scorecardresearch
 
বিশ্ব

বাড়ল চিন্তা! দক্ষিণ আফ্রিকায় মিলল COVID-19 নতুন ভেরিয়েন্ট, দ্রুত ছড়াচ্ছে সংক্রমণ

Covid variant
  • 1/13

দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনা ভাইরাসের একটি নতুন ভেরিয়েন্ট পাওয়া গেছে। প্রসঙ্গত, এর জেরে সারাদেশে ২২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই ভেরিয়েন্ট সামনে আসার পর, দক্ষিণ আফ্রিকার সরকার, বেসরকারি গবেষণাগারগুলির সহযোগিতায়, এই ভেরিয়েন্ট দ্বারা সংক্রামিত ব্যক্তিদের নিয়ে ব্যাপকভাবে গবেষণা করছে। এটি কতটা বিপজ্জনক তা এখনও জানা যায়নি। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার দ্য ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর কমিউনিকেবল ডিজিজেস (NICD) অনুসারে, এটি সংক্রামক হতে পারে। 

Covid variant
  • 2/13

NICD জানিয়েছে যে এই নতুন করোনা ভাইরাসের রূপের নাম হল B.1.1.529। দক্ষিণ আফ্রিকা সরকার NGS-SA-এর সদস্য সরকারি পরীক্ষাগার এবং বেসরকারি পরীক্ষাগারগুলিকে অবিলম্বে জিনোম সিকোয়েন্সিং করার পরামর্শ দিয়েছে। যাতে জানা যায় এই ভেরিয়েন্টটি কতটা ছোঁয়াচে, কতটা বিপজ্জনক ও ক্ষতিকর। 
 

Covid variant
  • 3/13

NICD ভারপ্রাপ্ত এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর অধ্যাপক ড. আদ্রিয়ান পুরেন বলেছেন যে আমরা দক্ষিণ আফ্রিকায় নতুন ভেরিয়েন্ট পেয়ে অবাক হইনি। যদিও এই মুহূর্তে তথ্য খুবই সীমিত, কিন্তু আমাদের স্বাস্থ্যকর্মী ও বিজ্ঞানীরা নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন। কোথা থেকে এই ভেরিয়েন্টের  উৎপত্তি হয়েছে তা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন তারা। এটি কোথায় ছড়িয়েছে এবং এটি কতটা ক্ষতি করতে পারে? আমরা মানুষকে প্রতিনিয়ত পরামর্শ ও সতর্কতা দিচ্ছি, যাতে তারা করোনা সংক্রমণ এড়াতে পারে। 

Covid variant
  • 4/13

পাবলিক হেলথ সার্ভিল্যান্স অ্যান্ড রেসপন্সের প্রধান ডাঃ মিশেল গ্রুম বলেন, আশ্চর্যের বিষয় হলো পজিটিভ আসা মানুষের সংখ্যা এবং আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। B.1.1.529 ভেরিয়েন্টের সবচেয়ে বেশি কেস  গৌতেং, উত্তর পশ্চিম এবং লিম্পোপোতে রিপোর্ট করা হয়েছে। মিশেল বলেছেন, আমরা সারা দেশে এনআইসিডি সহ সমস্ত রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রশাসনকে সতর্ক করেছি। 
 

Covid variant
  • 5/13


ডাঃ মিশেল গ্রুম বলেছেন যে আমরা মানুষকে যতটা সম্ভব সুরক্ষিত থাকতে  বলেছি। কোভিড-১৯ প্রোটোকল অনুসরণ করুন। এমনকি যদি কেউ ভ্যাকসিন পেয়ে থাকেন, তবুও তাকে মাস্ক পরতে হবে। সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন। হাতের পরিচ্ছন্নতার যত্ন নিন এবং জনাকীর্ণ এলাকায় যাবেন না। কারণ এখন পর্যন্ত আমরা জানি না নতুন ভেরিয়েন্টটি কতটা বিপজ্জনক। এর আগে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট বিশ্বে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছিল। 

Covid variant
  • 6/13

২০১৯  সালে চিনে উদ্ভূত প্রথম করোনভাইরাসটির তুলনায় ডেল্টা ভেরিয়েন্টে সংক্রামিত ব্যক্তিদের ভাইরাল লোড  ১০০০ গুণ বেশি। এটি দ্রুত  গতিতে সারা বিশ্বের মানুষকে সংক্রমিত করে। চিনে করা এক গবেষণায় বলা হয়েছে, এখন এর অতি দ্রুত সংক্রমণের কারণ খুঁজে পাওয়া গেছে। ডেল্টা ভেরিয়েন্ট ভারতে প্রথম রেকর্ড করা হয়েছিল গত বছরের অক্টোবরে। এর পরে, এই বিপজ্জনক রূপটি বিশ্বব্যাপী সংক্রামিত কোভিড -১৯ রোগীদের ৮৩% কব্জা করে।

