scorecardresearch
 

Matua Leader Mamata Thakur on Shantanu and Subrata Thakur : সুব্রত-শান্তনু ঠাকুর যোগ দিক TMC-এ, আহ্বান মতুয়ানেত্রী মমতার

Matua Leader Mamata Thakur on Shantanu and Subrata Thakur: বিজেপি বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর (Gaighata BJP MLA Subrata Thakur) ও তার দাদা শান্তনু (Central Minister Shantanu Thakur)-কে তৃণমূলে যোদ দেওয়ার আহ্বান জানালেন মমতা ঠাকুর (Matua Leader Mamata Thakur)

সুব্রত এবং মমতা ঠাকুর সুব্রত এবং মমতা ঠাকুর
হাইলাইটস
  • বিজেপি বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর ও তার দাদা, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শান্তনুকে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানালেন মমতা ঠাকুর
  • শনিবার ৫ মতুয়া বিজেপি বিধায়ক রাজ্য বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করেন
  • যার মধ্যে অন্যতম গাইঘাটার বিজেপি বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর

Matua Leader Mamata Thakur on Shantanu and Subrata Thakur: বিজেপির নতুন কমিটি গঠনের কাজ চলছে। বেশ কয়েকজনকে নয়া কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। অনেক নতুন নেতা সেখানে জায়গা পেয়েছেন।

আর বাদ পড়ার পর অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। দলে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে। এ নিয়ে বিপাকে পড়েছে বিজেপি। এই ঘটনা নিয়ে বিজেপিকে বিঁধতে ছাড়েনি শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস।

আরও পড়ুন: দুনিয়ায় প্রথম! স্কুল পড়ুয়াদের ব্লাড ডোনার্স ক্লাব, নিউ ব্য়ারাকপুরে

আরও পড়ুন: 'কেন্দ্রীয় বাহিনীই চাই', কমিশনের ওপর চাপ বাড়িয়ে দাবি শুভেন্দুর

মমতা ঠাকুরের উদ্যোগ
বিজেপি বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর (Gaighata BJP MLA Subrata Thakur) ও তার দাদা শান্তনু (Central Minister Shantanu Thakur)-কে তৃণমূলে যোদ দেওয়ার আহ্বান জানালেন মমতা ঠাকুর (Matua Leader Mamata Thakur)। শনিবার ৫ মতুয়া বিজেপি বিধায়ক রাজ্য বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ত্যাগ করেন। যার মধ্যে অন্যতম গাইঘাটার বিজেপি বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর (Gaighata BJP MLA Subrata Thakur)। তাঁরা একই পরিবারের সদস্য।

আরও পড়ুন: কয়েনের ভাঁড়ার উপচে পড়ছে RBI-র, সামাল দিচ্ছে এই উপায়ে

সেই সুব্রত (Gaighata BJP MLA Subrata Thakur)-কে এবার তৃণমূলে যোগদানের আহ্বান জানালেন মতুয়া মহাসঙ্ঘের সংঘাধিপতি তথা তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদ মমতা ঠাকুর। সেইসঙ্গে সুব্রতর ভাই তথা কেন্দ্রীয় জাহাজ রাষ্ট্রমন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর (Central Minister Shantanu Thakur)-কেও তৃণমূলে যোগদানের আহ্বান জানান মমতা ঠাকুর।

আরও পড়ুন: রাওয়াতের মৃত্যুতে 'উল্লাস', লালবাজারের ধমকে ডিলিট Facebook পোস্ট

ওঁদের পাশ থেকে মতুয়ারা সরে যাচ্ছেন
রবিবার সকালে ঠাকুরনগরে সংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা ঠাকুর জানান, ওঁদের পাশ থেকে মতুয়ারা সরে যাচ্ছেন। সেটা বুঝতে পেরে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বেরিয়ে গিয়েছেন। যদি আমাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (WB CM Mamata Banerjee) তাংদের দলে নেন, তা হলে একসঙ্গে কাজ করলে ভাল হবে।

আরও পড়ুন: দশম-দ্বাদশ পাশেই নৌসেনায় চাকরি, ৪৩ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন

যদিও এ ব্যাপারে সুব্রত ঠাকুর (Gaighata BJP MLA Subrata Thakur) সংবাদমাধ্যমের সামনে জানান, এব্যাপারে বাইরে কিছু বলব না। সঠিক সময়ের সব কিছু জানতে পারবেন। বিজেপির রাজ্য জুড়ে সাংগঠনিক জেলার সভাপতি বদল হওয়ার রেশ পড়েছে দলে। বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন বিজেপির ৫ বিধায়ক। এমনই জানা গিয়েছে।

শনিবার বিজেপির বিভিন্ন সাংগঠনিক জেলার নতুন সভাপতির নামের তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। আর সেই তালিকা প্রকাশের পর এই বিজেপির হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে নিজেদের সরিয়ে নিলেন বিজেপির বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার পাঁচজন বিধায়ক।

আরও পড়ুন: ক্লাস টুয়েলভের বোর্ড পরীক্ষায় গুজরাত দাঙ্গা নিয়ে প্রশ্ন, ক্ষমা চাইল সিবিএসই

আরও পড়ুন: নলেন গুড়-ছানার প্রেমে তৈরি মাখা সন্দেশে মজে বাঙালি

কারা ছেড়েছেন
তাঁরা হলেন বনগাঁ উত্তর কেন্দ্রের বিধায়ক অশোক কীর্তনীয়া, গাইঘাটার বিধায়ক সুব্রত ঠাকুর, হরিণঘাটার বিধায়ক অসীম সরকার, রানাঘাট দক্ষিণের বিধায়ক মুকুটমণি অধিকারী ও কল্যাণীর বিধায়ক অম্বিকা রায়।

জানা গিয়েছে বিজেপির নতুন সভাপতি দের মধ্যে মতুয়াদের প্রাধান্য দেওয়া হয়নি। সে কারণেই তারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যদিও বিধায়করা প্রকাশ্যে কিছু জানাননি। এই ঘটনা বিজেপিকে বিড়ম্বনায় ফেলেছে।