করেন।

 
; ; ;