Covid variant
  • 7/13

এখন বিজ্ঞানীরা জানতে পেরেছেন কেন ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট সংক্রমণ ছড়াতে এতটা সফল হয়েছিল। এটাও দেখা গেছে যে ডেল্টা ভেরিয়েন্টে সংক্রমিত লোকেরা অন্যান্য করোনা রোগীদের তুলনায় বেশি ভাইরাস ছড়ায়। এ কারণেই এটি চিন থেকে উদ্ভূত প্রথম SARS-CoV-2 রূপের চেয়ে বেশি ছড়িয়ে পড়েছিল। বর্তমান তথ্য অনুযায়ী, ডেল্টা ভেরিয়েন্ট কোভিড-১৯-এর প্রথম স্ট্রেইনের তুলনায় দ্বিগুণ সংক্রামক। 
 

Covid variant
  • 8/13

চিনের গুয়াংজুতে গুয়াংডং প্রাদেশিক রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জিং লু বলেছেন যে তিনি ৬২  জনকে পরীক্ষা করেছেন। এই লোকেরাই প্রথম চিনে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হয়েছিল। তারা সংক্রমিত হলে প্রথমে তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। যাতে তাদের কারণে অন্যরা সংক্রমিত না হন।

Covid variant
  • 9/13

জিং লু এবং তার দল এই ৬২ জনের শরীরে ডেল্টা ভেরিয়েন্টের ভাইরাল লোড পরীক্ষা করেছেন, অর্থাৎ শরীরে ভাইরাসের পরিমাণ। এই তদন্ত কেবল একবারই হয়নি। বরং, পুরো সংক্রমণের সময় এটি প্রতিদিন পরীক্ষা করা হয়েছিল। যাতে ভাইরাল লোডের হ্রাস এবং অতিরিক্ত বৃদ্ধি পরীক্ষা করা যেতে পারে। এর পরে, বিজ্ঞানীরা ২০২০ সালে কোভিড -১৯-এর প্রথম ভেরিয়েন্টের  সাথে সংক্রামিত আরও ৬৩  জনের ভাইরাল লোডের রিপোর্ট দেখেছিলেন। 

Covid variant
  • 10/13

১২  জুলাই একটি প্রি প্রিন্ট গবেষণায় বলা হয়েছিল  যে ডেল্টা ভেরিয়েন্ট  দ্বারা সংক্রামিত ব্যক্তিদের মধ্যে ভাইরাসটি চার দিন পরে সনাক্ত করা হয়েছিল। যেখানে, প্রথম স্ট্রেন ছয় দিন পরে হাজির হত। এর মানে হল যে ডেল্টা ভেরিয়েন্ট শরীরে আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। ডেল্টা ভেরিয়েন্টে সংক্রামিত ব্যক্তিদের আগে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিতদের তুলনায় ভাইরাল লোড ১২৬০ গুণ বেশি ছিল। 
 

Covid variant
  • 11/13

হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ বেঞ্জামিন কলিং বলেছেন যে শরীরে দ্রুত বর্ধমান ভাইরাল লোড এবং সংক্ষিপ্ত ইনকিউবেশন পিরিয়ডের কারণে ডেল্টা ভেরিয়েন্ট  দ্রুত একজনকে সংক্রামিত করার পরে অন্যকে সংক্রামিত করছে। এ কারণে মানুষের মধ্যে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত কেউ যদি আপনার আশেপাশে থাকে, তাহলে তার থেকে অনেক দূরত্ব বজায় রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ, কারণ তার শ্বাসযন্ত্রে ভাইরাল লোড বেশি। এটি আপনাকে সংক্রমণের ঝুঁকিতে রাখে। 

 

Covid variant
  • 12/13

বেঞ্জামিন কলিং বলেছেন যে ডেল্টা ভেরিয়েন্টের ইনকিউবেশন পিরিয়ড এতই কম যে চিনের মতো দেশে এর কনটাক্ট ট্রেসিং করা সহজ নয়। অর্থাৎ, এই ভেরিয়েন্ট রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে কতজন এসেছেন তার সঠিক হিসাব পাওয়া কঠিন। কারণ প্রথম দিনেই যদি কেউ কোনো ব্যক্তির সংস্পর্শে আসে, তাহলে সেও চারদিনের মধ্যে সংক্রমিত হবে। এত তাড়াতাড়ি তাকে খুঁজে পাওয়া এবং চিকিৎসার জন্য তাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা সহজ হবে না।
 

Covid variant
  • 13/13

সুইৎজারল্যান্ডের বার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক গবেষক এমা হডক্রফট বলেছেন যে ডেল্টা ভেরিয়েন্ট সম্পর্কে জিং লু এর গবেষণা সঠিক। এমা এবং বেঞ্জামিন কলিং সন্দেহ করেন যে ডেল্টা ভেরিয়েন্টের ভাইরাল লোড এবং প্রথম করোনভাইরাস স্ট্রেনের মধ্যে পার্থক্য থাকতে পারে। যা আরও তদন্ত করতে হবে। কিন্তু জিং লু এবং তার দল যেভাবে এই গবেষণাটি করেছে, সেই পদ্ধতি সঠিক। তাই তাদের পরিসংখ্যানও সঠিক হবে বলে আশা করা যায়।