scorecardresearch
 

How To Stop A Running Car When Break Failed: চলন্ত গাড়িতে ব্রেক ফেল করলে কীভাবে থামাবেন? রইল উপায়

How To Stop A Running Car When Break Failed: চলন্ত গাড়িতে ব্রেক ফেল হয়ে হামেশাই বিপদ ঘটে। আমরা সঠিক উপায় জানি না বলে এ থেকে বের হতে পারি না। কিন্তু আপনি কী জানেন, যে ব্রেক ফেল হলেও সঠিক পদ্ধতি জানা থাকলে ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে গাড়ি থামিয়ে দেওয়া সম্ভব! আসুন জানিয়ে দিই চলন্ত গাড়িতে ব্রেক ফেল হলে কী করে গাড়ি থামাবেন?

চলন্ত গাড়িতে ব্রেক ফেল করলে কীভাবে থামাবেন? রইল উপায় চলন্ত গাড়িতে ব্রেক ফেল করলে কীভাবে থামাবেন? রইল উপায়
হাইলাইটস
  • চলন্ত গাড়িতে ব্রেক ফেল হলে কীভাবে থামাবেন?
  • ব্রেক ফেল হওয়ার আগে সতর্ক হওয়ার সঙ্কেত
  • ব্রেক ফেল হলে কখনও ইঞ্জিন বন্ধ করবেন না

How To Stop A Running Car When Break Failed: গাড়ি চালানোর সময় ব্রেক ফেল হয়ে যাওয়ার গল্প আমরা সব সময় শুনি বা দেখি। কিন্তু কখনও আপনি কী জানার চেষ্টা করেছেন? যে চলন্ত গাড়িতে ব্রেক কেন ফেল হয় বা এই পরিস্থিতিতে আপনি কিভাবে গাড়ি থামাতে পারেন? গাড়ির ব্রেক ফেল হওয়ার কিছুক্ষণ আগে সংকেত পাওয়া যায়। আমরা যদি বুঝতে না পারি তাহলে বিপদে পড়ি। অনেকেই বুঝতে পারেন না। কিন্তু আপনি যদি এই সংকেতকে এড়িয় যান তাহলে কিন্তু আপনি সময় থাকতে গাড়ি থামিয়ে দিতে পারবেন। বড় বিপদ থেকে রক্ষা পেতে পারেন। আসুন আমরা জেনে নিই এই পরিস্থিতিতে আপনি কীভাবে গাড়ি থামাবেন?

আরও পড়ুনঃ তৈরি হচ্ছে হংস পঞ্চমহাপুরুষ যোগ, কোন রাশিগুলিকে রাজা করে দিতে পারে?

সবার আগে গাড়ির ব্রেক ফেল থেকে বাঁচার জন্য গাড়ির ব্রেক সম্পর্কে কিছু বেসিক জিনিস জানা উচিত। গাড়ির চারটি চাকাতে ব্রেক সিস্টেম লাগানো থাকে। সাধারণত দু'রকম ব্রেক থাকে। ড্রাম এবং ডিস্ক। ড্রাম ব্রেকের চলন ধীরে ধীরে কম হয়। এই ব্রেক বেশিরভাগ পুরনো গাড়িতে লাগানো রয়েছে। সেখানে খুব দ্রুত গতিতেও তৎক্ষণাৎ থামিয়ে দিতে পারে ডিস্ক ব্রেক। কিছু গাড়িতে ড্রাম এবং ডিস্ক দুটো ব্রেকই থাকে।

হ্যাজার্ড লাইট চালু করুন

যদি আপনি চলন্ত গাড়িকে নিয়ন্ত্রণ করতে চান তাহলে হ্যাজার্ড লাইট চালু করতে হবে। রাস্তায় চলতে থাকা অন্য লোকেরা এতে সতর্ক হয়ে যাবে। আপনি সঙ্গে সঙ্গে হর্নও বাজাতে শুরু করুন। সবাই এটা না বুঝলেও জোরে হর্নের কারণে সরে যাবে।

ব্রেক প্যাডল লাগাতার পাম্প করুন

গাড়িতে দুটো ব্রেকিং সিস্টেম থাকে। একটা সামনের দিকে এবং একটি পিছনের দিকে। গাড়ির ব্রেক সম্পূর্ণভাবে তখনই ফেল হবে, যখনই দুটো সিস্টেমই কাজ করা বন্ধ করে দেবে। যদি সামনের বা পিছনের দুটোর মধ্যে কোন একটা সিস্টেম অ্যাক্টিভ থাকে, তাহলে আপনি গাড়িকে খুব সহজে ব্রেক লাগাতে পারবেন। এ কারণে গাড়ির ব্রেক লাগাতার পাম্প করতে থাকুন।

ধীরে ধীরে ডাউনশিফ্ট করুন 

ব্রেক প্যাডল পাম্প করার পর ও যদি আপনার ব্রেক প্যাডেল কাজ না করে। তাহলে গাড়ি স্লো করার জন্য আপনি ইঞ্জিন ব্রেকের ব্যবহার করুন এর জন্য আপনাকে এক্সেলেটর প্যাডলকে রিলিজ করতে হবে এবং গিয়ারকে ১ নম্বরে আনতে হবে। এই সময়ে ইঞ্জিন গাড়ির গতি কম করতে সাহায্য করবে।

আরও পড়ুনঃ ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়, হার্ট মজবুত রাখে এই সবজি, সারা বছর খান

৪. হ্যান্ড ব্রেক ব্যবহার করুন

আগের পদ্ধতিতেও যদি গাড়ি থামাতে না পারেন, তাহলে পার্কিং বা হ্যান্ড ব্রেক ব্যবহার করুন। তবে ১ নম্বরে এনে ততবেই হ্যন্ড ব্রেক লাগান। কিন্তু হাই স্পিডে পার্ক লাগাবেন না। তাহলে দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে।

৫.রাস্তা থেকে গাড়ি অন্যদিকে শিফট করুন

যদি আপনি গাড়ি স্লো হয়ে থাকে, তাহলে দ্বিতীয় কাজ হল আপনি সুরক্ষিতভাবে রাস্তা থেকে গাড়ি সরিয়ে নিন। যদি আপনি কোনও একাধিক লেনওয়ালা সড়কে থাকেন তাহলে নিজের আশপাশে নজর দিন। সিগন্যাল ব্যবহার করুন। গাড়িকে নিউট্রালে-এ শিফট করুন এবং এটা সুনিশ্চিত করুন যে গাড়ির গতি কমেছে। শেষে হ্যাজার্ড লাইট চালু করুন এবং অন্য মোটর গাড়িগুলিকে সতর্ক করে দিন। আপনার হেডলাইট এবং হর্ন ব্যবহার করতে থাকুন।

ইঞ্জিন বন্ধ করবেন না

গাড়ি থামার আগে কিন্তু ভুলেও ইঞ্জিন বন্ধ করবেন না। সবার আগে ইঞ্জিন বন্ধ করলে আপনার ইঞ্জিন ব্রেকিং হারিয়ে ফেলবে। পাওয়ার স্টিয়ারিং কাজ করবে না। স্টিয়ারিং হুইল লকও হতে পারে এ কারণে গাড়িকে থামানোর আগে পর্যন্ত আপনি ইঞ্জিন বন্ধ করবেন না।