scorecardresearch
 

উত্তরবঙ্গ ভ্রমণে বাধা কাটল, বিমানের বদলে তিন জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু

বাগডোগরা বিমানবন্দর ১৫ দিনের জন্য বন্ধ। পর্যটনের মরশুমের শুরুতে এগিয়ে এল উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল। উত্তরবঙ্গ ভ্রমণে বিমানের বিকল্প রেলের, তিন জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু

তিন জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের তিন জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের
হাইলাইটস
  • উত্তরবঙ্গ ভ্রমণে বাধা কাটল
  • বিমানের বদলে ট্রেন
  • তিন জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু

রানওয়েতে মেরামতি ও বিমানবন্দরের সংস্কারের কারণে বাগডোগরা বিমানবন্দরে বন্ধ বিমান পরিষেবা। ট্রেনেও ওয়েটিং লিস্টের তালিকা লম্বা। এই পরিস্থিতিতে ত্রাতার ভূমিকায় উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে। বিশেষ করে ভ্রমণপিপাসুদের আশার আলো দেখাচ্ছে রেল কর্তৃপক্ষ।

পর্যটকদের ভোগান্তি কমাতে এবং তাদের উত্তরবঙ্গমুখী করতে বাড়তি তিন জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালানোর ঘোষণা করল রেল। এর মধ্যে এক জোড়া রয়েছে নিউ জলপাইগুড়ি থেকে সরাসরি হাওড়া পর্যন্ত। বাকি দুটি উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে পুরী এবং শিয়ালদহ পর্যন্ত । তাই আর দেরি না করে আজই কেটে ফেলুন আপনার পছন্দের ডেস্টিনেশন পৌঁছনোর টিকিট।

সামনেই পয়লা বৈশাখ। বাংলা নববর্ষ। এছাড়াও গুড ফ্রাইডে সহ বেশ কয়েকটি সরকারি ছুটি রয়েছে। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে উত্তরবঙ্গে প্রতি বছরই এই সময়টায় পর্যটকদের ভিড় বাড়ে। তবে রানওয়েতে জরুরিকালীন মেরামতের জন্য সোমবার থেকে আগামী ১৫ দিনের জন্য বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে সমস্ত রকম বিমান পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

তিন জোড়া ট্রেনে আশার আলো

এতেই মাথায় হাত পড়ে ছিল উত্তরবঙ্গের পর্যটন ব্যবসায়ীদের। কারণ উত্তরবঙ্গে আশা পর্যটকদের একটা বড় অংশ নির্ভর করে বিমান পরিষেবার উপর। শুধু পর্যটকরাই নয় চিকিৎসা সহ অন্যান্য জরুরি কাজের জন্য বাগডোগরা বিমানবন্দরের ওপর নির্ভর করে উত্তরবঙ্গের মানুষ। তাই এরই মাঝে কিছুটা স্বস্তির খবর দিল উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে। উত্তরবঙ্গে আসা পর্যটকদের কথা মাথায় রেখে তিন জোড়া গ্রীষ্মকালীন স্পেশাল ট্রেন চালানোর কথা ঘোষণা করল রেল।

কোন কোন ট্রেন কোন কোন স্টেশন থেকে ছাড়বে?

এই তিন জোড়া ট্রেনের মধ্যে একজোড়া ট্রেন রয়েছে সরাসরি শিলিগুড়ির নিউ জলপাইগুড়ি থেকে হাওড়া পর্যন্ত। বাকি দুজোড়া মধ্যে একটি কামাখ্যা থেকে শিয়ালদহ এবং অন্যটি রাঙাপাড়া থেকে পুরী পর্যন্ত ।

কখন কোন ট্রেন ?

রেলওয়ের তরফে জানানো হয়েছে ১৩ এপ্রিল থেকে প্রতি বুধবার ০২৩০৭ নম্বরের নিউ জলপাইগুড়ি হাওড়া সামার স্পেশাল ট্রেনটি রাত ১১:৩৫ মিনিটে হাওড়া থেকে ছেড়ে নিউ জলপাইগুড়ি উদ্দেশ্যে রওনা দেবে। পরের দিন অর্থাৎ প্রতি বৃহস্পতিবার দুপুর ১২:৩৫ মিনিটে নিউ জলপাইগুড়ি থেকে রওনা দিয়ে রাত ১১:০৫ মিনিটে হাওড়া স্টেশনে পৌঁছবে। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত মিলবে এই সামার স্পেশাল ট্রেন পরিষেবা। অন্যদিকে ১৫ এপ্রিল শিয়ালদাহ থেকে কামাখ্যা পর্যন্ত ০৩১০১ নম্বরের সামার স্পেশাল ট্রেনের পরিষেবা এবং ১৮ ই এপ্রিল আসামের রাঙাপাড়া থেকে পুরী পর্যন্ত সামার স্পেশাল ট্রেন পরিষেবা চালু করছে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে।

রেলের দাবি

উত্তর পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সব্যসাচী দে বলেন, উত্তরবঙ্গে আসা পর্যটকদের কথা মাথায় রেখে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের তরফে তিন জোড়া সামার স্পেশাল ট্রেন চালানো হচ্ছে। আসলে কোভিড পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হতেই উত্তরবঙ্গে পর্যটকদের ভিড় বাড়ছে তাই আমরা চাই পর্যটকরা উত্তরবঙ্গের পাশাপাশি উত্তর-পূর্ব ভারতে ভ্রমণে আসুক। এতে উত্তরবঙ্গের পর্যটন শিল্প ঘুরে দাঁড়াক।

বাগডোগরা বিমানবন্দর বন্ধ হওয়ায় সমস্যা

প্রসঙ্গত, বাগডোগরা বিমানবন্দর শুধু উত্তরবঙ্গ নয় প্রতিবেশী রাজ্য সিকিম ও বিহারের একটা বড় অংশের মানুষ নির্ভর করে এই বিমানবন্দরের উপর। তবে গত জানুয়ারি মাসেই এয়ারফোর্সে তরফে রানওয়ে মেরামতের জন্য এয়ারপোর্ট কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে ১৫ দিন বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখার কথা জানিয়ে দেয়। জানা গিয়েছে এই রানওয়ে মেরামতের কাজ শেষ পর্বের কাজ সম্পন্ন করতে এই ১৫ দিন সময় লাগবে। ইতিমধ্যে এই কাজ শুরু করে দিয়েছে বর্ডার রোড অর্গানাইজেশন।