scorecardresearch
 

Purulia-তে স্ত্রী, শিশুপুত্র ও কন্যাকে কুপিয়ে খুন করে বিষপান যুবকের

স্ত্রী, শিশুপুত্র ও কন্যাকে কুপিয়ে হত্যা করে বিষ পান করে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা যুবকের। পুরুলিয়ার কাশিপুরে আতঙ্ক ও চাঞ্চল্য। ওই যুবককে ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ তদন্তে নেমেছে।

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
হাইলাইটস
  • স্ত্রী, শিশুপুত্র ও কন্যাকে কুপিয়ে খুন
  • এরপর নিজে বিষপান যুবকের
  • পুরুলিয়ায় আতঙ্ক ও চাঞ্চল্য

স্ত্রী, শিশুপুত্র ও কন্যাকে কুপিয়ে হত্যা করে বিষ খেল এক যুবক। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনার খবর পাওয়া গিয়েছে পুরুলিয়ার কাশিপুর এলাকা থেকে। এখানকার রাঙ্গাডি গ্রামের যুবক গৌতম মাহাতো গভীর রাতে কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে বলে প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে। গৌতমকে আপাতত কাশিপুর কল্ললি ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। দেহগুলি পুরুলিয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হবে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে বদমেজাজি গৌতমের সঙ্গে প্রায়ই তার স্ত্রীর ঝামেলা হতো। শুক্রবার রাতেও তাই হয়েছে। এরপরই গভীর রাতে আচমকা সে কুড়ুল দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকেন তার স্ত্রী ও সন্তানদের। ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। এরপরই বিষ খায় গৌতম। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ফোন করলে আসে পুলিশ।তাকে পুলিশই হাসপাতালে ভর্তি করে।

কেন সে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। অপেক্ষা করা হচ্ছে গৌতম সুস্থ হওয়া পর্যন্ত। এরপর তাকে জেরা করা হবে। সে তার স্ত্রীকে সন্দেহ করতো বলেও একটি সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে। তবে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে অতীতে ঝগড়ার কোনও কথা তিনি জানতেন না বলে জানিয়েছেন মৃতের শ্বশুর নেপালচন্দ্র মাহাত। তিনি বলেন গভীর রাতে তার মেয়ে এবং নাতি-নাতনিরা যখন ঘুমিয়েছিল তখন তাদের খুন করে জামাই। আপাতত জামাইয়ের ফাঁসির দাবি করেছেন তিনি।

গোটা ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। গোটা ঘর রক্তে ভেসে যাচ্ছে। ভয়াবহ ছবি দেখা গিয়েছে সারা ঘরে। এমন ঘটনা টিভিতে, সিনেমায় দেখলেও প্রকাশ্যে তা কস্মিনকালেও দেখা যায়নি।